সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৫৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
নওগাঁর মহাদেবপুরে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী তালপাতার হাতপাখা বিলুপ্তির পথে বেগমগঞ্জে সন্ত্রাসী কালা বাবু গ্রেফতার, বাঁশ ঝাড় থেকে অস্ত্র উদ্ধার বসুরহাট কান্ড : ফের আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের জেরে ফের পাল্টাপাল্টি মামলা সোনাইমুড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক চাঁদাবাজির মামলায় কারাগারে। __ পুলিশের কাছে তিন বিয়ের কথা স্বীকার মামুনুলের আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলায় স্বামীর চোখ উৎপাটন তানোরে তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এক হাজার টাকার চাঁদাবাজি মামলা  ! লকডাউন আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর সুপারিশ লাইভে ক্ষমা চাইলেন নুর লন্ডনে তালা ভেঙে অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালের জামাতার লাশ উদ্ধার সোয়া কোটি মানুষের জন্য মোটে ২৬টি আইসিইউ বেড! বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয় ‘হাসপাতালে ভর্তির ৫ দিনের মধ্যে মারা যাচ্ছেন ৪৮ শতাংশ করোনা রোগী’ ‘নিজের মাথার ওপর নিজেই বোমা ফাটানো’ এটা সম্ভব? মামুনুলের মুক্তি চেয়ে খেলাফত মজলিস নেতাদের হুশিয়ারি

কাউন্সিলরদের অনাস্থা পাল্টা সাংবাদিক সম্মেলন ‘রাজাকারের নাতি’ রুকুনুজ্জামান রোকনকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার

মাসুদুর রহমান-
জামালপুরের সরিষাবাড়ী পৌরসভার মেয়র ‘রাজাকারের নাতি’ ও ‘বিএনপির ডোনার’ রুকুনুজ্জামান রোকনকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। সরিষাবাড়ী পৌরসভাকে বাঁচানোর লক্ষ্যে শুক্রবার দুপুরে  ১২ জন কাউন্সিলর একযোগে সাংবাদিক সম্মেলনে মেয়রকে অনাস্থা দেন।
তার কিছুক্ষণ পর মেয়র রুকন তার বাসায় পাল্টা সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে কান্নার অভিনয় করে আপত্তিকর নানা মন্তব্য করেন। এটা মেয়র নিজের ফেসবুক লাইভে প্রচার করলে এলাকায় বিভ্রান্তি ও তোলপাড় সৃষ্টি হয়। কাউন্সিলরদের অনাস্থা প্রস্তাবের দু’ঘণ্টার মাথায় শুক্রবার বিকেলে দলের জরুরি বৈঠকে দলীয় সিদ্ধান্তে তাকে বহিষ্কার করা হয়।
এদিকে রুকনের বিরুদ্ধে দলীয় সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সুধীমহল। একইসাথে মেয়র পদ থেকে তাকে অপসারণ, নানা অনিয়মের দায়ে তাকে গ্রেফতার ও তার ক্যাডারদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন তারা। সচেতনমহলের ধারণা, পাল্টা সাংবাদিক সম্মেলনে মেয়রের সাজানো নাটক ও তৈলবাজ লোকদের ফাঁদে পা দেয়াই তার জন্য কাল হয়ে দাঁড়ালো।
একাধিক সুত্রে জানা গেছে, সরিষাবাড়ী পৌর মেয়র রুকনের বিরুদ্ধে সাংবাদিক,কাউন্সীলর ও পৌর নাগরিকদের করা সরিষাবাড়ী থানায় প্রায় ২৫ টি সাধারন ডায়েরী রয়েছে । এ ছাড়াও বাংলাদেশ সাংবাদিক ঐক্য ফোরাম কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক ও মুভি বাংলা টিভির রিপোর্টার মাসুদুর রহমান গত ২৭ ফেব্রুয়ারী প্রধানমন্ত্রী বরাবর ও  ১০ মার্চ  মঙ্গলবার দুর্নীতি দমন কমিশন,স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব,উপ-সচিব (পৗর-২) ফারজানা মান্নান  বরাবর এ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ ও পৌরসভা সূত্রে জানা গেছে,একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে চিহ্নিত রাজাকারের নাতি ও বিএনপির ‘ডোনার’ খ্যাত রুকুনুজ্জামান রোকনআওয়ামী লীগের দলীয় প্রতীক নৌকার মনোনয়নে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে তিনি দলের মধ্যে বিশৃঙ্খলা ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে নানা কারণে আলোচনা-সমালোচনায় শীর্ষে রয়েছে। গুমনাটক, নারী কেলেঙ্কারী, টে-ারবাজি, কমিশন ও নিয়োগ বানিজ্য, প্রকাশ্য অস্ত্রের মহড়া ও সাংবাদিকদের হত্যার হুমকিসহ চার বছরে নানা কারণে বিতর্কিত হয়েছেন তিনি ।
