শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ০৭:৩৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদার ১০ হাজার কোটি টাকার বেশি আত্মসাৎ করে বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার সময় যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দর ব্যবহার করেছেন বলে আদালতে জানিয়েছে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ -এসবির ইমিগ্রেশন শাখা। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর বিকেল ৩টা ৩৮ মিনিটে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে চলে যান পি কে হালদার। ২০১৯ সালের ২২ অক্টোবর দুর্নীতি দমন কমিশন তার বিদেশগমনের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়, যা ইমিগ্রেশন পুলিশ পায় ২৩ অক্টোবর বিকেল সাড়ে ৪টায়। তার আগেই সে পালিয়ে যায়।’ তিনি আরও বলেন, ‘পি কে হালদারের দুটি পাসপোর্ট। একটি বাংলাদেশের আর অপরটি কানাডার। বাংলাদেশের পাসপোর্ট ব্যবহার করেই তিনি ভারতে পালিয়ে যান।’ পি কে হালদারের পালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি প্রশ্ন তুলেছিলেন হাইকোর্ট। আদালতের প্রশ্নের জবাবে এসবির ইমিগ্রেশন শাখা থেকে এসব তথ্য জানানো হয়। নারী চালকদের কাজের সুযোগ তৈরিতে বেটার ফিউচার ফর উইমেন-উবার চুক্তি মুশতাক হত্যার বিচার চাই, সরকার পতন নয়-মোমিন মেহেদী বিবাহিত জীবন আরও ফিট রাখতে বিশেষ যে ৭ খাবার! সন্তান নিতে কতবার স’হবাস করতে হয় জানালেন ‘ডা. কাজী ফয়েজা’ বী’র্যপাত বন্ধ রে’খে অধিক সময় যৌ’ন মি’লন ক’রার সেরা প’দ্ধতি আশ্চর্য যে ফল খেলে আপনাকে মি’লনের আগে আর উ’ত্তেজক ট্যাবলেট খেতে হবে না সাপাহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেড়েছে নরমাল ডেলিভারীর সংখ্যা প্রত্যেকদিন সকালে সহবাস করলেই অবিশ্বাস্য উপকারিতা আত্রাইয়ে ইরি-বোরো ধান পরিচর্যায় ব্যস্ত কৃষক দেখুন এই ৫ রাশির মেয়েরাই স্ত্রী হিসাবে সবচেয়ে সেরা, বিস্তারিত যে কারণে নিকটাত্মীয় ভাই-বোনদের বিয়ে ঠিক নয়, জেনে রাখা দরকার সুন্দরগঞ্জে জনবল সংকটে স্বাস্থ্য সেবা বিঘিœত ভারতে মিয়ানমারের ১৯ পুলিশের আশ্রয় প্রার্থনা মিয়ানমারের ওপর বাণিজ্যিক নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের

ক্রীড়া প্রতিষ্ঠান যেনো ক্যাসিনো প্রতিষ্ঠানে পরিণত না হয়, বললেন পূর্তমন্ত্রী

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, ক্রীড়া প্রতিষ্ঠান যেনো ক্যাসিনো প্রতিষ্ঠানে পরিণত না হয়।অনৈতিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত না হয়। অনৈতিকতায় যিনি জড়িয়ে যাবেন, তাকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরদাশত করবেন না।কিছু কিছু ক্রীড়া প্রতিষ্ঠানের নাম ব্যবহার করে অনৈতিক কাজ করার কারণে ক্রীড়াঙ্গনের বড় ধরণের ক্ষতি হয়ে গেছে।সে জায়গা থেকে উত্তরণে সকলে মিলে কাজ করতে হবে। ক্রীড়াবিদদের স্বপ্ন যেনো কারো ভুলে নষ্ট না হয়ে যায়।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ এ্যাথলেটিক ফেডারেশনের উদ্যোগে আয়োজিত ৩৫তম জাতীয় জুনিয়র (বয়সভিত্তিক) এ্যাথলেটিক প্রতিযোগিতা ২০১৯ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ক্রীড়া সংগঠকদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

গণপূর্ত মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার ক্রীড়া বান্ধব সরকার।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে ক্রীড়াঙ্গনে পৃষ্ঠপোষকতা প্রদান করেন, ক্রীড়াবিদদের বিকাশে ভূমিকা পালন করেন এরকম দৃষ্টান্ত উপমহাদেশে দ্বিতীয়টি নেই।আজকের জুনিয়র ক্রীড়াবিদরাই আগামী দিনে সারা পৃথিবীতে আমাদের অ্যাম্বাসেডর হবে।বিশ্ব পরিমন্ডলে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করে অনন্য নজির সৃষ্টি করবে।

মন্ত্রী আরো যোগ করেন, সরকার ক্রীড়াকে সকল পৃষ্ঠপোষকতা দিতে প্রস্তুত। তবে ক্রীড়াবিদদের ক্রীড়ার প্রতি মনযোগী হতে হবে, আন্তরিক ও নিষ্ঠাবান হতে হবে। দেশের মুখ উজ্জ্বল করতে হবে। নৈতিকতা ও মূল্যবোধের অবক্ষয় থেকে বেরিয়ে আসতে হলে ক্রীড়া চর্চার কোন বিকল্প নাই।ক্রীড়া চর্চার মাধ্যমে শহর থেকে গ্রাম সবখানে সকলকে উজ্জীবিত করে তুলতে হবে।

বাংলাদেশ এ্যাথলেটিক ফেডারেশনের সহ-সভাপতি মোঃ তোফাজ্জল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক সংসদ সদস্য মোঃ হারুনুর রশীদ, বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্ট বার এসোসিয়েশনের সভাপতি এডভোকেট এম আমিন উদ্দিন ও ওয়ালটন গ্রুপের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এফ এম ইকবাল বিন আনোয়ার ডন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন বাংলাদেশ এ্যাথলেটিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আব্দুর রকিব মন্টু।

অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি প্রতিযোগিতায় বিজয়ী কয়েকজন প্রতিযোগীর হাতে পুরস্কার তুলে দেন। সম্পাদনা : সারোয়ার

Please Share This Post in Your Social Media

প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদার ১০ হাজার কোটি টাকার বেশি আত্মসাৎ করে বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার সময় যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দর ব্যবহার করেছেন বলে আদালতে জানিয়েছে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ -এসবির ইমিগ্রেশন শাখা। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর বিকেল ৩টা ৩৮ মিনিটে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে চলে যান পি কে হালদার। ২০১৯ সালের ২২ অক্টোবর দুর্নীতি দমন কমিশন তার বিদেশগমনের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়, যা ইমিগ্রেশন পুলিশ পায় ২৩ অক্টোবর বিকেল সাড়ে ৪টায়। তার আগেই সে পালিয়ে যায়।’ তিনি আরও বলেন, ‘পি কে হালদারের দুটি পাসপোর্ট। একটি বাংলাদেশের আর অপরটি কানাডার। বাংলাদেশের পাসপোর্ট ব্যবহার করেই তিনি ভারতে পালিয়ে যান।’ পি কে হালদারের পালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি প্রশ্ন তুলেছিলেন হাইকোর্ট। আদালতের প্রশ্নের জবাবে এসবির ইমিগ্রেশন শাখা থেকে এসব তথ্য জানানো হয়।

প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদার ১০ হাজার কোটি টাকার বেশি আত্মসাৎ করে বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার সময় যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দর ব্যবহার করেছেন বলে আদালতে জানিয়েছে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ -এসবির ইমিগ্রেশন শাখা। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর বিকেল ৩টা ৩৮ মিনিটে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতে চলে যান পি কে হালদার। ২০১৯ সালের ২২ অক্টোবর দুর্নীতি দমন কমিশন তার বিদেশগমনের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়, যা ইমিগ্রেশন পুলিশ পায় ২৩ অক্টোবর বিকেল সাড়ে ৪টায়। তার আগেই সে পালিয়ে যায়।’ তিনি আরও বলেন, ‘পি কে হালদারের দুটি পাসপোর্ট। একটি বাংলাদেশের আর অপরটি কানাডার। বাংলাদেশের পাসপোর্ট ব্যবহার করেই তিনি ভারতে পালিয়ে যান।’ পি কে হালদারের পালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি প্রশ্ন তুলেছিলেন হাইকোর্ট। আদালতের প্রশ্নের জবাবে এসবির ইমিগ্রেশন শাখা থেকে এসব তথ্য জানানো হয়।

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38356070
Users Today : 2712
Users Yesterday : 6146
Views Today : 10591
Who's Online : 90
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/