মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:০৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মাস্ক বাধ্যতামূলক অ্যাকশনে যাচ্ছে সরকার ১০ কোটি টাকার ক্ষতি গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রাণিসম্পদমন্ত্রীর মায়ের ইন্তেকাল করোনায় দেশে মৃত্যু ৫ হাজার ছাড়াল, শনাক্ত সাড়ে ৩ লাখ ফের লকডাউনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানালেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব কারা ডিআইজি বজলুর সম্পতি ক্রোক ও ব্যাংক হিসাব জব্দ ডা. সাবরীনার জামিন নামঞ্জুর ইতালিয়ান ওপেনের ফাইনালে নোভাক জোকোভিচ নতুন চমক নিয়ে আইপিএলে ডি ভিলিয়ার্স বিশ্বকাপে ক্রোয়েশিয়াকে ফাইনালে তোলা রাকেটিচের বিদায় ইব্রাহিমোভিচের জোড়া গোলে এসি মিলানের জয় বিশ্বে আসছে ভয়ংকর দুর্ভিক্ষ, ৩ কোটি মানুষের মৃত্যু হবে! বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩ কোটি ৯ লাখের বেশি রাখাইনে ফের অভিযান, রোহিঙ্গা ঢলের শঙ্কা! নিউইয়র্ক পুলিশেই ছিল চীনা গুপ্তচর!

আ.লীগের ঢাকা মহানগর কমিটিতে পদ পাচ্ছেন না কাউন্সিলররা

আওয়ামী লীগের ঢাকা মহানগরের দুই কমিটিতে এবার কাউন্সিলরদের কোনো পদে রাখা হচ্ছে না। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশেই তা করা হচ্ছে বলে জানান মহানগর নেতারা।

তবে কাউন্সিলররা ওয়ার্ড ও থানা পর্যায়ের কমিটিতে থাকতে পারবেন। ওয়ার্ডগুলোর নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতেই এই সিদ্ধান্ত বলেও জানান মহানগরের নেতারা। তবে কাউন্সিলররা এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছেন।

গেল ৩০শে নভেম্বর ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের পর নতুন নেতৃত্ব হাত দেয় পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের কাজে। প্রধানমন্ত্রী মহানগর কমিটিতে ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের না রাখার নির্দেশ দিয়েছেন তাদের। একই সাথে যারা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছিলেন তাদেরও বাদ রাখতে বলা হয়েছে।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি বজলুর রহমান বলেন, “কাউন্সিলরদের ব্যাপারে দাবি ছিল তারা যেন এলাকায় কাজ করতে পারেন, তাদের ভাইটাল পদ না দিয়ে সম্মানজনক পদ দেয়া। তারা থানা এবং ওয়ার্ডের মধ্যেই থাকবেন। কারো যদি মহানগরে আসার যোগ্যতা থাকে আর নেত্রী যদি মনে করেন তাকে পদ দিলে ভাল হবে তাহলে একমাত্র নেত্রীর এখতিয়ার আছে তাকে সেখানে দেয়ার।”

কাউন্সিলররা বলছেন, তারা দীর্ঘদিন ধরে রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। তাই যোগ্যদের মহানগর কমিটিতে না রাখা যৌক্তিক নয়। যদিও নেতারা বলছেন, ক্ষমতার ভারসাম্য রাখতেই এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি বলেন, “এই কমিটিতে কাউন্সিলর বা অন্যান্য জনপ্রতিনিধি কে কোথায় থাকবেন এর সিদ্ধান্ত নেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লিগ। আমাদের সিদ্ধান্ত নেয়ার এখতিয়ার নেই।”

মঙ্গলবার দলীয় সভাপতির কার্যালয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি জমা দেয়ার শেষ সময়।

Please Share This Post in Your Social Media

৩৮

৫৫

গান 

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37473550
Users Today : 6981
Users Yesterday : 4678
Views Today : 16457
Who's Online : 20
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone