রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৫৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
শিক্ষকের বাসা থেকে গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার ঝর্ণার সন্ধান পাচ্ছেন না গোয়েন্দারা কঠোর লকডাউন: বন্ধ হতে পারে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীর বিয়ে দিলেন স্বামী ঝুঁকিপূর্ণ দৃশ্য করতে গিয়ে মরতে বসেছিলেন সজল-নওশাবা বাংলাদেশি ভেবে ভারতীয় যুবককে গুলি করলো বিএসএফ করোনায় সাভার মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রীর মৃত্যু আইপিএলে কোহলি-ধোনিরা ভালো খেললেই হবে ডোপ পরীক্ষা লাইফ সাপোর্টে সংগীত পরিচালক ফরিদ আহমেদ বরের উচ্চতা ৪০ ইঞ্চি কনের ৪২ সাংবাদিক সুমনকে নির্যাতনের ঘটনায় জড়িতদের ৩ দিনেও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ ! রাজারাহাটে  ইসলামিক রিলিফ বাংলাদেশের ত্রাণ বিতরণ নেত্রকোণায় শ্লীলতাহানির ঘটনায় জড়িত তিন অটোরিকশা চালক ক্রমাগত বাড়তে থাকা ভোজ্য তেলে কর প্রত্যাহার দেশের বরেণ্য ৪ তারকা আইসিইউতে

করোনা সংক্রমণের ৮৩ ভাগই ঢাকায়, কোন এলাকায় কতোজন

দেশে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত ৮ মার্চ প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। এরপর প্রথম দিকে কয়েকজন করে নতুন আক্রান্ত রোগীর খবর মিললেও এখন সারাদেশে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। ভয়ংকর এ ভাইরাসে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্তের ৮৩ দশমিক শূন্য ৭ ভাগই ঢাকার।

শনিবার দুপুরে করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

নাসিমা সুলতানা জানান, এখন পর্যন্ত ঢাকা বিভাগেই সর্বোচ্চ পরিমাণ করোনা শনাক্ত হয়েছে। ১ মে’র প্রতিবেদন অনুযায়ী, ঢাকা বিভাগে ৮৩ দশমিক শূন্য ৭ ভাগ, চট্টগ্রামে ৪ দশমিক ৬ ভাগ, সিলেটে ১ দশমিক ৫৭ ভাগ, রংপুরে ১ দশমিক ৮০ ভাগ, খুলনায় ২ দশমিক ২০ ভাগ, ময়মনসিংহে ৩ দশমিক ৭১ ভাগ, বরিশালে ১ দশমিক ৬৯ ভাগ এবং রাজশাহী বিভাগে ১ দশমিক ৫৩ ভাগ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

