রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১১:৫৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
‘নিজের মাথার ওপর নিজেই বোমা ফাটানো’ এটা সম্ভব? মামুনুলের মুক্তি চেয়ে খেলাফত মজলিস নেতাদের হুশিয়ারি বাংলাদেশে করোনা টানা তৃতীয় দিনের মতো শতাধিক মৃত্যুর রেকর্ড চ্যালেঞ্জের মুখে টিকা কার্যক্রম! ৩৬ লাখ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী হেফাজতের নাশকতা ঠেকাতে সর্বোচ্চ সতর্কতা মেয়াদহীন এনআইডি দিয়ে কাজে বাধা নেই স্ত্রী বাবার বাড়ি, মাঝরাতে পুত্রবধূকে ধর্ষণ করল শ্বশুর বিদ্যুতায়িত স্ত্রীকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল স্বামীর চট্টগ্রামে ভূমিকম্প শ্রমিক হত্যার মোড় ঘোরাতে মামুনুল নাটক : মোমিন মেহেদী ওসিকে জিম্মি করে তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে এক হাজার টাকার চাঁদাবাজি মামলা  ! গাইবান্ধা পুলিশ কৃষি শ্রমিক পাঠালেন বগুড়ায় দিনাজপুর বিরামপুরে বিপুল সংখ্যক মাদকদ্রব্য সহ প্রাইভেটকার আটক দুমকিতে ডায়রিয়ায় শিশুসহ মৃত্যু ৪।

