বুধবার, ১২ অগাস্ট ২০২০, ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
প্রাচীন কালের এই নিয়মগুলি মেনে চলুন, সেক্স লাইফ উপভোগ করুন ভালোবাসা কতটা প্রকাশ পাবে চুম্বনে গর্ভাবস্থায় যৌনমিলন? এই বিষয়গুলি অবশ্যই মাথায় রাখবেন পর্নোগ্রাফিতে নারীদের আগ্রহ বেশি শ্রমিক থেকে দুলাল ফরাজী ফ্যাক্টরীর মালিক  সুন্দরবনে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ শিকার ৯ জেলে আটক প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ভুমিহীনদের জমি দখলের চেষ্টা বন্ধের দাবিতে গাইবান্ধায় মানববন্ধন গাইবান্ধার ব্রহ্মপুত্র নদের ভাঙনে ১৫৫টি বসতবাড়ি নদীগর্ভে বিলীন গাইবান্ধায় করোনা আক্রান্ত -৭৪৬ সুস্থ্য -৪১৬ ,মৃত্যু- ১৩ পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উপলক্ষে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট দিনব্যাপী নানা কর্মসূচী পালন বাংলাদেশের সাবমেরিন ক্যাবল কুয়াকাটার দ্বিতীয় ল্যান্ডিং কাটার অপরাধে গ্রেফতার২। প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত “আবুল বারকাতের প্রতিবাদ ও প্রতিবেদকের বক্তব্য” সস্পর্কে আমার বক্তব্য প্রকাশ প্রসঙ্গে পতœীতলায় শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উৎসব পালিত বকশীগঞ্জে কিন্ডার গার্টেন শিক্ষকদের মানবেতর জীবনযাপন চাই রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন ও দুর্নীতি নির্মূল: টিআইবির আহŸান

ঔষুধ না খেয়ে ডাক্তার যেভাবে পুরুষের শক্তি বাড়ানোর পরমর্শ দেন।

প্রায়শই রোগীরা প্রশ্ন করেন ডাক্তার সাহেব ওষুধ ছাড়া কিভাবে শরীরের ক্ষমতা বাড়ানো যায়। ওষুধ সেবন করে শরীরের ক্ষমতা বাড়ালেতো ওষুধের ওপর নির্ভরতা তৈরী হয়। তখন ওষুধ ছাড়া শরীর আর চলতে চায়না। এটা একাবারে যথার্থ সত্য। আজকাল অনেক তরুণ বা নববিবাহিত পুরুষেরা শরীরের ক্ষমতা বাড়াতে ওষুধের ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ছে অতিমাত্রায়। ফলে অনেকের ক্ষেত্রে হিতে বিপরীত হচ্ছে। বাড়ছে দামপত্য কলহ। তাই কোন ধরনের সুনির্দিষ্ট কারণ ছাড়া শারীরিক শক্তি বাড়ানোর ওষুধ সেবন বাঞ্চনীয় নয়। তবে বয়স ৫০-এর কোঠা পার হলে নানা ধরনের ভিটামিন, খনিজ পদার্থ, ক্যালশিয়াম ইত্যাদি সেবনে বাধা নেই। তবে শারীরিক ক্ষমতা বাড়াতে উত্তেজক ওষুধ সেবন হিতকর নয়। তাই স্বাভাবিক ভাবে শরীর ফিট রাখার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম এবং খানিকটা আমিষ জাতীয় খাবার যেমন-মাছ, মাংস, ডিম আহার করা ভালো। পাশাপাশি দরকার পর্যাপ্ত ঘুম ও মানসিক চাপ রাখতে হবে নিয়ন্ত্রণে। এছাড়া পুষ্টি বিজ্ঞনীরা শরীরের শক্তি বাড়াতে ১০টি খাবারের প্রতি দৃষ্টি

দিতে বলেছেন। এগুলো হলোঃ ফাইবার সমৃদ্ধ ওয়াটমিল, ক্যাফেইন সমৃদ্ধ খাবার যেমন কফি, লেন্টিলস, প্রচুর পানি, কলা, আপেল, এমাইনো এসিড সমৃদ্ধ লিন বিফ, চিকেন, ডিম ও শেলফিস, চকলেট ইত্যাদি। বিশেষজ্ঞগণ দেখেছেন ওয়াটমিলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণ মানসিক চাপ কমানোর বি ভিটামিন। কফিতে রয়েছে ক্রাফেইন যা এডিনোসিন নামক এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ-কে নিয়ন্ত্রণ করে শরীরে অধিক শক্তি তৈরীতে সাহায্য করে। পানির নিজের কোন শক্তি না থাকলেও পানি ছাড়া শরীরে শক্তি তৈরী হয়না। তাই দিনে ৮/১০ গ্লাস পানি পান জরুরী। এছাড়া শরীরের শক্তি উৎপাদনের জন্য রাতে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস গরম দুধ পান করা ভালো। সুষম খাবার-দাবার, পরিমিত ব্যায়াম ও ঘুম এবং মানসিক চাপ কমানোর পরও যদি শরীরে কাংখিত শক্তি না পাওয়া যায় তবে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone