মঙ্গলবার, ১১ অগাস্ট ২০২০, ১০:০৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
পতœীতলায় শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমী উৎসব পালিত বকশীগঞ্জে কিন্ডার গার্টেন শিক্ষকদের মানবেতর জীবনযাপন চাই রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন ও দুর্নীতি নির্মূল: টিআইবির আহŸান কুষ্টিয়াতে শিশু শিক্ষার্থীদের জন্য ঘুম কেন জরুরি  ৪৫ তম জাতীয় শোক দিবস পালন উপলক্ষে দুমকিতে  প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত।  বদলগাছী থানার মেধাবী-চৌকস পুলিশ অফিসার এস আই গৌরাঙ্গ মোহন রায় বদলগাছীতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ছাইদকে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠিত করে দিলেন উপজেলা প্রশাসন দিনাজপুরের বিরামপুরে কলেজ ছাত্রী  ধর্ষণে স্বীকার দুঃসাহসী ক্ষুদিরামের বলিদান যুব সম্প্রদায়ের কাছে চিরঅমর হয়ে আছে – মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন  আওয়ামী লীগে কোন্দল নাই আছে নেতৃত্বের প্রতিযোগীতা হঠাৎ স্বর্ণ-রুপার দাম কমতে শুরু করেছে অবৈধ স্থাপনা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে দখলমুক্ত করার নির্দেশ সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর ‘ডাকাত’ বলে প্রচার করেছিল এরা এএসআইকে চড় মারার ঘটনায় সেই ওসি প্রত্যাহার আগস্টেই ২ আসনের নির্বাচন তফসিল ঘোষণা

ঝুকিপূর্ণ বৈদ্যতিক লাইন,প্রায়ই ঘটছে নৌ-দূর্ঘটনা 

রেদোয়ান  হোসেন  শাওন :: সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বৈদ্যুতিক খুঁটি বেকে গিয়ে ঘটছে দুর্ঘটনা। এতে হরহামেশা প্রাণহানিসহ ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছেন হাওরবাসিরা। বিশেষ করে হাওর এলাকায় যত্রতত্র ঝুলন্ত বৈদ্যুতিক তারের কারণে বেড়েছে নৌ-দুর্ঘটনার হার।
অপরিকল্পিতভাবে হাওর এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ এর কারন বলে মনে করছেন স্থানীয়রা। এছাড়া সম্প্রতি অত্র এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ একটি বৈদ্যুতিক তারের সংস্পর্শে এসে পানিতে পড়ে এক তরুণের মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনাও ঘটে।
এলাকাবাসী ও জগন্নাথপুর উপজেলা বিদ্যুৎ কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার একটি পৌরসভা ও ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে রানীগঞ্জ, চিলাউড়া হলদিপুর, পাইলগাঁও, আশারকান্দি ও পৌর এলাকার একাংশে বিদ্যুৎ সঞ্চালনের কাজে হাওরের উপর দিয়ে যত্রতত্র আর এলোমেলোভাবে এসব বৈদ্যুতিক লাইন স্থাপনের কারণে বন্যার পানি বেড়ে নৌ-দুর্ঘটনার সৃষ্টি করছে।  গত ১৯ জুলাই পৌর এলাকার পশ্চিম ভবানীপুরে তেমনই এক বৈদ্যুতিক তারের স্পর্শ লেগে এক নৌ-শ্রমিক নিখোঁজ হন। এর দু’দিন পর তার লাশ উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও মই হাওর ও নলুয়ার হাওরের উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের কারণে প্রায়ই দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন বিভিন্ন জায়গা থেকে জগন্নাথপুর উপজেলায় যাতায়াতকারী নৌকার যাত্রী ও শ্রমিকরা।
এ ব্যাপারে জগন্নাথপুর উপজেলার নৌ-শ্রমিক  জানান, বর্ষা মৌসুমে জগন্নাথপুর উপজেলা সদর থেকে দিরাই উপজেলাসহ ময়মনসিংহ ও নেত্রকোনা জেলার বিভিন্ন উপজেলার সঙ্গে নৌপথে অনেক মানুষের যাতায়াত রয়েছে। এছাড়াও কম খরচে বড় বড় নৌ-যানে ইটসহ বিভিন্ন মালামালও আসে এ অঞ্চলে। এসব নৌকার যাত্রী ও শ্রমিকরা বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন প্রতিনিয়ত। এছাড়াও স্থানীয়  যাতায়াতকারী নৌ-চালক ও যাত্রীদের চলাচলের ক্ষেত্রে এ বিষয়ে ধারণা থাকলেও নতুন কোনো নৌকা এলে তা দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে।
জগন্নাথপুর উপজেলা নাগরিক ফোরামের নেতা নুরুল হক  বলেন, প্রতিদিন ঝুঁকি নিয়ে শত শত নৌকা চলাচল করছে। এ বিষয়ে বিদ্যুৎ বিভাগের উদ্যোগ নেওয়া দরকার।
এছাড়াও উপজেলার বিদ্যুৎ প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমরা দুর্ঘটনা রোধে কাজ করছি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone