মঙ্গলবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:১১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
৪২ ও ৪৩তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ মে’য়েরা প্রথমবার স’হবাসের জন্য কোন বি’ষয় গুলো গভীর ভাবে চিন্তা করে জেনে নিন বী’র্যপাত বন্ধ রে’খে বে’শী সময় যৌ’ন মি’লন ক’রার সেরা প’দ্ধতি বিবাহিত অথবা অবিবাহিত সকলের পড়া উচিৎ- এক করুণ কাহিনী দী’র্ঘ ২০ মি’নিটের ভি’ডিও ক্লি’পটি ছ’ড়িয়ে প’ড়ে’ছে হাসপাতালের ডাক্তার-নার্স এবং ক’র্মকর্তা-ক’র্মচারী’দে’র হাতে হাতে ফুলশ’য্যার রাতের গল্পটি পুরোটা প’ড়লে আপনার চোখের জল ধ’রে রা’খতে পা’রবেন না রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশি মুসলিমদের ভারত থেকে তাড়াবো : অমিত শাহ ‘বাবর আজম আমাকে দীর্ঘ ১০ বছর ধরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধ’র্ষ’ণ করছে’ ! শুধু ধ’র্ষণ নয়, কা’টাছেঁ’ড়া মৃ’তদে’হের সঙ্গে সেলফি তুলতো মুন্না ‘কানাডার বেগমপাড়ার সাহেবদের ধরার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী’ ইসলামে ভাস্কর্য ও মূর্তি উভয়ই নিষিদ্ধ: মুফতি ফয়জুল করীম প্রথম হা’নিমুনে গিয়ে প্রত্যেক পুরুষই ক’রেন যে ৫টি ভু’ল! যেভাবে ৫ মিনিটেই অনলাইনে পাবেন জমির আরএস খতিয়ান সরকারি চাকরিজীবীদের বেতন স্কেল, গ্রেডিং সিস্টেম ও অন্যান্য সুবিধাদির তালিকা আবর্জনার স্তূপ থেকে কুড়িয়ে পাওয়া মেয়েটি তার সবজি বিক্রেতা বাবার এত বড় প্রতিদান দিল

কনডম ব্যবহারের আগে যে ৫টি বিষয় মাথায় রাখবেন

অনিচ্ছাকৃত গর্ভধারণ থেকে দূরে থাকতে কনডম ব্যবহার খুবই জরুরি। তবে এর ব্যবহারের সঙ্গে অনেক বিষয় জড়িয়ে আছে, যা হয়তো আমরা জানি না। দোকান থেকে কনডম কেনা থেকে শুরু করে ব্যবহারের আগ পর্যন্ত কিছু বিষয় জেনে রাখা আবশ্যক। আসুন জেনে নেই সেসব বিষয় সম্পর্কে-

১. কনডম তৈরির উপাদান: কনডম অনেক উপাদান দিয়েই তৈরি হতে পারে। তবে প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে তৈরি কনডমের মেয়াদ খুব তাড়াতাড়িই শেষ হয়ে যায়। সিনথেটিক কোনো উপাদান দিয়ে কনডম তৈরি করা হলে তা বহুদিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যায়। আমরা সচরাচর যে কনডমগুলো ব্যবহার করি, সেগুলো তৈরি করা হয় মূলত রাবার দিয়ে। তার মধ্যে থাকে পলিইউরিথিন বা ভেড়ার চামড়া বা পলিসোপ্রিন। গবেষকরা বলছেন, অনেক ক্ষেত্রে সিনথেটিক কনডমের মেয়াদ ৫ বছর পর্যন্ত হতে পারে।

২. যে কনডম কিনবেন না: বাজারে অনেক ধরনের কনডম আছে, যেগুলো মূলত স্পার্মিসাইড ব্যবহার করে তৈরি করা হয়। সেগুলো কেনা ঠিক নয়। কারণ এ ধরনের কনডম বেশিদিন স্থায়ী হয় না। তাই দোকান বা ফার্মেসি থেকে কনডম কেনার আগে সেই বিষয় মাথায় রাখা উচিত।

৩. কনডমের মেয়াদ: ওষুধ থেকে শুরু করে অন্য চিকিৎসার কাজে ব্যবহৃত পণ্যগুলোর নির্দিষ্ট আছে। তেমনই কনডমেরও মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার বিষয় আছে। তাই কনডম কেনার সময় প্যাকেটটি ভালো করে খেয়াল করে দেখলেই জানা যাবে, এটার মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার তারিখ।

৪. যেখানে কনডম রাখবেন: কনডম ঘরের যেখানে-সেখানে রাখা মোটেই উচিত নয়। তবে ঘরের বিছানার পাশের টেবিল, ওয়ালেট, পকেট- এমন সব জায়গায় কনডম রাখা নিরাপদ। মনে রাখবেন, কনডম কখনো অতিরিক্ত গরম বা ঠান্ডা সহ্য করতে পারে না। তাই ফ্রিজ বা রোদ ঝলমল করা জায়গায় একদমই রাখবেন না। কারণ খুব কম সময়ই এটি নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

৫. মেয়াদোত্তীর্ণ কনডম নয়: কনডম মেয়াদোত্তীর্ণ হলেও অনেকে তা ব্যবহার করেন। এতে বড় ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। কারণ সময় যত যাবে, ততই দুর্বল হতে থাকবে কনডমের মেয়াদ। জীবনের গুরুত্বপূর্ণ এ সময়ে মেয়াদোত্তীর্ণ কনডম ছিঁড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি, যা হিতে বিপরীত হতে পারে। এ ব্যাপারে খুবই সতর্ক থাকতে হবে।gonews24.com

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37884498
Users Today : 6803
Users Yesterday : 0
Views Today : 17185
Who's Online : 168
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone