শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১২:৫৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
মেয়ের খোঁজ নিতেন না তামিমা শাহবাগে লেখক মুশতাকের গায়েবানা জানাজা, জুতা মিছিল বনানীতে বিএনপির মশাল মিছিলে পুলিশের হামলার অভিযোগ অন্যের বিশ্বাসের প্রতি আঘাত করে লিখতেন মুশতাক: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রতি সোম ও বৃহস্পতিবার চলবে ঢাকা-নিউ জলপাইগুড়ি ট্রেন আতিকের প্রতারণার তথ্য পেল পুলিশ! কৃষকনেতা বি এম সোলায়মান মাষ্টার এর ৮ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত গাবতলীর কাগইলে ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প অনুষ্ঠিত গাবতলীর কাগইল করুণা কান্ত স্মৃতি ফুটবল টুনামেন্ট উদ্বোধন গাইবান্ধায় আটক ঘড়িয়ালটি যমুনা নদীতে অবমুক্ত সাঁথিয়ার একমাত্র মহিলা বীর মুক্তিযোদ্ধা ভানু নেছা আর নেই বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশন এর সাধারণ সভা ও জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত শেখ হাসিনা সরকার ক্ষতায় থাকলে অদুর ভবিষ্যতে দেশে অনুদান নেয়ার লোক থাকবেনা ……………………খাদ্য মন্ত্রী বরিশালে মহাসড়কের পাশে গড়ে উঠছে অবৈধ স্থাপণা জেলে মুশতাকের মৃত্যুর দায় সরকারের : মোমিন মেহেদী

এইচ.এস.সি পরীক্ষা ২০১৯ ভূঞাপুরে শিক্ষকের বিরুদ্ধে পাশ এনে দেয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

 

মোঃ নাসির উদ্দিন, ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ ভূঞাপুরে শিক্ষকের বিরুদ্ধে পরীক্ষায় পাশ এনে দেয়ার নামে লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। সম্প্রতি এইচ এস সি পরীক্ষার ফল প্রকাশের পর টাকা দেয়ার অভিযোগ করেন ছাত্র-ছাত্রীরা।

জানা যায়, ২০১৯ সালের এইচএসসি পরীক্ষার সময় হলে কর্মরত ছিলেন লোকমান ফকির মহিলা ডিগ্রি কলেজের অনার্স অথনীতির বিভাগের শিক্ষক শামীম কবির। ওই সময় ইব্রাহীম খাঁ সরকারি কলেজসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষা কেমন হয়েছে জানার অজুহাতে টাকার বিনিময়ে পাশ এনে দিবে বলে জানান। পরবর্তীতে বেশ কিছু ছাত্র-ছাত্রী তার কথামতে প্রতি বিষয়ে ৪ হাজার টাকা দেন। কিন্তু ফল প্রকাশে তাদের ফলাফল প্রত্যাশিত না হওয়ায় টাকা ফেরৎ চান তারা। টাকা ফেরৎ দিতে টানবাহানা করলে গত ১৪ সেপ্টেম্বর লোকমান ফকির মহিলা কলেজ অধ্যক্ষ বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন ৯ ছাত্র । অভিযোগে জানায়, গত ২০১৯ সালে এইচ এস সি পরীক্ষার ভূঞাপুর সরকারি ইবরাহীম খাঁ কলেজ কেন্দ্রে অপেক্ষাকৃত দুর্বল ছাত্র-ছাত্রীদের খুঁজে বের করে কোন বিষয়ে খারাপ হয়েছে তা জানতে চান। তাদেরকে বোর্ড থেকে পাশ এনে দেয়ার নাম করে বিষয় প্রতি ৪ হাজার টাকা করে নেয়। কিন্তু ফল প্রকাশের পর কাঙ্খিত ফল না আসায় টাকা ফেরৎ চান তারা।

শিক্ষক শামীম কবির ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ওদের কাছ থেকে কিছু টাকা নিয়ে যাকে দিয়ে ছিলাম সে কাজ করে নাই টাকাও ফেরৎ দেয় নাই। আগামী মাসেই ওদের টাকা দিয়ে দিবো। তিনি আরো জানান, কলেজ কর্তৃপক্ষ নিয়োগ দিয়েছে কিন্তু এমপিও দেয়ার কথা সরকারের। এমপিও না হওয়ার কারণে আমরা বেতন পাই না। কাজেই আমরা বউ বাচ্চা নিয়ে চলি কেমনে ?

লোকমান ফকির মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ হাসান আলী বলেন, অভিযোগপত্র পেয়েছি কলেজ গর্ভনিং বডির মিটিংয়ে আলোচনা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38330319
Users Today : 422
Users Yesterday : 6494
Views Today : 823
Who's Online : 41
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/