সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৮:৪৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সন্তান কোলে নিয়েই দায়িত্ব সামলাচ্ছেন নারী ট্রাফিক পুলিশ স্ত্রীসহ করোনায় আক্রান্ত সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট আসাদ মিয়ানমারে রাস্তায় হাজারো হাজার লোকের বিক্ষোভ স্কুল শিক্ষককে বিয়ে করলেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী নারী প্রতারণার মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন আবেদন নামঞ্জুর চট্টগ্রামে প্রবাসী হত্যায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড সামাজিক মাধ্যমে কুরুচিপূর্ণ লেখা সতর্ক করলেন প্রধান বিচারপতি নিবন্ধনধারীদের এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগের নির্দেশ ১৫ দিনের মধ্যে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধনধারীদের নিয়োগ যৌন নির্যাতন ও ধর্ষণের শিকার নারীর ছবি প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা ‘মন্ত্রী হওয়ার পরও যোগ্যতার প্রশ্ন শুনতে হয়েছে বারবার’ বাংলাদেশে সন্তান জন্মদানের ক্ষেত্রে ‘পুত্র সন্তান কামনা’ দিন দিন কমছে কুড়িগ্রামের চিলমারীর রমনা ঘাটে ২ চাঁদাবাজকে পুলিশ আটক করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে দিনাজপুর বিরামপুরে আন্তর্জাতিক নারী দিবস উৎযাপন রাজারহাটে আন্তজার্তিক নারী দিবস পালিত

উলিপুরে মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের উপর হামলা চারজনকে কুপিয়ে জখম

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা ঃ
কুড়িগ্রামের উলিপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের উপর হামলা চালিয়েছে প্রতিপক্ষ। হামলায় ওই পরিবারের চারজন সদস্য গুরুত্বর আহত হয়েছেন। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এদের মধ্যে গুরুত্বর আহত একজনের অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য রোববার (১৫ ডিসেম্বর) রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন বাদী হয়ে উলিপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
এজাহার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পান্ডুল ইউনিয়নের আপুয়ারখাতা গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেনের সাথে প্রতিবেশি মোকছেদুল হক গং এর দীর্ঘদিন থেকে পারিবারিক বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) প্রতিপক্ষ ওই মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের সদস্যদের বাড়ি থেকে বের হওয়ার রাস্তায় বাঁধা সৃষ্টি করলে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এরই এক পর্যায়ে মোকছেদুল হকসহ তার পক্ষীয় আকবর আলী (৪৫), আনাম মিয়া (২৩), রাকিব (২৫)সহ অজ্ঞাত নামা পুরুষ-মহিলা একত্রিত হয়ে ওই মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় বাড়িতে থাকা মুক্তিযোদ্ধার সন্তান রেজাউল করিম (২৭), বড় ভাই লিয়াকত আলী (৪৫), স্ত্রী সাজেদা বেগম (৩৫) ও তার পুত্র শামীম (২২) বাধা দিতে গেলে তাদের মারপিট করে। এক পর্যায়ে প্রতিপক্ষের লোকজনের হাতে থাকা কুড়াল ও ছোড়া দিয়ে মুক্তিযোদ্ধার পরিবারের ওই চার জনের মাথায় ও হাতে এলোপাথারী কোপ মেরে গুরুত্বর জখম করে। পরে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। এ ঘটনায় ওই মুক্তিযোদ্ধা বাদী হয়ে ঘটনার পরদিন শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) উলিপুর থানায় নামিয় ৭জন ও অজ্ঞাতনামা ৫-৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন জানান, এখন পর্যন্ত থানা পুলিশ আসামীদের গ্রেপ্তার করেনি। আসামীদের গ্রেপ্তারে থানা পুলিশের কোন তৎপরতা না থাকায় তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. ফকরুল ইসলাম জানান, আহতদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এদের মধ্যে মাথায় গুরুত্বর আঘাতপ্রাপ্ত শামীমকে রোববার উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
উলিপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, আসামীদের গ্রেপ্তার করার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38372672
Users Today : 4294
Users Yesterday : 2978
Views Today : 13112
Who's Online : 43
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/