মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ০৫:০৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বরিশাল পুলিশ লাইন্সএ নিহত পুলিশ সদস্যদের স্মৃতিম্ভতে পুস্পার্ঘ্য অর্পন শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্ব বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত করেছে: মিজানুর রহমান মিজু রাণীশংকৈলে জাতীয় বীমা দিবসে র‍্যালি ও অলোচনা  গণতন্ত্রের আসল অর্জনই হলো বিরোধিতা করার অধিকার – সুমন  জাতীয় প্রেস ক্লাবে মোমিন মেহেদীকে লাঞ্ছিতর ঘটনায় উদ্বেগ বেরোবি ভিসিকে নিয়ে মন্তব্য করায় শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ পটুয়াখালী এই প্রথম জোড়া লাগানোর শিশুর জন্ম! তানোরে ইউনিয়ন পরিষদের ভবন উদ্বোধন ফেসবুক ইউটিউব টুইটারকে যেসব শর্ত মানতে হবে ভারতে ২০৩০ সালের মধ্যে ঢাকার যানজট মুক্তির স্বপ্নপূরণে যত উদ্যোগ আজ অগ্নিঝরা মার্চের প্রথম দিন রাশিয়া প্রথম হয়েছিল বাংলাদেশের দুই টাকার নোট। অজুহাত দেখিয়ে মে’য়েরা বিয়ের প্রস্তাবে ল’জ্জায় গো’পনে ১০টি কাজ করে তামিমা স’ম্পর্কে এবার চা’ঞ্চল্যকর ত’থ্য দিল তার মেয়ে তুবা নিজেই ছে’লে: “বাবা তুমি তো বলেছিলে পিতৃ ঋণ কোনদিন শোধ হয় না

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে ১০ লাখ টাকায় চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীর চাকরি!

এম শিমুল খান, গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরের বি.ইউ.কে ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে দশ লাখ টাকায় নিম্নমান সহকারী কাম-কম্পিউটার অপারেটর নিয়োগের অভিযোগ উঠেছে।
এ বিষয়ে ১০ জুলায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর এবং ২৬ সেপ্টেম্বর দুদকে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ফরিদ আহম্মদ তালুকদার। তিনি উপজেলার বাশবাড়িয়া ইউপির খাঞ্জাপুর গ্রামের বাসিন্দা। তিনি অযোগ্য কোনো প্রার্থীকে টাকার বিনিময় নিয়োগ না দেয়ার দাবি জানান।
অভিযোগে জানানো হয়, সহকারী কাম-কম্পিউটার অপারেটর নিয়োগের একটি বিজ্ঞপ্তি দেয় বি.ইউ.কে ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিজ্ঞপ্তির পর ২০ জন আবেদন করেন। এর মধ্যে বাছাইয়ে পাঁচজন বাদ পড়েন। প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার অভিযোগ এনে ছয়জন পরীক্ষায় অংশ নেননি। বাকি নয়জন ২২ জুন পরীক্ষা দেন। লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ নয়জনকে ভাইভায় ডাকে স্কুল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু ভাইভার ফলাফল না দিয়েই উজানী গ্রামের দিনেশ সরকারের ছেলে তন্ময় সরকারকে নিয়োগ দেন প্রধান শিক্ষক শাম্মি আক্তার। বিনিময়ে তিনি নেন দশ লাখ টাকা। তন্ময় সরকারকে ১৬ অক্টোবর নিয়োগ দিয়ে পর দিন যোগদান করান।
শাম্মি আক্তারের যোগসাজশে অযোগ্য প্রার্থীকে প্রশ্ন দিয়ে পরীক্ষা নেয়ার পর নিয়োগ প্রক্রিয়া সমাধান করেন। অনেক মেধাবী প্রার্থী থাকা সত্তেও টাকার বিনিময়ে বিদ্যালয়ের সভাপতি ও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে তন্ময় সরকারকে নিয়োগ দেন প্রধান শিক্ষক।
এলাকাবাসী ক্ষিপ্ত হয়ে নতুন বিজ্ঞপ্তি দিয়ে যোগ্য প্রার্থী নিয়োগের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর এবং দুদকে আবেদন করেন।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শাহাদত আলী মোল্যা বলেন, অভিযোগের ব্যাপারে কিছুই জানি না। অভিযোগ পেলে ক্ষতিয়ে দেখা হবে।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাম্মি আক্তার জানান, নিয়োগে কোনো আর্থিক বাণিজ্য ও অনিয়ম করা হয়নি।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38342580
Users Today : 857
Users Yesterday : 5054
Views Today : 2626
Who's Online : 30
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/