রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৭:০০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
রাজধানীর দুই এলাকায় করোনার সর্বাধিক সংক্রমণ গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শেষ হচ্ছে ১৫ এপ্রিল রামগতিতে ট্রাক্টরচাপায় শিশুর মৃত্যু সন্ধ্যা ৬টার পর ফার্মেসি-কাঁচাবাজার ছাড়া সব দোকান বন্ধ বিয়েবাড়িতে মেয়েদের নাচানাচির ছবি তোলা নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৩০ পাঁচ উপায়ে দূর করুন বিরক্তিকর ব্রণ ডালিমের ১০ আশ্চর্য গুণ যুক্তরাষ্ট্র প্রতিবছরে একশত বিলিয়ন মার্কিন ডলারের জলবায়ু তহবিল করবে বাসাভাড়া নিতে বাড়িওয়ালাকে নকল স্বামী দেখালেন প্রভা! প্রথম দিনেই ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ‘মহব্বত’ সংকটে করোনা রোগীরা হাসপাতালগুলোতে ঘুরেও মিলছে না শয্যা অরাজকতা সৃষ্টির চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা ব্রিটেনের রানি ও প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার চিঠি টিকা প্রতিরোধী ভয়ঙ্কর ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল হবে বাংলাদেশ! লকডাউনে পোশাক কারখানা বন্ধ কিনা, জানা যাবে কাল

করোনা মোকাবেলায় প্রয়োজন সমন্বিত প্রচেষ্টা

 

সিরাজুল ইসলাম কিসলু- প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস বিশ্বের ২১০টি দেশ ও অঞ্চলে ভয়াল থাবা বসিয়েছে তা থেকে আমরা বাংলাদেশের মানুষরাও নিরাপদ নই। রাজধানী শহর থেকে জেলা, জেলা থেকে উপজেলা, এমনকি গ্রাম পর্যায়ে ক্রমেই ছড়িয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে ৫৮টি জেলা সংক্রমিত হয়েছে। করোনার কারণে আমরা ভ‚ঞাপুরের মানুষরাও নিরাপদ নই। সচেতনতাবৃদ্ধিতে কাজ করছে সংসদ সদস্য,উপজেলা প্রশাসন, থানা পুলিশ, পৌরসভা, ফায়ার সার্ভিস, সশস্ত্রবাহিনী, রাজনৈতিক ব্যক্তি ও স্থানীয় সেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো। তবুও কোথায় যেন সমস্যা। আমরা ঘরে থাকছি না, কথা শুনছি না, মানছি না। রাতের আঁধারে বিকল্প পথে লোক আসছে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজীপুর থেকে। হাট-বাজারে অবাধে বিচরণ, চলছে অটো-ভ্যান, অলি গলিতে আড্ডা। উঠতি বয়সের ছেলেরা স্কুলের পাশে ও পুকুর পাড়ে জমায়েত হয়ে সিগারেট-বিড়ি খাচ্ছে, করছে সবই।

এবার আসা যাক ত্রাণের বিষয়ে। সংসদ সদস্য, উপজেলা প্রশাসন, এনজিও, সেচ্ছাসেবী সংগঠন সকলেই ত্রাণ দিচ্ছে। তবুও ত্রাণের জন্য হাহাকার। এখানে এটুকু বলতে চাই যারাই ত্রাণ দিচ্ছেন বা যাদেরকে দিচ্ছেন তাদের নাম, এলাকার নামসহ তালিকা প্রশাসনের কাছে দিলে একই ব্যক্তি বার বার ত্রাণ পেতো না। সরকার বা প্রশাসন সর্বাত্বক চেস্টা করে যাচ্ছে এই যুদ্ধ মোকাবেলা করবার। লোকজন ঘর থেকে বের হওয়া সীমিত রাখতে প্রশাসনের উদ্যোগে এজেন্সীর মাধ্যেমে হোম ডেলিভারির ব্যবস্থা করা যেতে পারে। ভ‚ঞাপুরের প্রবেশ পথে (শিয়ালকোল বা কাগমারী পাড়ায়) নিরাপত্তা চৌকি বসানোর ব্যবস্থা করা যেতে পারে। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বার ও চৌকিদারদের সমন্বয়ে গ্রামে টহলের ব্যবস্থা করা, যাতে করে বাইরে থেকে কেউ আসলে জানা যাবে এবং ত্রাণের দরকার থাকলেও বোঝা যাবে, মূল কথা কারো জ্বর বা শ্বাস কষ্ট হলেও খবর পাওয়া যাবে। ভ‚ঞাপুরে প্রবেশের ১২ থেকে ১৫ টি রাস্তা যদি আটকে দেয়া যায় আমরা কিছুটা হলেও রক্ষা পাবো। এরই মধ্যে চলছে চাল, তেল চুরি, জড়িত আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা। নানা স্থানে ঘটছে খুন, ধর্ষণ।

রমজান মাস চলছে, এখনি নিয়ন্ত্রণ করা না গেলে লোকজন ঘর থেকে বের হওয়া ঠেকানো যাবে না। ক্রমেই আমরা বিপর্যয়ের দিকে যাচ্ছি। আমরা সুন্দর আগামী দিনগুলো নষ্ট করতে চাই না। বাবা-মা, স্ত্রী-সন্তান, ভাই-বোন, কাউকে রাস্তায় ও বনে ফেলে রাখতে চাই না। যার যা সামর্থ আছে তা নিয়েই মানুষের পাশে দাঁড়াতে চাই। মহান আল্লাহ তা’লার কাছে প্রার্থনা এই বিপদ থেকে আমাদের রক্ষা করুন।

করোনাতে ডাক্তার, পুলিশ ও সংবাদকর্মীরা কম ঝুঁকিতে নেই। অথচ এখনো পর্যন্ত সংবাদকর্মীদের জন্য কোন প্রকার প্রণোদনার ব্যবস্থা করা হয়নি। সংসদ সদস্য মহোদয় আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন মানুষের ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দেয়ার। অসুস্থদের জন্য এ্যাম্বুলেন্স প্রস্তুত রেখেছেন, হটলাইন নাম্বার সচল রেখেছেন, নাম্বারে ফোন আসলেই ছাত্রলীগের ছেলেরা ছুঁটে যাচ্ছে খাবার নিয়ে ওই এলাকায়। নিজে গাড়ি চালিয়ে ছুঁটে চলেছেন ,মানুষের কাছে। পুলিশের তৎপরতা চোখে পড়ার মতো, মানুষকে সচেতন করার জন্য দিন-রাত কাজ করে যাচ্ছে। তারপরও অভিযোগ, সেক্ষেত্রে আমি বলব কিছুটা হলেও সমন্বয়ের ঘাটতি রয়েছে। আশা করছি এলাকার স্বার্থে সংসদ সদস্য, প্রশাসন, রাজনৈতিক ব্যক্তি, পুলিশ, সেচ্ছাসেবী একযোগে কাজ করবে। নিজেদের স্বার্থে, এলাকার স্বার্থে, দেশের স্বার্থে আমাদের সচেতন হতে হবে। আমরা দুর্ভিক্ষ, মহামারী কাটিয়েছি, প্রাণঘাতি করোনা যুদ্ধেও জয়ী হব ইনশাআল্লাহ।

সিরাজুল ইসলাম কিসলু,
গণমাধ্যমকর্মী, ভ‚ঞাপুর, টাঙ্গাইল।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38441039
Users Today : 515
Users Yesterday : 1570
Views Today : 4240
Who's Online : 20
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone