সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১, ০১:১২ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
জিয়া খন্দোকার’র মৃত্যুতে ফেনী প্রেসক্লাব’র শোক চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা শাখার অভিযানে ২০০ পিস ইয়াবা ও ১০০ গ্রাম হেরোইন সহ ৩ জন গ্রেপ্তার। চাঁপাইনবাবগঞ্জ বিশ্বরোড হজরত এন্ড রুবেল ফল ভান্ডার এর দোকানে ১২ মাসি ফলের হিড়িক। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে সরকার বিনা মূল্যে করোনার টিকা দিতে চাচ্ছে ইনশাআল্লাহ : স্বাস্থ্যসেবা সচিব গাজা গাছ সহ আটক খতিউল্লাহ্ ওরফে খতিব পূঞ্জিভূত ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে জিলবাংলা চিনিকল ধংসের দ্বারপ্রান্তে হোটেল থেকে পাঁচ যুবতীসহ ১৪ জন ধরা গোসলের ভিডিও প্রকাশের ভয় দেখিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ মন্ত্রণালয় থেকে বরাদ্দ পাওয়া গাড়ি কেনার টাকা দিয়ে মসজিদ বানালেন মেয়র! দিহান জানায়, সম্মতিতেই শারীরিক সম্পর্ক হয় মেডিকেলের ছাত্রীকে একরাতের জন্য ডেকেছিলেন অভিনেতা অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় নিজের সৎ ছেলেকেই বিয়ে করলেন এই মহিলা! আরেকজন মুসলিমকে মন্ত্রী করে সম্মানিত করলেন জাস্টিন ট্রুডো ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে সন্তানদের সামনে মাকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ফুলবাড়ীতে জমিজমা নিয়ে সংঘর্ষে ১ যুবকের মৃত্যু 

আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হলো আ.লীগ মেয়র প্রার্থীর ৪ নির্বাচনী ক্যাম্প

বগুড়ার শেরপুর পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আবদুস ছাত্তারের চারটি নির্বাচনী ক্যাম্পে আগুন লাগিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার (৮ জানুয়ারি) রাতে এ ঘটনা ঘটে।

শনিবার (০৯ জানুয়ারি) সকালে ওই সব নির্বাচনী কার্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় কাপড় দিয়ে ঘেরা এই কার্যালয়গুলোর অর্ধেক অংশ পুড়ে গেছে।

আগুন দেয়া চার কার্যালয় হলো- পৌর শহরের শিশুপার্ক মোড়, উত্তর সাহাপাড়ার কলাপট্টি, উপজেলা পরিষদ কার্যালয় সংলগ্ন নয়াপাড়া ও টাউন কলোনি।

পৌর শহরের শিশুপার্ক মোড় নির্বাচনী অফিস পরিচালনা করেন পীযূষ বসাক। তিনি জানান, শুক্রবার রাত তিনটা পর্যন্ত তারা দলীয় কর্মী নিয়ে বসেছিলেন। এরপর বাড়ি ফিরে যান। শনিবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে স্থানীয়দের মাধ্যমে তিনি জানতে পারেন যে তাদের নির্বাচনী কার্যালয়ে কে বা কারা আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে।

উত্তর সাহাপাড়াার কলাপট্টি এলাকার এই নির্বাচনী অফিসের সভাপতি যুগল চন্দ্র দাস। তিনি আরও জানান, তারা নির্বাচনী কার্যালয়ে রাত আড়াইটা পর্যন্ত ছিলেন। এরপর কর্মীরা যে যার মতো বাড়ি চলে যান। তাদের অফিসে কারা আগুন দিয়েছে, তারা জানেন না।

এদিকে নির্বাচনী কার্যালয়ে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার ঘটনায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা ক্ষুব্ধ। বেশ কয়েকজন নেতাকর্মীরা বলেন, আবদুস ছাত্তারের পক্ষে সাধারণ মানুষ নির্বাচনী প্রচারে নামছেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে প্রতিপক্ষের লোকজন গভীর রাতে তার নির্বাচনী কার্যালয়ে আগুন লাগিয়ে দিয়েছেন।

শেরপুর শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি মকবুল হোসেন বলেন, ৪ জানুয়ারি রাতে আবদুস ছাত্তারের নির্বাচনী প্রচারের মিছিলে প্রতিপক্ষের লোকজন হামলা চালিয়েছিল। এ নিয়ে শেরপুর থানায় অভিযোগ করা হয়েছে। এদিকে সকালে মেয়র পদপ্রার্থী আবদুস সাত্তার আগুনে পুড়ে যাওয়া কার্যালয়গুলো দেখতে যান। এ সময় শহর আওয়ামী লীগের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

শেরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোবিন্দ কুমার বাগচী বলেন, আগুনে পুুড়িয়ে দেওয়া অফিস এলাকাগুলো আওয়ামী লীগ অধ্যুষিত এলাকা হিসেবে পরিচিত। সাধারণ ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করতে আওয়ামী লীগের মেয়র পদে আবদুস ছাত্তারের অফিসে আগুন দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত ব্যক্তিদের দ্রুত আটকের দাবি জানান তিনি।

আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র পদপ্রার্থী আবদুস ছাত্তার বলেন, আগুন দিয়ে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করে আওয়ামী লীগের কর্মী সমর্থকদের দমিয়ে রাখা যাবে না। যারা তার নির্বাচনী কার্যালয়গুলোতে আগুন দিয়েছে, তারা কখনো শান্তিপ্রিয় মানুষ হতে পারে না।

শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনা জানার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় কোনো অভিয়োগ দেওয়া হয়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38142423
Users Today : 4263
Users Yesterday : 2500
Views Today : 12309
Who's Online : 56
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone