শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০৫:১৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
গৃহহীনদের ঘর দেয়ার কথা বলে অর্থ নেয়ার অভিযোগে সাঁথিয়ায় আ’লীগ নেতাকে শোক’জ করোনায় ১৫ দিনে ১২ ব্যাংকারের মৃত্যু পৃথিবীতে কোনো জালিম চিরস্থায়ী হয়নি: বাবুনগরী যারা আ.লীগ সমর্থন করে তারা প্রকৃত মুসলমান নয়: নূর চট্টগ্রামে বেপরোয়া হুইপপুত্র যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা অক্সিজেনের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে ভারতে ৪ ঘণ্টা পর পাকিস্তানে খুলে দেয়া হলো সোশ্যাল মিডিয়া করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১০১ জনের মৃত্যু ভাড়াটিয়াকে তাড়িয়ে দিলেন বাড়িওয়ালা, পুলিশের হস্তক্ষেপে রক্ষা জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে জনপ্রিয় নায়িকা মিষ্টি মেয়ে কবরী স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে গণধর্ষণ, আটক ৩ দুই দিনের রিমান্ডে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল লকডাউনেও মসজিদে মসজিদে মুসল্লিদের ঢল বেনাপোলে ৮৮ কেজি গাঁজাসহ মাদক কারবারী আটক

কেউ ই মানছেন না লক-ডাউন, ভিড় ও কমছে না বাজার গুলোতে,করোনায় বিপদ বাড়ার শংকা”

রিপোর্টঃরেদোয়ান হোসেন শাওন,সিলেট জেলা প্রতিনিধি 
ডেস্কঃপুলিশ প্রশাসনের একজন সিলেটের এক ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসা করলেন লক-ডাউনের সময় আপনি কেন ঘর থেকে বের হয়েছেন? ওই ব্যক্তি জবাব দেন, ‘গাড়ি নিয়ে বের হয়েছি কারণ ঘরে বসে থাকতে আর ভালো লাগে না’
গেল রবিবারের এই ঘটনাই সিলেটে মানুষের মধ্যে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে সরকারি নির্দেশনা না মানার প্রবণতাকে স্পষ্ট করে দিচ্ছে। এখানকার মানুষ সামাজিক দূরত্ব (সোশ্যাল ডিসটেন্সিং) মানছেন না, সড়কে-বাজারে একসাথে চলাফেরা করছেন। ফলে করোনার সংক্রমণ ব্যাপকহারে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।
সিলেট জেলায় গতকাল পর্যন্ত করোনাক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে চারজন। এর মধ্যে একজন মারাও গেছেন। বাকি তিনজন আছেন হাসপাতালে। এ তিন ব্যক্তি কিভাবে আক্রান্ত হলেন, তা এখনও জানতে পারেননি স্বাস্থ্যসেবার সাথে জড়িত দায়িত্বশীলরা। ফলে সিলেটে করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে তারা সরকারি নির্দেশনা অনুসারে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের না হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন জনসাধারণকে। গত ১১ এপ্রিল লকডাউন করা হয় সিলেটকে। কিন্তু ‘আত্মঘাতী’ মানুষ সরকারি নির্দেশনায় কর্ণপাত করছেন না বলে অভিযোগ ওঠছে।
সিলেটের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, দলবেঁধে লোকজন চলাফেরা করছেন। পাড়ার মোড়ে কয়েকজন মিলে আড্ডা দেওয়ার চিত্রও প্রত্যক্ষ করা গেছে। সেনাবাহিনী, র‌্যাব, পুলিশের সদস্যরা যখন টহলে যান, তখন সবাই ঘাপটি মারেন। কিন্তু তারা চলে যাওয়ার পর আগের মতোই যেই-সেই। অনেক এলাকার ভেতরে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র, ওষুধ ও খাবারের দোকান ছাড়াও অন্যান্য দোকানপাট খোলা থাকতে দেখা গেছে। সকাল থেকে প্রায় সন্ধ্যা অবধি চলে বেচাকেনা, কিন্তু সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার প্রবণতা নেই কারো মধ্যে।
সিলেটের সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার কালিঘাট এলাকায় রীতিমতো আঁতকে ওঠার মতোই অবস্থা। হাজার হাজার মানুষ গাদাগাদি করে এখানে বাজার-সদাই করছেন প্রতিদিন। দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ট্রাক ভরে এখানে চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজ, রসুন, আদাসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি আসে। এসব মালামাল ট্রাক থেকে নামাতে গায়ে গা ঘেষে কাজ করেন শ্রমিকরা। ক্রেতাদের ভিড়ও উপচে পড়া। কোথাও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার লেশমাত্র নেই।
দায়িত্বশীলরা বলছেন, প্রতিদিন সেনা সদস্যসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা টহল দিচ্ছেন, জরিমানাও করছেন। কিন্তু বেপরোয়া মানুষদের কিছুতেই ঘরে আটকে রাখা যাচ্ছে না। মানুষ ঘরে না থাকলে পরিস্থিতি খারাপ হবে আরো।
এ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান বলেন, ‘মানুষকে আরো সচেতন হতে হবে। আমরা যে সংকটের মধ্যে আছি, এ থেকে উত্তরণের জন্য সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা, অপ্রয়োজনে ঘর থেকে বের না হওয়া জরুরি। আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে এ ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে থাকার অনুরোধ জানিয়েছি।’
সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার জেদান আল মুসা জানান, ‘যানবাহনের অযথা চলাচল ঠেকাতে সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের লালাবাজার, সিলেট-জকিগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের শ্রীরামপুর, সিলেট-সুনামগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের তেমুখ, সিলেট-মৌলভীবাজার সড়কের পারাইরচক, সিলেট-তামাবিল মহাসড়কের বটেশ্বরে আমরা চেকপোস্ট বসিয়েছি। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ বের হলে কিংবা সরকারি নির্দেশনা না মানলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38449228
Users Today : 852
Users Yesterday : 1193
Views Today : 5786
Who's Online : 31
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone