মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০৪:৪২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
নোয়াখালী সুবর্ণচরের বিএনপি নেতা এনায়েত উল্লাহ বি কম এর ইন্তেকাল নওগাঁর মহাদেবপুরে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের গণকবর প্রাচীর দিয়ে সংরক্ষণের দাবি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের শিক্ষা জাতীয় করন নিয়ে মনের কষ্ট ফেসবুকের মাধ্যমে ব্যক্ত করলেন অধ্যক্ষ এস এম তাইজুল ইসলাম কুলিয়ারচরে দিনব্যাপী ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন ২৫ ও ২৬ মার্চ হত্যাকাণ্ড চালিয়েছিল জিয়া মমতাকে ছেড়ে আসা মিঠুন এখন মোদির দলে সন্তান কোলে নিয়েই দায়িত্ব সামলাচ্ছেন নারী ট্রাফিক পুলিশ স্ত্রীসহ করোনায় আক্রান্ত সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট আসাদ মিয়ানমারে রাস্তায় হাজারো হাজার লোকের বিক্ষোভ স্কুল শিক্ষককে বিয়ে করলেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী নারী প্রতারণার মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন আবেদন নামঞ্জুর চট্টগ্রামে প্রবাসী হত্যায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড সামাজিক মাধ্যমে কুরুচিপূর্ণ লেখা সতর্ক করলেন প্রধান বিচারপতি নিবন্ধনধারীদের এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগের নির্দেশ ১৫ দিনের মধ্যে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধনধারীদের নিয়োগ

উলিপুরে স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ 

হাফিজ সেলিম ।।
কুড়িগ্রামের উলিপুরে স্বামীর বিরুদ্ধে দ্বিতীয় স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। পিতার হ আলী ও পুত্র রফিকুল ইসলাম রফিক (৩৫) বেগনা বেগমকে প্রায় সময় নির্যাতন করত।
ঘটনার দিন ১০ জানুয়ারী রাতে শীত নিবারনের জন্য বেগনা বেগম বাড়ির আঙ্গিনায় আগুন পোহানোর সময় সৎ পুত্র রফিক তাকে পিছন থেকে জাপটিয়ে ধরলে স্বামী ইউনুছ আলী তার শরীরে আগুন লাগিয়ে দিয়ে পালিয়ে যান। পরদিন খবর পেয়ে বেগনা বেগমের প্রথম পক্ষের মেয়ে নুরজাহান সৎ পিতার বাড়িতে এসে মাকে মুমূর্ষ অবস্থায় দেখতে পান। এ সময় তিনি স্বজনদের সহযোগিতায় মাকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে বেগনা বেগমের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
সেখানেও তার শারীরিক অবস্থা সংকটাপন্ন হলে চিকিৎসক ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব বার্ণ এন্ড প্লাষ্টিক সার্জারী ইউনিট ঢাকায় রেফার্ড করেন। ঢাকায় নেয়ার পূর্বে ১৬ জানুয়ারী রাতে বেগনা বেগম মৃতুবরণ করেন। এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে সৎ পিতা ও সৎ ভাইয়ের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন। পুলিশ ১৭ জানুয়ারী লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। পরে ওই দিন সন্ধ্যায় বেগনা বেগমের মরদেহ পিতার বাড়ি বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের ফকির মোহাম্মদ ন্যালর গ্রামে দাফন করা হয়।
উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইমতিয়াজ কবির মামলা হওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ঘটনাটি নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য রয়েছে। তদন্তে প্রকৃত ঘটনা বেড়িয়ে আসবে। #

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38374106
Users Today : 826
Users Yesterday : 4902
Views Today : 2925
Who's Online : 26
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/