শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৩৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
উলিপুরে আইপিএল কে কেন্দ্র করে জুয়া খেলার সময় ৯জন আটক আত্রাইয়ে বিএনপির নির্বাচনী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত গোবিন্দগন্জে বিয়ের প্রলোভনে ডেকে এনে গনধর্ষন ও ৪ ধর্ষক আটক ভাইরাল হওয়া সেই যুগলের ফটো অ্যালবামের ছবিগুলো নড়াইলের ডিসি-এসপি বৃদ্ধা মাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি ভান্ডারিয়ার পৌরশহরের রাস্তা সংস্কারের ৮ মাসের মধ্যে কলেজ ছাত্রাবাসে তরুণী ধর্ষণ: ছাত্রলীগ নেতাসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা ইনডেমনিটি: মোশতাকের অভিশপ্ত অধ্যাদেশ, জিয়ার বেআইনি আইন ওষুধ হিসেবে মাদক নিতেন, জিজ্ঞাসাবাদে জানালেন শ্রদ্ধা কাপুর টাইগারদের শ্রীলঙ্কা সফর অক্টোবরে! খাগড়াছড়ি-সিলেটে গণধর্ষণের ঘটনায় মানবাধিকার কমিশনের নিন্দা গৃহকর্মীকে নির্যাতনের অভিযোগে আওয়ামী লীগ নেতার স্ত্রী গ্রেপ্তার শাহরুখকে কাছে পেলে চড় মারতাম: জয়া দিনাজপুরের অজোপাড়া গাঁয়ের নারী ৭ বছরেই কোটিপতি! ভেঙেই গেলো ড. কামালের গণফোরাম

কক্সবাজারে পুলিশের গুলিতে সেনাবাহিনীর মেজর (অব:) নিহতের ঘটনায় ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

বেলাল আজাদ,
স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার:
কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কে পুলিশের গুলিতে সেনাবাহিনীর একজন মেজর (অব:) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান (৩৬) নিহত হয়েছেন। ঘটনাটি তদন্তের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শাজাহান আলীকে প্রধান করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও রামু ১০ পদাতিক ডিভিশনের জিওসির একজন প্রতিনিধি এ কমিটিতে কাজ করবেন।
বৃহস্পতিবার (৩১ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে টেকনাফ উপজেলার শামলাপুর এলাকায় মেরিন ড্রাইভ সড়কে পুলিশের চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে সেনা কর্মকর্তা মেজর (অব:) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান নিহত হন।
নিহত সেনা কর্মকর্তা সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান যশোরের ১৩ বীর হেমায়েত সড়কের সেনানিবাস এলাকার মৃত এরশাদ খানের ছেলে।
এদিকে, মেরিন ড্রাইভ সড়কে একজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা নিহতের ঘটনা নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য রয়েছে। পুলিশের দাবি, দুর্ধর্ষ রোহিঙ্গা ডাকাত বাহিনীর সদস্য পাহাড় থেকে নেমে আসার খবর পেয়েই বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বরত পরিদর্শক লিয়াকতের নেতৃত্বে একদল পুলিশ মেরিন ড্রাইভে অবস্থান নিয়েছিল। লোকজনের দেওয়া খবর অনুযায়ী টেকনাফ থেকে কক্সবাজারমুখি একটি প্রাইভেটকারের আরোহীর সঙ্গে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে বাহারছড়া ফাঁড়ির দায়িত্বরত পুলিশ ইন্সপেক্টর লিয়াকত গুলি চালায়। ঘটনার পর পরই কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসকরা গুলিবিদ্ধ আরোহী মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদকে মৃত ঘোষণা করেন।
অপরদিকে, শনিবার বিকালে মেরিন ড্রাইভ রোডের বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার ঘটনাস্থলে সেনাবাহিনীর একটি তদন্ত দল ঘটনা তদন্তে যায়। এসময় এলাকার লোকজনের নিকট তদন্ত দলের কর্মকর্তারা শুক্রবার রাতের ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে পুলিশের বক্তব্যের সম্পূর্ণ বিপরীত চিত্র ফুটে উঠে।
তদন্তে একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, স্থানীয় একটি হেফজখানার ইমাম, মুয়াজ্জিন ও দুজন হাফেজ সেনা কর্মকর্তাদের কাছে বলেছেন, শনিবার রাতে প্রাইভেট কার থেকে যে ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করেছে সেটা ছিল একটি নির্মম ঘটনা। তারা জানান, প্রাইভেট কারের ওই আরোহী (মেজর সিনহা) ফাঁড়ির পুলিশ ইন্সপেক্টর লিয়াকতের নির্দেশ মতে ওপরে দুই হাত তুলে বলেন-‘বাবা আপনারা অহেতুক আমাকে নিয়ে উত্তেজিত হবেন না। আপনারা আমাকে নিয়ে একটু খোঁজ নিন।’ তারা আরো বলেন, মেজর সিনহা এমন কথা বলার সঙ্গে সঙ্গেই কুত্তার বাচ্চা বলেই তাঁর (মেজর সিনহা) বুকে গুলি চালায় পুলিশ ইন্সপেক্টর লিয়াকত হোসেন। তৎক্ষণাৎ তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।
শামলাপুর বাজারের আবদুল হামিদ নামের একজন ফেরিওয়ালা সেনা দলের কর্মকর্তাদের বলেন, গাড়ি থেকে নামার পর পরই পুলিশ ইন্সপেক্টর গাড়ির আরোহীকে (মেজর সিনহা) বুকে গুলি চালিয়ে দেয়।
কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন জানান, শুক্রবার রাতে শাপলাপুরের একটি পাহাড় থেকে নেমে আসা বোরকা সদৃশ বস্তু পরিহিত লোকজনের খবর শুনে পুলিশ হয়তোবা ডাকাত নতুবা জঙ্গি সন্দেহ করে ওই গাড়িটিকে টার্গেট করে আসছিল।
পুলিশ সুপার আরো বলেন, পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায় যে, নিহত ব্যক্তি সেনাবাহিনীর একজন অবসরপ্রাপ্ত মেজর। তিনি কক্সবাজারের হিমছড়ি মেরিন ড্রাইভের একটি হোটেলের দুটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে থাকতেন।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37501298
Users Today : 9278
Users Yesterday : 6049
Views Today : 27374
Who's Online : 73
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone