বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২১, ০৭:০৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
দেশে করোনায় ৮ মাসে সর্বনিম্ন মৃত্যু ইতালি যাওয়ার ফাঁদে সর্বস্বান্ত কলেজছাত্রী সোহানা ৪.৩ ওভারে ৫ রান দিয়ে ৩ উইকেট তুলে নিল সাকিব অল্পতেই থেমে গেলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ ওয়েস্ট ইন্ডিজকে উড়িয়ে দিলো বাংলাদেশ হারের জন্য যাদের দুষলেন ক্যারিবীয় অধিনায়ক শেখ হাসিনার উপহার গৃহহীনদের স্বপ্ন দেখাচ্ছে ,বাগেরহাটে ৪৩৩টি ঘর হস্তান্তরের অপেক্ষায় বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনের বাঘের চামড়াসহ চোরা কারবারি আটক বরিশালে শহীদ দিবস পালিত নবগঠিত গাজীপুর জেলা ভাড়াটিয়া পরিষদের আহ্বায়ক কমিটির পরিচিতি সভা তানোরে প্রতিবন্ধী স্কুলের  সভাপতির  বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ সাঁথিয়ায় এলজিইডির সড়ক নির্মাণকাজে অনিয়ম ময়মনসিংহের ত্রিশালে বাস-সিএনজি সংঘর্ষে এক নারী নিহত ৫ জন গুরুতর আহত রৌমারীতে অভিষেক অনুষ্ঠান বনাপোলে ভূয়া সিআইডি কর্মকর্তাকে আটক করেছে ইমিগ্রেশন পুলিশ

দখলমুক্ত মসজিদে চুমু খেয়ে ঢুকলেন আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম

ঢাকা : দখলমুক্ত করা মসজিদে চুমু খেয়ে ঢুকেছেন আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ। সম্প্রতি আর্মেনিয়ার কাছ থেকে দখলমুক্ত হওয়া মসজিদে ঢুকে দোয়া প্রার্থনার পাশাপাশি কোরআন শরীফ রেখেছেন। সোমবার (২৩ নভেম্বর) ২৭ বছর পর দুখলমুক্ত বিরোধীয় নাগোরনো-কারাবাখের আগদাম অঞ্চল সফরে যান বাকুর প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ। খবর ডেইলি সাবাহ।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ফাস্ট লেডি মেহরিবান আলিয়েভা। এদিন স্ত্রী আলিয়েভা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার ও ইন্সটাগ্রামে কয়েকটি ছবি পোস্ট করেন। পাশাপাশি ভিডিও আপলোড করেন। নিজস্ব যানবহনের চেপে অঞ্চলটিতে সফর করেন দেশটির প্রধান।

ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যায়, আগদামের একটি মসজিদে প্রেসিডেন্ট আলিয়েভ এবং তার স্ত্রী ও প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট মেহরিবান আলিয়েভাকে নিয়ে মসজিদে প্রবেশ করছেন। এ সময় তিনি ও তার স্ত্রী মসজিদের ফটকে চুমু খেয়ে তাতে প্রবেশ করেন। এ সময় তিনি ও তার স্ত্রী কুরআনে চুমু খেয়ে সেটি মসজিদে রাখেন।

ভিডিওতে প্রেসিডেন্ট আলিয়েভ জানান, আজারবাইজানের সেনাবাহিনী কোনো বুলেট ব্যবহার না করেই আগদাম বিজয় করেছে।

এ সময় আলিয়েভ আর্মেনিয়দের হাতে ধ্বংস হওয়া এলাকা দেখিয়ে বলেন, সমগ্র বিশ্বকে এসব দেখা উচিত। এখানে ভালো কোনো স্থাপনা নেই। সব আর্মেনিয়রা ধ্বংস করে ফেলেছে।

সাবেক সোভিয়েতভুক্ত দুই দেশের মধ্যে নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে যুদ্ধ চলে আসছে বহু আগে থেকেই। ১৯৯১ সোলে আর্মেনিয়া যখন নাগোরনো-কারাবাখ দখল করলে দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ শুরু হয়। ওই যুদ্ধে ৩০ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চলটি আন্তর্জাতিকভাবে আজারবাইজানের ভখণ্ড হিসেবে স্বীকৃত।

পরে চুক্তির মাধ্যমে যুদ্ধ বন্ধ হলেও সর্বশেষ ২৭ সেপ্টেম্বর আবারো দুই দেশ যুদ্ধে জড়ায়। পরে আর্মেনিয়া গত ১০ নভেম্বর রাশিয়ার মধ্যস্থতায় আজারবাইানের সঙ্গে চুক্তি করতে বাধ্য হয়।

৪৪ দিন চলা এই যুদ্ধে বাকু ৩০০টির বেশি বসতি ও এলকা দখলমুক্ত করে। চুক্তিটি আজারবাইজানের জয় ও আর্মেনিয়ার পরাজয়ের দলিল হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। এ চুক্তিটিকে তুরস্ক সমর্থন জানিয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38162581
Users Today : 641
Users Yesterday : 5456
Views Today : 2376
Who's Online : 17
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone