রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৬:৩৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
রাজধানীর দুই এলাকায় করোনার সর্বাধিক সংক্রমণ গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শেষ হচ্ছে ১৫ এপ্রিল রামগতিতে ট্রাক্টরচাপায় শিশুর মৃত্যু সন্ধ্যা ৬টার পর ফার্মেসি-কাঁচাবাজার ছাড়া সব দোকান বন্ধ বিয়েবাড়িতে মেয়েদের নাচানাচির ছবি তোলা নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৩০ পাঁচ উপায়ে দূর করুন বিরক্তিকর ব্রণ ডালিমের ১০ আশ্চর্য গুণ যুক্তরাষ্ট্র প্রতিবছরে একশত বিলিয়ন মার্কিন ডলারের জলবায়ু তহবিল করবে বাসাভাড়া নিতে বাড়িওয়ালাকে নকল স্বামী দেখালেন প্রভা! প্রথম দিনেই ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ‘মহব্বত’ সংকটে করোনা রোগীরা হাসপাতালগুলোতে ঘুরেও মিলছে না শয্যা অরাজকতা সৃষ্টির চেষ্টা করলে কঠোর ব্যবস্থা ব্রিটেনের রানি ও প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার চিঠি টিকা প্রতিরোধী ভয়ঙ্কর ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল হবে বাংলাদেশ! লকডাউনে পোশাক কারখানা বন্ধ কিনা, জানা যাবে কাল

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ কর্মজীবীদেররোধে পুলিশের চেকপোস্ট

 

মোঃ নাসির উদ্দিন, ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ সারাদেশে মরণঘাতি করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে। যার বেশী ভাগই ঢাকা-নারায়ণগঞ্জে কর্মজীবিদের মাধ্যমে। কর্মস্থল ছুটি ও বন্ধ হওয়ায় দলে দলে ছুটছে গ্রামের বাড়ি। আর উত্তরবঙ্গ মানুষদের ফেরার মাধ্যম বঙ্গবন্ধু সেতু।

প্রবেশদ্ধার লকডাউন ও সেতুপূর্ব গোলচত্ত¡রে চেকপোস্টের কারণে সেতু পথ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ঢাকা, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ, জামালপুর ও ময়মনসিংহসহ বিভিন্ন জেলার কর্মরত নানা শ্রেণি পেশার কর্মজীবি মানুষ বিকল্প নৌকাযোগে যমুনা নদী পথে সেতুর পশ্চিমপাড় সিরাজগঞ্জের বিভিন্ন নৌকা ঘাটে পারি জমায়। এর ফলে ঘটছে নানা ধরণের দুর্ঘটনা ও করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা। এসব বহিরাগত মানুষদের যাতায়াত বন্ধ ও করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে চেকপোস্ট অভিযান বসিয়েছে ভূঞাপুর থানা পুলিশ।

সরেজমিনে দেখা গেছে- সোমবার (২০ এপ্রিল) সকালে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব-ভূঞাপুর সংযোগ সড়কের বিভিন্ন স্থানে এই চেকপোস্ট বসানো হয়। চেকপোস্টের শুরুতেই ভোর সকালে সংযোগ সড়কের পাথাইলকান্দি (যমুনা সেতু) বাজারে অভিযান চালানো হয়। এর আগে গত ১৯ এপ্রিল সকালেও অভিযান চালায় পুলিশ।

থানা পুলিশ জানিয়েছে- করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ও বহিরাগতরোধে টাঙ্গাইল জেলা পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় (বিপিএম) মহোদয়ের নির্দেশনায় চেকপোস্ট পরিচালনা করেন ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. রাশিদুল ইসলাম ও থানার এসআই টিটু চৌধুরী ও মো. লিটন মিয়াসহ অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা।

এ বিষয়ে ভূঞাপুর থানা অফিসার ইনচার্জ মো. রাশিদুল ইসলাম মুঠোফোনে জানান- “করোনা ভাইরাসের কারণে বহিরাগতরোধে নিয়মিত উপজেলার বিভিন্ন এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোর প্রবেশপথে চেকপোস্ট বসিয়েছি। সচেতন করা হচ্ছে স্থানীয় সর্বসাধরণদের। করোনা সংক্রমণরোধে মানুষদের নিজ নিজ বাসা-বাড়িতে থাকার আহবান করা হচ্ছে। অযথা বাহিরে ঘেরাফেরাকারীদের জন্য নেয়া হচ্ছে আইনী ব্যবস্থা। পুলিশ সদস্যদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এছাড়াও তিনি আরো জানান, এ উপজেলায় যারা আসছেন তাদের ১৪ দিনের হোম কোয়েরান্টিন থাকতে বলা হয়েছে। অন্যথায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়েরান্টিনে রাখা হবে এবং সকলকে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38441029
Users Today : 505
Users Yesterday : 1570
Views Today : 4028
Who's Online : 26
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone