রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১০:৩০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
দেশীয় প্রযুক্তির মাধ্যমে যেভাবে জমজ বাছুর জন্ম দেবে গাভী অ্যাটর্নি জেনারেল হয়েও বেতন নিতেন না রফিক-উল হক সাংবাদিক পীর হাবিবের বাসায় হামলার নিন্দা আমু-জি এম কাদেরের পদ্মা সেতুতে ৩৪তম স্প্যান বসবে রোববার ইসলামপুরে নোয়ারপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত আসাদুজ্জামান আসাদ সভাপতি রেজাউল করিম রেজা সম্পাদক ছাতকে বিশাল মোটরসাইকেল শোভাযাত্রার মাধ্যমে প্রার্থী হওয়ার জানান দিলেন তাপস চৌধুরী।।  দৌলতপুর, খয়েরবাড়ি ইউনিয়নে আবাদি জমি রক্ষার্থে ক্যানেল খননের শুভউদ্বোধন করলেন দিনাজপুরের জেলা প্রশাষক। পূজামণ্ডপে প্রশাসনের কড়া নিরাপত্তার সন্তুষ্টি প্রকাশ জামালপুরে বয়স্ক এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে‌ গ্রেফতার-১ ৫ দফা বন্যা, সোসা ইঁদুরের উপদ্রুপ এবং অজানা রোগে দিশেহারা পলাশবাড়ী উপজেলার কৃষকেরা ছাতকে পূজা মন্ডপ পরিদর্শনে পৌর মেয়র কালাম চৌধুরী  তানোরে খাস সম্পত্তির গাছ লুট রৌমারীতে ব্রহ্মপুত্র নদের খনন কাজের শুভ উদ্বোধন করেছেন- প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন দুর্গাপূজা উপলক্ষে বিরামপুর মন্দিরে চেক বিতরণ আন্ত:জেলা ট্রাক পরিবহন শ্রমিক শিবগঞ্জ শাখা কার্যালয় উদ্বোধন

এমপি রতন ও তার স্ত্রীর ব্যাংক হিসাব তলব

সুনামগঞ্জ-১ আসনের আওয়ামী লীগের দলীয় সংসদ সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন রতন ও তার স্ত্রী তানভী ঝুমুরের ব্যাংক হিসাব তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের (বিআইএফইউ) মহাব্যবস্থাপকের কাছে পাঠানো এক চিঠিতে তাদের ব্যাংক হিসাবের যাবতীয় নথিপত্র পাঠানোর অনুরোধ জানানো হয়েছে।

দুদকের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ নেয়ামুল আহসান গাজী স্বাক্ষরিত চিঠিতে মোয়াজ্জেম হোসেন রতন (জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর-৩২৭৯৬৮৩৬৭৬) ও তার স্ত্রী মাহমুদা হোসেন লতার (পরিচয়পত্র নম্বর-১৯৭৯৩২৭৯৬৭৫১১৪) নাম উল্লেখ করে তাদের যাবতীয় ব্যাংক হিসাবের তথ্য চাওয়া হয়েছে।

এর আগে গত ১৮ ফেব্রুয়ারি মোয়াজ্জেম হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদ করে দুদক। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তিনি দাবি করেন, ‘একটি পক্ষ রাজনৈতিকভাবে আমাকে হয়রানি করছে। আমি নিজেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলাম। আমি আওয়ামী লীগের ৩০টি অফিস করে দিয়েছি। আমার কোনো অবৈধ সম্পদ নেই।’

কানাডায় বাড়ি আছে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘আমার কোনো অবৈধ সম্পদ নেই। বিদেশে আমার কোনো বাড়ি নেই।’

অভিযোগ রয়েছে ঠিকাদার জিকে শামীমসহ বিভিন্ন প্রভাবশালীদের সঙ্গে সম্পৃক্ত থেকে অনিয়মের মাধ্যমে সরকারি অর্থ আত্মসাৎ, ক্যাসিনো ব্যবসা ও অন্যান্য অবৈধ কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে শত শত কোটি টাকা পাচার এবং জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন মোয়াজ্জেম হোসেন রতন।

এর আগে ২৪ অক্টোবর দুদক থেকে পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) ইমিগ্রেশন বরাবর পাঠানো চিঠিতে তার বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। ওই চিঠিতে দেশে মানিলন্ডারিংসহ বিদেশে অর্থপাচারের অভিযোগ এবং দুদকের অনুসন্ধানে বিষয়টির প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ার বিষয়ে বলা হয়।

২০১৯ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু হয়। এরপর ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে ক্যাসিনোসহ বিভিন্ন মাধ্যমে অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিষয়ে অনুসন্ধানে নামে দুদক। এখন পর্যন্ত ক্যাসিনোসহ বিভিন্ন মাধ্যমে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২১টি মামলা করেছে দুদক।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37664191
Users Today : 3668
Users Yesterday : 5971
Views Today : 9247
Who's Online : 80
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone