Home / তথ্য ও প্রযুক্তি / ‘করোনা সংকটে এখনো কিছু মানুষ সমালোচনায় ব্যস্ত’

‘করোনা সংকটে এখনো কিছু মানুষ সমালোচনায় ব্যস্ত’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বিএনপিকে ইঙ্গিত করে বলেছেন, দুঃখজনক হলেও সত্য এই সংকটকালে এখনো কিছু মানুষ ও দল শুধু সমালোচনায় ব্যস্ত।

শনিবার ঢাকা থেকে ভিডিও কনফারেন্সে চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে করোনা ইউনিট উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন তিনি।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, দুঃখজনক হলেও সত্য এই সংকটকালে এখনো কিছু মানুষ ও দল শুধু সমালোচনায় ব্যস্ত। তারা মানুষের সেবা করতে এগিয়ে আসেনি, শুধু সমালোচনায় ব্যস্ত। এজন্য দেশের জনগণ তাদের সঙ্গে নেই।

রোগী ফেরত দেয়া মানবতাবিরোধী উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আজ পত্রিকার মাধ্যমে জানতে পারলাম ‘স্ত্রীর সামনে স্বামীর মৃত্যু’। কয়েকটি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যাওয়ার পরেও তাকে ভর্তি করেনি। এগুলো অনাকাঙ্ক্ষিত। আমি মনে করি কোনো হাসপাতাল থেকে রোগীকে ফেরত দেয়া অমানবিক কাজ। যেসব হাসপাতাল করোনা চিকিৎসা দিচ্ছে, সেসব হাসপাতাল থেকে শিক্ষা নেয়া উচিত। যেসব হাসপাতাল রোগী ফেরত দিয়েছে, সরকার তা পর্যবেক্ষণ করছে। সময় মতো তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ সংকটকালে চিকিৎসক এবং নার্সরা সম্মুখযোদ্ধা উল্লেখ করে তিনি বলেন, কিছু চিকিৎসক ও নার্স রোগীদের সেবায় এগিয়ে আসতে চাচ্ছে না, এগুলো কোনোভাবেই সমুচিত নয়। মানুষকে সেবা দেয়ার জন্যই তারা চিকিৎসক হয়েছেন বা এ পেশায় এসেছেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা সংকটকালে একজন পুলিশও কিন্তু কর্মস্থল ত্যাগ করেননি। যখন একজন করোনা রোগী মারা যায় তখন অন্য কেউ না ধরলেও পুলিশ এগিয়ে আসছে।

তিনি আরো বলেন, সরকার যেসব হাসপাতালকে করোনা রোগী চিকিৎসা করার জন্য বলেছেন সেগুলোর মধ্যে অনেক হাসপাতালে এ সেবা চালু হয়েছে। আর দুই একটা বাকি থাকলেও সেগুলো চালু হয়ে যাবে। যেহেতু করোনা রোগী বাড়ছে তাই সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যেকোনো হাসপাতাল রোগী চিকিৎসা করতে পারবে। আজ মা ও শিশু হাসপাতাল তাদের নিজেদের উদ্যোগে এ সেবা চালু করেছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের এই সংকটকালে জাতীয় ঐক্য প্রয়োজন। এই ঐক্যের মাধ্যমে আমরা এ পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে পারব। সে ক্ষেত্রে আমি মনে করি মা ও শিশু হাসপাতাল এই কাজে এসে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করেছে।

সাংবাদিকরা অত্যন্ত সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন উল্লেখ করে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সাংবাদিকরা দুর্যোগের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে কাজ করছেন। শুধু চট্টগ্রামে আমরা দেখতে পেয়েছি কিছু সংবাদ মাধ্যম এমনভাবে সংবাদ প্রকাশ করেছে, যা মানুষের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করছে। এ সময় মানুষের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি করার প্রয়োজন নেই। মানুষের মাঝে যাতে আতঙ্ক সৃষ্টি না হয় সেগুলো প্রচার করা প্রয়োজন বলে জানান তথ্যমন্ত্রী।

নিউজটি লাইক দিন ও আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

About jahir

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

x

Check Also

সংসদে কাঁদলেন প্রধানমন্ত্রী

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লেখার খাতার কথা বলতে গিয়ে আবেগাপ্লুত ...