তানোরে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের উন্নয়ন চিত্র

আলিফ হোসেন,তানোর
রাজশাহীর তানোরে সাবেক শিল্প প্রতিমন্ত্রী ও সাংসদ আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধূরীর প্রচেষ্টায় আওয়ামী লীগ সরকারের প্রায় ১০ বছরে সমাজের পিছিয়ে নারীদের ভাগ্যর দৃশ্যমান উন্নয়ন হয়েছে বদলে গেছে নারী শিক্ষা, স্বাস্থ্য, চাকরি ও চিকিৎসাসহ প্রতিটি ক্ষেত্রের দৃশ্যপট। বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে নারীরা ছিল অনেকা গৃহবন্দী। কিšত্ত আওয়ামী লীগ সরকার প্রতিটি ক্ষেত্রে নারীদের অগ্রাধিকার দিয়েছে। পশ্চাদপদ, অবহেলীত ও প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠায় বদলে গেছে নারী শিক্ষার দৃশ্যপট। বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়েও এই অঞ্চলের মেয়েরা কোন রকমে প্রাথমিক বিদ্যালয় পাস করে মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি হলেও মাধ্যমিক (এসএসসি) পর্যায়ের শিক্ষা শেষ না করেই শিক্ষা জীবন শেষ করতো। কিšত্ত আওয়ামী লীগ সরকার স্নাতক পর্যন্ত বিনামূল্য পাঠ্যপুস্তক বিরতণ ও উপবৃত্তিসহ নানান সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি করায় নারী শিক্ষায় ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এছাড়াও নারীদের স্বাবলম্বী করতে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি ভিজিডি, মাতৃত্বকালীন ভাতা, কর্মজীবী লাকটেটিং মাদার সহায়তা, নারী প্রশিক্ষণ এবং ক্ষুদ্র ঋণ ইত্যাদি প্রতিটি ক্ষেত্রে করাদ্দ ও পরিধি বৃদ্ধি করা হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, তানোরে বিগত ১৯৯১ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বিএনপি-জামায়াত জোট সরবারের সময়ে ভিজিডি প্রকল্পের আওতায় ২৯৬৩ জন উপকারভোগীর মধ্যে ৫৩ লাখ ৩৩ হাজার ৪০০ টাকা বিতরণ করা হয়েছে। অথচ আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে উপকারভোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে ২০০৯ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ১৪১২৬ জন উপকার ভোগীর মধ্যে ২ কোটি ৩৯ লাখ ৯১ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে। অর্থাৎ আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে ১১১৬১ জন উপকারভোগী বৃদ্ধি ও তাদের মধ্যে ১ কোটি ৮৬ লাখ ৫৭ হাজার ৬০০ টাকা বিদরণ করা হয়েছে। বিগত ১৯৯১ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে মাতৃত্বকালীন ভাতা ছিল না। তবে ২০০৯ সাল থেকে ২০১৮ সালের মধ্যে আওয়ামী লীগ সরকার মাতৃত্বকালীন ভাতার প্রচলন করেছেন তানোরে ২৫৮৫ জন উপকারভোগীর মধ্যে ১ কোটি ৯৫ লাখ ৩৯ হাজার ৮০০ টাকার মাতৃত্বকালীন ভাতা বিতরণ করা হয়েছে। বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে কর্মজীবী ল্যাকটেটিং মাদার ভাতা ছিল না। তবে আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে কর্মজীবী ল্যাকটেটিং মাদার ভাতা কর্মসূচি চালু করা হয়েছে তানোরে ১২০০ জন উপকার ভোগীর মধ্যে কর্মজীবী ল্যাবটেটিং মাদার ভাতা কর্মসূচিতে ১ কোটি ৪৫ লাখ ৩৯ হাগার ৮০০ টাকা বিতরণ করা হয়েছে। তানোরে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে প্রতিবন্ধী ৪৩৩৯ জনকে ৪ কোটি ৮৮ লাখ ৯৫ হাজার ৩৩০ টাকা আর্থিক সহায়তা দেয়া হয়েছে। অথচ আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে প্রতিবন্ধী ভাতা উপকার ভোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি করা হয়েছে বয়স্ক, বিধবা, প্রতিবন্ধী, হরিজন ও হিজড়া ১০৬৭৬ জন উপকার ভোগীর মধ্যে ৪৭ কোটি ৫২ লাখ ১১ হাজার ৫৫০ টাকা বিতরণ করা হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে বীর মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা প্রচলন ছিল না। তবে ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার বীর মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতার প্রচলন ও মাথা পিছু ১০ হাজার টাকা করেছেন, তানোরে ৪৪ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে ৩ কোটি ১৫ লাখ ১০ হাজার টাকা সম্মানী ভাতা প্রদান করা হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে প্রতিবন্ধী, হরিজন ও হিজড়া ছাত্রছাত্রীদের উপবৃত্তি দেয়া হতো না আওয়ামী লীগ সরকার এসব ভাতার প্রচলন শুরু করেছেন। তানোরে বর্তমানে ২০১ জন প্রতিবন্ধী, হরিজন ও হিজড়া ছাত্রছাত্রীর মধ্যে ৮৯ লাখ ১৬ হাজার ৮০০ টাকা বিতরণ করা হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে চিকিৎসা, শিক্ষা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি, ক্লাব ও ২৩ জনকে ১২ লাখ ৯০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা দেয়া হয়েছে। অথচ আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে শিক্ষা, চিকিৎসা, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি, ক্লাব ও ৪৫০ জন এতিমকে ৯৭ লাখ ৮৫ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা দেয়া হয়েছে, আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে এই খাতে অতিরিক্ত ৪৩২ জনকে ৮৪ লাখ ৯৫ হাজার টাকা দেয়া হয়েছে। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়ে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গৃহ নির্মাণ বাবদ কোনো অর্থ দেয়া হতো না। আওয়ামী লীগ সরকার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গৃহ নির্মাণ বাবদ অর্থ বরাদ্দ শুরু করেছেন। তানোরে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধাকে গৃহনির্মাণ করে দেওয়া হয়েছে। সচেতন মহলের অভিমত, আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে প্রতিটি ক্ষেত্রে বৈপ্লবিক পরিবর্তন সাধিত হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

৫৫

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38450792
Users Today : 1238
Users Yesterday : 1178
Views Today : 12228
Who's Online : 21
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone