বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১১:০২ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মেয়েটা কী সত্যি খারাপ?আমার চোখ দুটো আমি সরাতে পারছিলাম না অপরাধী ভাব যেনো, এক খুনের মামলার আসামী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত কলেজের পরীক্ষা ১৭ মে পর্যন্ত স্থগিত খ্যাতিমান ব্যাংকার খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ আর নেই প্রতি কিলোমিটারে বাস ভাড়া হবে ২ টাকা ২০ পয়সা নির্ধারণ গেইল-রশিদ খানরা ফিরে গেলেন, অর্থের লোভে সেরা অলরাউন্ডার সাকিব এবার প্রযোজকের বাড়িতে দেখা গেলো বুবলিকে, কারণটা কি মাসুদ রানা সিনেমার নায়িকা কে এই সুন্দরী? জামালপুরে চাঁদাবাজির মামলায় কলেজ অধ্যক্ষ জেল হাজতে আমার বউয়ের দিকে আঙুল তুললে মেনে নেবো না: নাসির মুজিববর্ষে বৃক্ষরোপণের কথা বলে ‘বনবন্ধু’ ইকবালের কোটি টাকার প্রতারণা পটুয়াখালীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ডিজিটাল ম্যারাথন’ অনুষ্ঠিত।  দেশ বরেণ্য অর্থনীতিবিদ খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদের মৃত্যুতে কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী)’র শোক ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন: ৫টি লক্ষ্য ঘোষণা স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র রাষ্ট্রবিনির্মাণের স্মারক: ১০ এপ্রিলকে ‘প্রজাতন্ত্র দিবস’ ঘোষণা করতে হবে সবুজ আন্দোলন উপদেষ্টা পরিষদে যুক্ত হলেন ৪ বিশিষ্ট নাগরিক

তানোরে অদ্ভুত শিশুর জম্ম

আলিফ হোসেন,তানোর
রাজশাহীর তানোর উপজেলায় অদ্ভুত দেখতে এক শিশুর জন্ম হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার (৩১ অক্টোবর) দিবাগত রাতে তানোর পৌরশহরের মহানগর ক্লিনিকে ওই শিশুটি জম্ম হয়।
উপজেলার তালন্দ ইউনিয়নের আড়াদিঘী গ্রামের গৃহবধু মুনজিরিনা বেগম শিশুটির জন্ম দেন। শিশুটির বাবা রাজমিস্ত্রি আইনাল হক। শিশুটি তাদের দ্বিতীয় সন্তান। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে মহানগর ক্লিনিকে জন্ম নেয় শিশুটি। শিশুটির ছেলে হলেও দুই চোখ, নাক ও পায়খানা দ্বার নেই। সারা শরীর জুড়ে কোথাও স্বাভাবিক চামড়া নেই। আবার দুইটি পা থাকলেও তা বিকলাঙ্গ। সোমবার (৫ নভেম্বর) দুপুরে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত শিশুটি জীবিত আছে। তার শরীরের অন্যান্য অঙ্গগুলোও অস্বাভাবিক রয়েছে।
শিশুর বাবা আইনাল হকের বরাত দিয়ে তালন্দ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম মন্ডল জানান, জন্মের পরেই মহানগর ক্লিনিকের চিকিসৎকের অপারগতা দেখিয়ে অদ্ভুত শিশুটিকে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। তবে শিশুটির মা এখনও ওই ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন আছে। তবে শিশুটিকে বাড়ি নিয়ে আসা হলে এলাকায় খবর ছড়িয়ে পড়ে। পরে স্থানীয় শতশত লোকজন শিশুটিকে দেখতে তাদের বাড়িতে ভিড় করছে বলেও জানান এই জনপ্রতিনিধি।
এদিকে, উপজেলার মহানগর ক্লিনিক এন্ড ডায়গনস্টিক সেন্টারের পরিচালক হেলাল আহম্মেদ এই প্রতিবেদককে বলেন, অদ্ভুত দেখতে ওই শিশুর জন্ম হওয়ায় আমরা তাদের পরিবারকে সরকারী মেডিকেলে নিয়ে যেতে বলেছিলাম। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে তারা তা করেননি। আমাদের ক্লিনিকে তো সব ধরনের চিকিৎসা সম্ভব নয়। তাছাড়াও অস্বাভাবিক আকৃতির এই শিশু বেঁচে থাকবে, তা কেউও কল্পনাও করতে পারছেন না বলে দাবী করেন তিনি। #

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38319282
Users Today : 3311
Users Yesterday : 8043
Views Today : 8971
Who's Online : 29
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/