২০১৬ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি দায়িত্বভার গ্রহণের পর গত দুটি অর্থবছরে সর্বোচ্চ রাজস্ব আদায় হলেও মেয়র রুকনুজ্জামান ভুয়া ভাউচারে ব্যক্তি, সংগঠন ও পরিচ্ছন্নতার নামে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন। হোল্ডিং টেক্স,পৌরসভা তহবিল হতে নামে বেনামে নানা খাতে ব্যয় দেখিয়ে আত্মসাৎ হচ্ছে কোটি কোটি টাকা।পৌর মেয়রের উপর পৌরসভা তহবিল, সরকারি বরাদ্দের টাকা, দরপত্র বিক্রির টাকা এবং ক্ষমতা পেয়ে সরকারি অর্থ উত্তলনের পর ঐগুলির উপযুক্ত পাওনাদারকে পরিশোধ না করেও ক্যাশ বহিতে বিতরণ দেখিয়ে আত্মসাত করে আসছেন।
২০১৫-১৬ অর্থবছরে এডিপির প্রায় এক কোটি টাকার দরপত্র আহ্বান না করেই কোটেশনের মাধ্যমে নামে-বেনামে প্রকল্প দেখিয়ে অর্থ আত্মসাৎ করেছেন। এডিবির প্রকল্প মেয়র নিজেই দেয় ও নিজেই বিল করে থাকেন। সরিষাবাড়ী পৌরসভায় যে সমস্ত টেন্ডার হয়েছে প্রত্যেকটি টেন্ডার থেকে ১৫% কমিশন মেয়র রুকন নিয়ে থাকে । পৌর বিধি লঙ্গন করে রাস্তার পাশে ৫ তলা অট্টালিকা নির্মাণ করেছেন রুকন। অন্যটি ৭ তলা অট্টালিকা রাস্তার পাশে বিধি বর্হিভুত ভাবে নির্মাণাধীন।  পৌরসভা বাউসি পপুলার এলাকায় রেলওয়ের ৫০ শতাংশ জমিতে ‘মেয়র পার্ক’ নামে দুই দফায় বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির ফান্ড থেকে প্রায় এক কোটি টাকা ব্যয় দেখানো হয়েছে।
অনুমতি ছাড়া পার্ক নির্মাণ করায় গত বছরের ১৪ সেপ্টেম্বর ৮৭নং স্মারকে সড়ক ও জনপথের (সওজ) উপবিভাগ-১, জামালপুর উপবিভাগীয় প্রকৌশলী পার্কের কাজ নির্মাণ কাজ বন্ধের জন্য মেয়রকে চিঠি দেন। এ চিঠির নির্দেশ অমান্য করে মেয়র পার্কের কাজ চলমান রাখেন এবং পুরো কাজ শেষ করার আগেই বরাদ্দের টাকা উত্তোলন করে নেন। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) এ প্রকল্পের ৭১ লাখ টাকার কাজ দরপত্র ছাড়াই শুধু কোটেশনের মাধ্যমে কাজ দিয়েছেন ঠিকাদারকে।
বরাদ্দকৃত অর্থ মেয়র ব্যক্তিগত লাভের জন্য টেন্ডার প্রক্রিয়া না করে কোটেশনের মাধ্যমে নামমাত্র ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের নাম ব্যবহার করে কাজ করছেন মেয়র নিজেই। ২০১৯ সালের ডেঙ্গু প্রতিরোধে মশক নিধনের জন্য ৮ লক্ষ টাকা স্খানীয় সরকার মন্ত্রণালয় থেকে বরাদ্দ করা হলে সরিষাবাড়ী মশক নিধনের কোন ব্যবস্থা না করেই একক ভাবে উক্ত টাকা মেয়র আত্মসাৎ করেন । শহরের অধিকাংশ রাস্তাঘাটে খানাখন্দ থাকলেও সেগুলোর উন্নয়ন না করে শোভাবর্ধনের নামে বিভিন্ন স্থানে পার্ক, ডিজিটাল ঘর ও বিশ্রামাগার নির্মাণ করেছেন। অধিকাংশ প্রকল্প নীতিমালা লঙ্ঘন করে টেন্ডার ছাড়াই কোটেশনের মাধ্যমে কাজ দেখিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছেন কোটি কোটি টাকা।
২০০৬ ও ২০০৮ সংশোধিত নীতিমালা উপেক্ষা করে কোটেশনের মাধ্যমে এডিপি’র বরাদ্দের কাজ কাগজে-কলমে দেখিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেন। কাউন্সীলরদের সম্মানী ভাতা ,কর্মকর্তা –কর্মচারীদের ১২ মাস বেতন বকেয়া থাকলেও মন্ত্রনালয়ের বিধি মালা লঙ্গন করে বিগত ৪ বছরে ১৫ লক্ষ টাকা করে জন প্রতি নিয়ে ৮ টি স্থায়ী  নিয়োগ দিয়েছেন মেয়র রুকন । টানা ১ যুগ পূর্বে সরিষাবাড়ী কেন্দ্রীয় বাস স্ট্যান্ড নির্মানের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ করেছিল।
উক্ত টাকা সরিষাবাড়ী পৌরসভার হিসাবে একটি ব্যাংকে স্থানান্তরিত হয়েছিল। মেয়র রুকুনুজ্জামান উক্ত হিসাব থেকে অন্যায় পন্থায় ক্ষমতার অপব্যবহার করে সরিষাবাড়ী পৌরসভা উন্নয়ন তহবিল শিরোনামের বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক সরিষাবাড়ী শাখার হিসাব নং-৫২০৬.০৩১০০৫৮৭৮৫ হতে উত্তোলন করে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ইতালিয়ান পিয়াজা নামক প্রতিষ্ঠানে বিনিয়োগ করে অবৈধ আর্থিক সুবিধা ভোগ করে আসতে থাকে। আত্মসাৎকৃত টাকায় মেয়র রুকনুজ্জামান সরিষাবাড়ী খাদ্যগুদামের নিকট ইটালিয়ান পিয়াজা ফ্যাশন নামক দোকানে বিনিয়োগ করে অবৈধ ভাবে আর্থিক সুবিধা ভোগ করে আসছেন।
ফলে সরিষাবাড়ী কেন্দ্রীয় বাস স্ট্যান্ডের নির্মান কাজ শুরু করা অসম্ভব হয়ে পরেছে।
তার দাদা মৃত আব্দুল গফুর মাস্টার ৭১’র মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে চিহ্নিত রাজাকার ও শান্তি কমিটির সংগঠক ছিলেন। যুদ্ধকালীন সময়ে তাঁর নেতৃত্বে উপজেলার ভাটারা ইউনিয়নের পারপাড়া গ্রামের কয়েকটি বাড়ি ঘর কয়েক দফায় ভস্মিভূত করেছিল। স্থানীয় সংখ্যালঘু ও স্বাধীনতাকামী অসংখ্য মানুষকে নির্যাতন-হত্যা, ধর্ষণ, লুটতরাজ করে গফুর মাস্টারের নেতৃত্বাধীন বাহিনী।
দেশ স্বাধীন হলে ৭১’র ১৬ ডিসেম্বর তিনি ঘাতক-দালাল আইনে গ্রেফতার হন এবং দীর্ঘদিন জেলহাজতবাস করেন। পরবর্তীতে ১৯৭৬ সালে জেল থেকে মুক্তি পেয়ে নিজবাড়িতে নীরবে-নিভৃতে বসবাস করতে থাকেন এবং মানুষের ঘৃণার মুখে মুক্তির কিছুদিন পর তিলেতিলে মৃত্যুবরণ করেন বলে জানা গেছে।
কাউন্সিলর শ্রী কালা চাঁন পাল জানান, পৌরসভার কোনোকাজেই কাউন্সিলরদের মতামত নেয়া হয় না। মেয়র কার্যবিবরণী খাতায় কাউন্সিলরদের ভয়ভীতি দেখিতে অগ্রিম স্বাক্ষর আদায় করে পরবর্তীতে নিজের ইচ্ছামতো রেজুলেশন লেখেন। নিজের ইচ্ছামাফিক পৌর কর ৪-৫ গুন  বৃদ্ধি করায় নাগরিকদের নাজেহাল করা হলেও কাক্সিক্ষত সেবা মিলছে না।
কাউন্সিলর সোহেল রানা অভিযোগ করেন, অন্যায় কাজের প্রতিবাদ করায় ইতিপূর্বে তাকে পিস্তল উঁচিয়ে মেয়র হত্যার হুমকি দিয়েছিলেন। প্রতিবেশিকে লেলিয়ে দিয়ে পারিবারিকভাবে তাকে লাঞ্ছিত করা হচ্ছে। সাংবাদিক সম্মেলনে আসার পথে মেয়রের পালিত ক্যাডাররা তার উপর হামলা চালিয়ে মারধরে করে। হাসপাতালে গিয়ে মাথায় ব্যা-েজ করে তিনি সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত হন বলে জানান।
প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ আলী বলেন, মেয়রের লাইসেন্সকৃত পিস্তল বারবার অবৈধ ব্যবহার করে আসছেন। তার বিরুদ্ধে প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগে কাউন্সিলর, সাংবাদিক ও সাধারণ নাগরিকদের থানায় ডজনখানেক জিডি রয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, দুদক, স্থানীয় সরকার বিভাগসহ বিভিন্ন দপ্তরে একাধিকবার লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।
এ ব্যাপারে মেয়র রুকুনুজ্জমান রোকনের বক্তব্য জানার চেষ্টা করে পাওয়া যায়নি।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ ছানোয়ার হোসেন বাদশা জানান, সরিষাবাড়ী পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি পদ থেকে মেয়র রুকুনুজ্জামান রোকনকে বহিষ্কার করা হয়েছে। রোকনের বিরুদ্ধে দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে নিজের খেয়ালখুশি মতো কাজকর্ম, করোনার ত্রাণ বিতরণে স্বেচ্ছাচারিতা, দলের ভাবমূর্তি বিরোধী কাজের অভিযোগে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media


বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38451457
Users Today : 661
Users Yesterday : 1242
Views Today : 4962
Who's Online : 22
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone