সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৩:১২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বাংলাদেশি শিক্ষকদের আমেরিকান ফেলোশিপের আবেদন চলছে ঘরের কোন জিনিস কতদিন পরপর পরিষ্কার করা জরুরি কিশোরকে গাছে বেঁধে নির্মম নির্যাতন, পায়ুপথে মাছ ঢুকানোর চেষ্টা পদ্মায় ভেসে উঠল শিশুর মরদেহ ভাইকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল বোনের ৭ দিনের সাধারণ ছুটির ঘোষণা আসতে পারে টার্গেট রমজান মাস তৎপর হয়ে উঠেছে ‘ভিক্ষুক চক্র’ মামুনুলের দ্বিতীয় স্ত্রীর ঘরে মিলেছে ৩ ডায়েরি এই ফলগুলো খেয়েই দেখুন! বাস নেই-লঞ্চ নেই, বাড়িতে যাওয়াও থেমে নেই কঠোর লকডাউনেও খোলা থাকবে শিল্প-কারখানা গৃহকর্মীসহ ৯জন করোনায় আক্রান্ত, খালেদার জন্য কেবিন বুকিং বাংলাদেশে করোনা মৃত্যুতে আজও রেকর্ড, বেড়েছে শনাক্ত ২০ এপ্রিল পর্যন্ত ফ্লাইট বন্ধ সাধারণ ছুটির ঘোষণা আসছে

ইসলামপুরে ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে আত্মসাতের অভিযোগ

লিয়াকত হোসাইন লায়ন,জামালপুর প্রতিনিধি : জামালপুরের ইসলামপুরে ভূয়া ঠিকাদার বানিয়ে ৬ লক্ষ১৪ হাজার ৭৩০ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ইউনিয়ন পরিষদের মহিলা সদস্য স্থানীয় সরকার উপ- পরিচালক বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন । ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার নোয়ারপাড়া ইউনিয়নে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত ২০১৮-২০১৯ইং অর্থ বছরের এলজিএসপি-৩ প্রকল্পের আওতায় উপজেলার নোয়ারপাড়া ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডে ৮ লক্ষ ৪৮ হাজার ৭৩০ টাকার ২টি প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া উপজেলা বিজিসিসি সভায়। যার মধ্যে অসহায় পরিবারের মাঝে নলকূপ স্থাপন বাবদ ৬ লক্ষ ৫৫ হাজার টাকা ও আহালুর বাড়ি থেকে মিজানুর রহমানের রাড়ি পর্যন্ত রাস্তায় মাটি ভরাট বাবদ ১ লক্ষ ৯৩ হাজার ৭৩০ টাকা।
অভিযোগকারী সংরক্ষিত মহিলা সদস্য নাজমা বেগম জানান, ইউপি সচিব উমর ফারুকের কথায় আমি একটি দোকান থেকে ৪৭ টি টিউবওয়েল ক্রয় করি এবং দুঃস্থ পরিবারের মাঝে বিতরণ করি। অপরদিকে আহালুর বাড়ি থেকে মিজানুর রহমানের রাড়ি পর্যন্ত রাস্তায় মাটি ভরাটসহ দুটি প্রকল্পে মোট ৭ লক্ষ ৯৩ হাজার ৭৩০টাকা ব্যয় করে প্রকল্প দুটির কাজটি সম্পন্ন করি। কাজ চলমান অবস্থায় আমাকে ৫০ হাজার চেক ও টিউবওয়েল বিতরনের সময় ১ এক লক্ষ ৮৪ হাজার টাকা দেয়। বাকী টাকা পরিশোধ না করে বিভিন্ন কারসাজির মাধ্যমে এলজিএসপি’র অর্থ হাফিজুর রহমানের নামে বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক মাহমুদপুর বাজার শাখার হিসাব নং ০০২২০০০৮৫৬ এর ব্যবহার করে ১০ লক্ষ ১৪ হাজার ৪৬২ টাকা উত্তোলন করে ইউপি সচিব উমর ফারুকের নিকট রাখেন। বাকী ৬ লক্ষ ১৪ হাজার ৭৩০ টাকা চাইলে বিভিন্ন রকমের তালবাহানা করে আসছে।
ইউপি সচিব উমর ফারুকের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি অস্বীকার করেন। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এস এম মাজহারুল ইসলাম জানান, বিষয়টি আমি অবগত নই,তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38442080
Users Today : 291
Users Yesterday : 1265
Views Today : 2263
Who's Online : 32
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone