শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
মুসলিম প্রধান ১৩ দেশের ভিসা বন্ধ করল আমিরাত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত ৬ কোটি ৭ লাখ ছাড়াল ভারতে ঘূর্ণিঝড় নিভার হানা বাস-ট্রাক সংঘর্ষে ৪১ শ্রমিকের মৃত্যু কাশ্মিরে বিদ্রোহীদের গুলিতে দুই ভারতীয় সেনা নিহত আ. লীগের মধ্যে কিছু হাইব্রিড নেতাকর্মী ঢুকে পড়েছে: মির্জা আজম বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে নবনিযুক্ত ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর শ্রদ্ধা ভ্যাকসিন আসার সাথে সাথেই বাংলাদেশ পাবে এক বাংলাদেশির নামে সিঙ্গাপুরে শত শত কোটি টাকার সন্ধান নতুন আতঙ্ক ধুলা করোনা মোকাবিলায় ২১টি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা আবাসিকে নতুন গ্যাস সংযোগ পাবেন গ্রাহকরা পাথরঘাটা উপজেলার ভূমি অফিস পরিদর্শনে ডিএলআরসি : এলডি ট্যাক্স সফটওয়ারের ৩য় পর্যায়ের পাইলটিং কার্যক্রম বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি সম্পন্নের নির্দেশ নিয়োগবিধি সংশোধন করে বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে বন্দরে স্বাস্থ্যকর্মীদের কর্মবিরতি পালণ তারেক রহমান এর ৫৬তম জন্মদিন উপলক্ষে গাবতলী কাগইলে বিএনপি ও অঙ্গদল উদ্যোগে দোয়া মাহফিল

তানোরে আলু বীজ কালোবাজারে

 

তানোর(রাজশাহী)প্রতিনিধি

রাজশাহীর তানোরে ব্র্যাকের আলু বীজের তীব্র সঙ্কট ও কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। এতে মানসম্মত বীজ সংগ্রহ করতে গিয়ে কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। জানা গেছে, চলতি মৌসুমে বাজারে আলুর দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় অনেকে বীজ আলু খাবার আলু হিসেবে বিক্রি করে দিয়েছে। এতে বীজ আলুর প্রচন্ড সঙ্কট দেখা দিয়েছে। ফলে এ বছর আলুচাষ ব্যাহত হবার আশঙ্কা করছেন কৃষকরা। আলুচাষিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, এবার দফায় দফায় বন্যা ও জলাবদ্ধতায় সবজি আবাদ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় স্মরণকালের মধ্যে সর্বোচ্চ দামে আলু বিক্রি হয়। খাবার আলুর দাম ওঠে প্রতি কেজি ৫০ টাকায়। আলুর দাম বেশি পাওয়ায় অনেকে কোল্ড স্টোরেজে রাখা বীজ আলু খাবার আলু হিসেবে বিক্রি করে দেয়ায় আলু লাগানোর মৌসুমে বীজ আলুর সঙ্কট দেখা দিয়েছে। এতে অনেক চাষি বীজ আলু সংগ্রহে রাখলেও ক্ষুদ্র চাষিরা পড়েছেন বেকায়দায় । তারা হন্যে হয়ে ভাল মানের বীজ খুঁজছেন। বিশেষ করে ব্র্যাক বীজের প্রতিই চাষিদের আগ্রহ বেশি বলে জানা গেছে। কিন্তু সরবরাহ কম থাকায় ব্র্যাক বীজ আলু চাহিদামত দিতে পারছে না। তবে বিএডিসি সূত্র জানায়, তাদের কাছে পর্যাপ্ত বীজ আলু রয়েছে, সঙ্কট হবে না।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক সামছুল হক বলেন, জেলায় এবার আলুচাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩৫ হাজার হেক্টর। প্রতি হেক্টরে দেড় মেট্রিক টন হিসাবে বীজের চাহিদা রয়েছে প্রায় ৫৫ হাজার মেট্রিক টন। বড় চাষিরা বীজ সংগ্রহে রেখেছেন। ক্ষুদ্র চাষিদের বীজের চাহিদা রয়েছে। এবার ব্র্যাক বীজের সরবরাহ কম, তবে বিএডিসি’র পর্যাপ্ত বীজ রয়েছে। সঙ্কট হবে না। তাছাড়া পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকায় সারেরও কোন সঙ্কট হবে না।

স্থানীয়রা বলছে, একশ্রেণীর বীজ ডিলার অধিক মুনাফার আশায় কৃত্রিম সঙ্কট সৃস্টি ও কৃষকদের জিম্মি করে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করছে। বিশেষ করে ব্র্যাকের বীজ নিয়ে চলছে তুঘলঘি কারবার যেনো দেখার কেউ নাই। এক মাস আগে ডিলারদের কাছে বীজের অগ্রিম টাকা দিয়ে রশিদ নেয়া হয়েছে তার পরেও ডিলারদের দোকানে দিনব্যাপী ধরনা দিয়েও চাহিদামত বীজ পাওয়া যাচ্ছে না। ডিলারদের কাছে বীজ না  পেলেও খোলা বাজারে পাওয়া যাচ্ছে তবে গলাকাটা দাম নেয়া হলেও রশিদ দেয়া হচ্ছে না। ফলে অতিরিক্ত দামে এসব বীজ রোপণ করে  প্রতারিত হলেও কৃষকের কিছুই করার থাকবে না। অপরদিকে বীজ আসল-নকল-ভেজাল না নিম্নমাণের অধিকাংশ কৃষকের সেটা বোঝার ক্ষমতা নাই। কৃষকের এই সরলতার সুযোগে একশ্রেণীর ব্যবসায়ী খাবার আলু রিপ্যাক করে বীজ হিসেবে বিক্রি করছে বলেও কৃষকের মধ্য আলোচনা রয়েছে।

এদিকে ডিলাররা বলছে, পরিবহন সংকটসহ নানা কারণে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম থাকায় বীজের কিছুটা সঙ্কট রয়েছে, তবে দু’একদিনের মধ্যই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে বলে তারা আশাবাদি। তানোর পৌর এলাকার তালন্দ বাজারে কীটনাশক ব্যবসায়ী টিপুর দোকানে বীজ বিক্রির সময় জানতে চাওয়া হয় কত টাকা কেজি দামে বিক্রি করছেন। একথা বলা মাত্রই তাঁর ছোট ভাই ক্ষিপ্ত হয়ে বলেন এখান থেকে চলে যান নইলে অবস্থা খারাপ হবে। তিনি বলেন, এটা সাংবাদিকের দেখার কাজ না কৃষি অনুমতি নিয়ে তারা ব্যবসা করছেন।তবে। টিপু কীটনাশকের ব্যবসায়ী হলেও তাঁর গুদাম ভর্তি নানা রকমের সার মজুদ রেখে বিক্রি করছেন। বিভিন্ন এলাকা থেকে নিম্নমাণের কীটনাশক এনে নামিদামি কোম্পানির মোড়কে ভরে বিক্রি করেন বলেও তাঁর বিরুদ্ধে জনশ্রুতি রয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক জানান তানোর পৌর এলাকার জিওল মোড়ের হাবিব ও কাশেম বাজারের হক ব্র্যাকের প্রতি কেজি বীজ আলুর দাম নিচ্ছে প্রকার ভেদে ৭০ থেকে ৮০ টাকা করে। অথচ ব্র্যাকের নির্ধারিত মুল্য ৫৩ টাকা কেজি। তানোর উপজেলার ব্র্যাকের বীজ ডিলার তালন্দ বাজারের  মেসার্স ভাই ভাই ট্রেডার্সের স্বত্ত্বাধিকারী শাহিন আলম মাস্টার জানান উপজেলায় বীজের চাহিদা প্রায় ৫৮০ মেট্রিক টন তিনি বরাদ্দ পেয়েছেন মাত্র ১৮০ মেট্রিক টন। তিনি বলেন, টাকা দিয়েও বীজ মিলছে না আলুর দাম বেশি পাওয়ার কারনে বীজ আলু খাবার আলু হিসেবে বিক্রি করায় এই সঙ্কট দেখা দিয়েছে, তবে পাশের জেলা ও উপজেলা থেকে বীজ সংগ্রহ করে চাষিদের চাহিদা পুরুনের চেষ্টা করা হচ্ছে।

এদিকে উপজেলার কামারগাঁ ইউপির মাদারীপুর ও ধানুরা এলাকার কয়েক জন নাম প্রকাশ না  করার শর্তে বলেন,তালন্দ বাজারের ভাই ভাই বীজ ভাণ্ডার থেকে ৪০ কেজি ওজনের ৫ বস্তা বীজ কিনেছেন ৬৫ টাকা কেজি হিসেবে প্রতি বস্তার দাম নিয়েছেন ২ হাজার ৬শ’ টাকা করে তবে রশিদ দিলেও সেখানে টাকার অঙ্ক লেখা হয়নি।

বীজের বস্তায় সাঁটানো কাগজে লিখা রয়েছে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, বীজ প্রত্যায়ন এজেন্সি, প্রত্যায়িত বীজ,

ট্যাগ নম্বর ৫১৭৫৪৩২,

ফসল আলু, জাত——
লট নম্বর——–
প্রত্যায়নপত্র ইস্যুর তারিখ——–
বৈধতার মেয়াদ——-
বীজের নেট ওজন———
বীজ উৎপাদনের নাম ও ঠিকানা——–
নিচে কর্তৃপক্ষ, নেই কোন স্বাক্ষর এবং ফাকা জায়গায় সিল মারা আছে বোঝার তেমন উপায় নেই। ব্র্যাকের আলু বীজ উৎপাদন শাখা দিনাজপুর(০১৭৩০-৩৪৯৮৮৬)মোবাইল নম্বরে ফোন দিয়ে প্রতি কেজি বীজের দাম, বরাদ্দের পরিমাণ, ডিলারদের বেশি দামে বিক্রি ইত্যাদি বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কোনো কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন।

উপজেলা কৃষি অফিস সুত্র জানায়, চলতি মৌসুমে উপজেলায় আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে প্রায় ১৩ হাজার হেক্টর। বীজের অতিরিক্ত দামের বিষয়ে উপজেলা কৃষি অফিসার শামিমুল ইসলামের মোবাইলে একাধিকবার ফোন দিলেও রিসিভ না করায় তাঁর কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি।এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো জানান বীজের বাড়তি দাম নিলে কৃষি অফিসারের সাথে আলাপ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।#

তানোর প্রতিনিধি

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37865157
Users Today : 356
Users Yesterday : 2663
Views Today : 2276
Who's Online : 25
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone