শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ০৮:১৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
আইএলও কনভেনশন-১৯০ অনুসমর্থন কর কাজের দুনিয়ায় সহিংসতা ও হয়রানী বন্ধ কর বসত ভিটা হারিয়ে খোলা আকশের নিচে ছিন্নমূল পরিবার নিষেধাজ্ঞা পৌঁছানোর ৫২ মিনিট আগে বেনাপোল দিয়ে ভারতে পালান পি কে হালদার নারী চালকদের কাজের সুযোগ তৈরিতে বেটার ফিউচার ফর উইমেন-উবার চুক্তি মুশতাক হত্যার বিচার চাই, সরকার পতন নয়-মোমিন মেহেদী বিবাহিত জীবন আরও ফিট রাখতে বিশেষ যে ৭ খাবার! সন্তান নিতে কতবার স’হবাস করতে হয় জানালেন ‘ডা. কাজী ফয়েজা’ বী’র্যপাত বন্ধ রে’খে অধিক সময় যৌ’ন মি’লন ক’রার সেরা প’দ্ধতি আশ্চর্য যে ফল খেলে আপনাকে মি’লনের আগে আর উ’ত্তেজক ট্যাবলেট খেতে হবে না সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেড়েছে নরমাল ডেলিভারীর সংখ্যা প্রত্যেকদিন সকালে সহবাস করলেই অবিশ্বাস্য উপকারিতা আত্রাইয়ে ইরি-বোরো ধান পরিচর্যায় ব্যস্ত কৃষক দেখুন এই ৫ রাশির মেয়েরাই স্ত্রী হিসাবে সবচেয়ে সেরা, বিস্তারিত যে কারণে নিকটাত্মীয় ভাই-বোনদের বিয়ে ঠিক নয়, জেনে রাখা দরকার সুন্দরগঞ্জে জনবল সংকটে স্বাস্থ্য সেবা বিঘিœত

কক্সবাজারে চলন্ত গাড়িতে চালকের মৃত্যু: কাঁন্নায় ভেঙ্গে পড়লেন যাত্রীরা

কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি :
মৃত্যু কখন কিভাবে কার দরজায় এসে কড়া নাড়ে, তা কেউ বলতে পারে না। সত্যিই তো কার কখন কি হয়ে যায়, কখন কোন দূর্ঘটনা ঘটে যায়, সেটা কেউ বলতে পারবে না। শুধু দূর্ঘটনাই নয়, যে কোন ঘটনাই কোন ভালো ঘটনায়ও হঠাত করেই মৃত্যু হতে পারে এবং কিছু কিছু ঘটনায় মৃত্যুর জন্যে কাউকেই দোষারুপ করাও যায় না।
হুট করে কারুর মৃত্যু, কোন দূর্ঘটনা, কোন কারুর প্রোমোশন ইত্যাদি আগে জানান দিয়ে আসে না। ধরুন আপনার অফিসে আপনার প্রমোশন হবে কোন একদিন, আপনি তো আর সেটা আগে থেকে জানবেন না, যদি না আপনাকে সব কিছু জানানো হয়।
রাস্তা পার হওয়ার সময় কোন গাড়ি এসে ধাক্কা মারবে, সেটা তো আর জানিয়ে হবে না। যদি না আপনি ইচ্ছে করে গাড়ি আসার মুহূর্তেই রাস্তা পার হন। কিন্তু মৃত্যু ? মৃত্যু কি ? ওই মুহূর্তে কি হয় ? তার পরই বা কি হয় ? এসব আমাদের অজানা, সুতরাং আমরা এরম কোন একটা ধারণা করতে পারিনা যে মৃত্যুও জানিয়েও আসে।
তেমনি এক ঘটনা ঘটেছে কক্সবাজারের ব্যস্ততম নগরী উখিয়ার কোটবাজারে। প্রতিদিনের মতই তিনি আজ গাড়ি নিয়ে বেরিয়েছিলেন, অর্ধশত যাত্রী নিয়ে কক্সবাজার থেকে যাত্রী নিয়ে টেকনাফের উর্দ্দেশে যাচ্ছিলেন কিন্তু হঠাৎ এমন এক ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে হবে সেটা কেউ কল্পনাতেও আনে নি।
এই ব্যাক্তির নাম জহির আহমদ, এক নামে সবাই জহির ড্রাইভার বলে ডাকেন। উখিয়া উপজেলার পালংখালীর বাসিন্দা জহির ড্রাইভার। কাজে বেরিয়েছিলেন অন্যান্য দিনের মতই। প্রায় ২৫ কিমি গাড়ি চালিয়ে সকাল ৯ টা নাগাদ যখন কোটবাজারে পৌঁছান তখনই তার হার্ট অ্যাটাক হয়।
যাত্রীদের নিরাপদে রেখে গাড়ি থামিয়ে স্টেয়ারিং ধরে বসে থাকতে থাকতেই হেলে পড়েন উনি। পাশেই যাত্রীরা সেটা খেয়াল করলে এমন পরিস্থিতিতে সবাই আতঙ্কিত হয়ে যান। চালকের এই অবস্থা দেখে  গাড়ির অর্ধশত যাত্রী কাঁন্নায় ভেঙ্গে পড়েন। তাৎক্ষনিক তাকে স্টেশনের লাগোয়া অরিজিন হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক চেকআপ করে মৃত ঘোষণা করেন।
কার মৃত্যু কখন হয় বলা মুশকিল, আল্লাহ্‌ যেন আমাদের সবাইকে হেফাজত করেন!

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38361221
Users Today : 2730
Users Yesterday : 5133
Views Today : 8208
Who's Online : 90
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/