আইইডিসিআর এর তথ্য অনুযায়ী রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় আক্রান্তের সংখ্যা হলো- মিরপুর এলাকা ১৩৭, রাজারবাগ ১১৯, যাত্রাবাড়ী ৭৩, লালবাগ ৬৭, মোহাম্মদপুর ৬১, মহাখালী ৫৪, বংশাল ৪৯, কাকরাইল ৪৭, উত্তরা ৪৬, তেজগাঁও ৪৪, মুগদা ৪৩, মিটফোর্ড ৩৮, ধানমন্ডি ৩৭, ওয়ারী ৩৭, শাহবাগ ৩৬, মগবাজার ৩৫, চকবাজার ৩২, গেন্ডারিয়া ৩২, স্বামীবাগ ৩১, মালিবাগ ৩০, বাসাবো ২৮, শাঁখারীবাজার ২৮, হাজারীবাগ ২৭, পুরানা পল্টন ২৭, চানখারপুল ২৭, খিলগাঁও ২৬, গুলশান ২৪, বাড্ডা ২২, জুরাইন ২২, টোলারবাগ ১৯, আজিমপুর ১৮, রামপুরা ১৬, কামরাঙ্গীরচর ১৬, সূত্রাপুর ১৬, শান্তিনগর ১৪, টিকাটুলি ১৪, গ্রিন রোড ১২, শ্যামলী ১২, বাবু বাজার ১১, নারিন্দা ১১, আগারগাঁও ১১, গোপীবাগ ১১, লক্ষ্মীবাজার ১০, শাজাহানপুর ১০, কোতয়ালি ৯, ইস্কাটন ৯, বনানী ৯, নাখালপাড়া ৯, রমনা ৯, ডেমরা ৯, নাজিরাবাজার ৯, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা ৮, কাজীপাড়া ৮, আদাবর ৭, গুলিস্তান ৭, সবুজবাগ ৭, ক্যান্টনমেন্ট ৭, নয়াবাজার ৭, বারিধারা ৭, জিগাতলা ৬, শনির আখড়া ৬, কল্যাণপুর ৬, কলাবাগান ৬, শেরে বাংলানগর ৬, কদমতলী ৫, ফার্মগেট ৫, শান্তিবাগ ৫, বকশীবাজার ৫, কারওয়ান বাজার ৫, এলিফ্যান্ট রোড ৫, পোস্তগোলা ৫, বেইলি রোড ৪, সায়েদাবাদ ৪, রায়ের বাজার ৪, সিদ্ধেশ্বরী ৪, মাতুয়াইল ৪, তেজতুরী বাজার ৪, শেওড়াপাড়া ৪, মালিটোলা ৪, নবাবগঞ্জ ৪, নিমতলী ৪, সেগুনবাগিচা ৪, সোয়ারীঘাট ৩, পীরেরবাগ ৩, হাতিরপুল ৩, হাতিরঝিল ৩, গোড়ান ৩, খিলক্ষেত ৩, সদরঘাট ৩, গণকটুলি ৩, তাঁতীবাজার ৩, নীলক্ষেত ৩, সেন্ট্রাল রোড ২, ইসলামপুর ২, শাহ আলীবাগ ২, দয়াগঞ্জ ২, ধোলাইখাল ২, জেলগেট ২, আরমানিটোলা ২, কুড়িল ২, মতিঝিল ২, ভাটারা ২, রায়েরবাগ ২, বাংলামোটর ২, মানিকনগর ২, আমিনবাজার ২, আমলাপাড়া ২, কমলাপুর ২, ফকিরাপুল ২, ইব্রাহীমপুর ২, মাদারটেক ২, রাজা বাজার ২, ইসলামবাগ ২, মেরাদিয়া ২, তেজকুনীপাড়া ২, বসিলা ১, বুয়েট এলাকা ১, উর্দু রোড ১, নিকুঞ্জ ১, আশকোনা ১, মানিকদী ১, বেড়িবাঁধ ১, বেগুনবাড়ী ১, ঢাকেশ্বরী ১, নবাবপুর ১, বানিয়ানগর ১, শ্যামপুর ১, বেগমবাজার ১, ফরিদাবাদ ১, কচুক্ষেত ১, সায়েন্সল্যাব ১, শেখেরটেক ১, কলতাবাজার ১, মোহনপুর ১, গোলারটেক ১, কাঁঠালবাগান ১, বনশ্রী ১, তুরাগ ১, দনিয়া ১, করাতিটোলা ১, রসুলপুর ১, রূপগঞ্জ ১, আবদুল্লাহপুর ১, বিজয়নগর ১, দক্ষিণখান ১, মান্ডা ১ ও মণিপুর ১।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় (শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত) মোট ৫ হাজার ৮২৭টি নমুনা পরীক্ষা করে ৫৫২ জনের দেহে করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এতে দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৮ হাজার ৭৯০ জনে।

ডা. নাসিমা জানান, শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭৫ জনে। নতুন মারা যাওয়া পাঁচজনই ঢাকার। এদের মধ্যে তিনজন পুরুষ ও দুই জন নারী।

অপরদিকে আগে থেকেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন থাকা আরও ৩ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন জানিয়ে ডা. নাসিমা বলেন, এ নিয়ে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়া ১৭৭ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

জনস হপকিন্স ইউনিভার্সিটির সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্সেস অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (সিএসএসই) তথ্য অনুযায়ী, শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৩ লাখ ৫৯ হাজার ৫৫ জনে। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৩৮ হাজার ৯৯৯ জনের। আর ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ১০ লাখ ৫৯ হাজার ২৭৫ জন।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38441541
Users Today : 1017
Users Yesterday : 1570
Views Today : 11310
Who's Online : 41
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone