রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৪০ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
চলমান লকডাউন আরো দুই দিন ভিভো ভি২০, ওয়াই২০ ও ওয়াই১২এস স্মার্টফোনে ডিসকাউন্ট! শিক্ষকের বাসা থেকে গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার ঝর্ণার সন্ধান পাচ্ছেন না গোয়েন্দারা কঠোর লকডাউন: বন্ধ হতে পারে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীর বিয়ে দিলেন স্বামী ঝুঁকিপূর্ণ দৃশ্য করতে গিয়ে মরতে বসেছিলেন সজল-নওশাবা বাংলাদেশি ভেবে ভারতীয় যুবককে গুলি করলো বিএসএফ করোনায় সাভার মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রীর মৃত্যু আইপিএলে কোহলি-ধোনিরা ভালো খেললেই হবে ডোপ পরীক্ষা লাইফ সাপোর্টে সংগীত পরিচালক ফরিদ আহমেদ বরের উচ্চতা ৪০ ইঞ্চি কনের ৪২ সাংবাদিক সুমনকে নির্যাতনের ঘটনায় জড়িতদের ৩ দিনেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ ! রাজারাহাটে  ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশের ত্রাণ বিতরণ নেত্রকোণায় শ্লীলতাহানির ঘটনায় জড়িত তিন অটোরিকশা চালক

‘অন্যের শেখানো বুলি বলছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও ওষুধ প্রশাসন’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ কিটস পরীক্ষার বিষয়াদি নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও ওষুধ প্রশাসনকে যেভাবে দোষারোপ করেছেন, তা মিথ্যা ও উদ্যেশ্যপ্রণোদিত বলে মন্তব্য করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এখন পর্যন্ত অনুমোদন না দেয়ায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র আবিষ্কৃত র‌্যাপিড কিটস পরীক্ষার আপাতত কোনো সুযোগ নেই।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এমন বক্তব্যের জবাবে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) কোনো ওষুধ বা এ সংক্রান্ত যন্ত্রপাতির নিবন্ধন অনুমোদন দেয় না। সেটা তাদের দায়িত্ব না। মন্ত্রণালয় ও ওষুধ প্রশাসনের লোকজন যা বলছে, একবারে ভুল কথা বলছে। অজ্ঞতাবশত তাহারা ভুল কথা বলিয়াছে। তারা নিজেদের জ্ঞানের অভাবে অন্যের শেখানো বুলি বলেছেন।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) বিকেলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বক্তব্যের বিষয়ে গণমাধ্যমকে এসব কথা বলেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ওষুধ বা যন্ত্রপাতির অনুমোদনের দায়িত্ব নিজ নিজ দেশের ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ভারতসহ অন্যান্য দেশের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন দেয়। আমাদের বাংলাদেশেও আমাদের নিজস্ব প্রতিষ্ঠান ওষুধ প্রশাসন আছে অনুমোদন দেয়ার জন্য। অবশ্য ডব্লিউএইচওর কিছু গাইডলাইন ও তথ্য আছে। তবে তারা কোনো কিছুর রেজিস্ট্রেশন দেয় না।

কিট পরীক্ষার জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে সরকারের অনুরোধ করতে হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমাদের ওষুধ প্রশাসন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে যদি বলে, পরীক্ষা করে এটার কোয়ালিটি দেখেন, তারা করে দেবে। এই চিঠি লেখার দায়িত্ব হলো ওধুষ প্রশাসন অধিদপ্তরের।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র উদ্ভাবিত কিটের অনুমোদন বাংলাদেশ সরকার না দিলেও একই জাতীয় কিটের অনুমোদন ভারত সরকার দিয়েছে বলেও জানান জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

গতকাল কিট জমা দিতে গেলে ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর তা না নেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। সেই প্রেক্ষিতে সোমবার ওষুধ প্রশাসনের মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান সংবাদ সম্মেলন করেছেন। ডিজির অভিযোগ, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও ওধুষ প্রশাসনসহ এ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন অঙ্গ-সংগঠনকে হেয়-প্রতিপন্ন করছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। সেই সঙ্গে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের অভিযোগগুলো অস্বীকার করেন ডিজি।

এদিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (প্রশাসন) ও মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক মো. হাবিবুর রহমান খান জানিয়েছেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এখন পর্যন্ত বিশ্বের কোনো দেশকেই র‌্যাপিড কিটস পরীক্ষার অনুমোদন দেয়নি। এক্ষেত্রে গণস্বাস্থ্যের র‌্যাপিড কিটস পরীক্ষারও আপাতত কোনো সুযোগ নেই। তবে ভবিষ্যতে এটি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে অনুমোদিত ও নির্দেশিত হলে গণস্বাস্থ্যের কিট গ্রহণে সরকারের কোনো আপত্তি থাকবে না।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38441578
Users Today : 1054
Users Yesterday : 1570
Views Today : 12390
Who's Online : 24
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone