মঙ্গলবার, ১১ অগাস্ট ২০২০, ০৯:৩৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
বদলগাছী থানার মেধাবী-চৌকস পুলিশ অফিসার এস আই গৌরাঙ্গ মোহন রায় বদলগাছীতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাইদকে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠিত করে দিলেন উপজেলা প্রশাসন দিনাজপুরের বিরামপুরে কলেজ ছাত্রী  ধর্ষণে স্বীকার দুঃসাহসী ক্ষুদিরামের বলিদান যুব সম্প্রদায়ের কাছে চিরঅমর হয়ে আছে – মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন  আওয়ামী লীগে কোন্দল নাই আছে নেতৃত্বের প্রতিযোগীতা হঠাৎ স্বর্ণ-রুপার দাম কমতে শুরু করেছে অবৈধ স্থাপনা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দখলমুক্ত করার নির্দেশ সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর ‘ডাকাত’ বলে প্রচার করেছিল এরা এএসআইকে চড় মারার ঘটনায় সেই ওসি প্রত্যাহার আগস্টেই ২ আসনের নির্বাচন তফসিল ঘোষণা পাঠাওয়ের ফাহিমের খুনি হাসপিলের সঙ্গে ‘রহস্যময়’ তরুণী (ভিডিও) মেজর সিনহা হত্যায় আরও ৩ জন গ্রেফতার টানা ৭ ঘণ্টা বৃষ্টিতে ভিজে মানুষের জীবন বাঁচালেন এক নারী লেবানন সরকারের পদত্যাগ পত্র গ্রহন করেছেন প্রেসিডেন্ট আউন পুলিশের চাকরি ছিল ওসি প্রদীপের কাছে ‘আলাদিনের চেরাগ’

আত্রাইয়ে স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তা সংস্কার করলো মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা

নাজমুল হক নাহিদ, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি : নওগাঁর আত্রাইয়ে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা স্বেচ্ছাশ্রমে সংস্কার করছে অতি বর্ষণে বিধ্বস্ত রাস্তা। গত কয়েক দিন থেকে অবিরাম বর্ষণে উপজেলা সদরের নিকটে সাহেগঞ্জ জনতা ব্যাংক থেকে শিবপুরের রাস্তাটি ভেঙে যায়। এ রাস্তা ভেঙে যাবার ফলে হাজার হাজার লোক চলাচলে চরম দুর্ভোগের শিকার হন। জনতা ব্যাংক থেকে শিবপুরের রাস্তাটি একটি জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তা।
এখানে আত্রাই মদীনাতুল উলুম মাদ্রাসা নামে একটি বৃহত কওমী মাদ্রাসা রয়েছে। এ ছাড়াও সেখানে একটি কেজি স্কুল কাম মাদ্রাসা, একটি কেন্দ্রীয় গোরস্থান ও কলকাকলী মডেল স্কুল এ্যান্ড কলেজ নামে একটি বড় প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ছাড়াও শিবপুর গ্রামসহ এলাকার হাজার হাজার লোকজনের চলাচলের একমাত্র রাস্তাটি অতি বর্ষণে ভেঙে যাওয়ায় চলাচলে তারা চরম দুর্ভোগের শিকার হন। উপজেলা সদরের একেবারে নিকটবর্তী হলেও এ রাস্তাটি যুগ যুগ থেকে পাকা করণ না হওয়ায় প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে জনসাধারণকে দুর্ভোগ পোহাতে হয়। এবারেও কয়েক দিনের লাগাতার অতি বর্ষণের ফলে রাস্তাটি ভেঙে যায়। মাদ্রাসা শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসীর চলাচল নিশ্চিত করতে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তাটি নির্মান করে।
আত্রাই শহীদ মনোয়ার নূরানী স্কুল এ্যান্ড মাদ্রাসার শিক্ষক ক্বারী মো. জাকির হোসেন বলেন, যুগ যুগ থেকে আমরা অবহেলিত। উপজেলা সদরের খুব কাছের মহল্লা হলেও স্বাধীনতার পর থেকে পাকা রাস্তা নির্মিত হয়নি। ফলে প্রায় প্রতি বছরেই বর্ষা মৌসুমে আমাদের এ রাস্তা ভেঙে যায়। রাস্তাটি ভেঙে যাওয়ায় আমাদের প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের চলাচল কুবই কষ্টকর হয়। শিবপুর গ্রামের আব্দুল করিম বলেন, এ রাস্তা দিয়ে যেহেতু শক্ষার্থী এবং আমাদের গ্রামসহ বেশ কয়েক গ্রামের লোকজন চলাচল করেন। তাই বৃহত্তর জনস্বার্থে রাস্তাটি পাকা করা খুবই প্রয়োজন। #

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone