শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ০১:৩০ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
যে বিষয়গুলো পড়লে প্রাথমিকে চাকরি নিশ্চিত! ৩ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে বসেই বেতন নিচ্ছেন প্রধান শিক্ষক দূর্ঘটনা কবলিত ব্যবসায়ীর খোয়া যাওয়া ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করে ফেরত দিলেন গৌরনদী হাইওয়ে থানার ওসি জিকে শামীম জামিন ,ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রুপাকে দুদকে তলব নিখোঁজ সংবাদ দিনাজপুরের বিরামপুরে ৫ম জাতীয় বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত শিবগঞ্জে সিরাতুন্নাবী (সাঃ) পালিত ফ্রান্সে মহানবীকে অবমাননা করার প্রতিবাদে ছাতকে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত || তালতলীতে ভূমি অফিস পরিদর্শনে ডিএলআরসি : এলডি ট্যাক্স সফটওয়ারের পাইলটিং কার্যক্রম বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ রামগতিতে বিদ্যুৎস্পর্শে কিশোরের মৃত্যু বাড়ির আঙিনায় মাটিচাপা দেয়া ছিলো স্বামী-স্ত্রী ও ছেলের লাশ ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ: শিক্ষামন্ত্রী পঞ্চগড়-তেঁতুলিয়া অঞ্চলে ১ হাজার লোকের বিনামূল্যে বিএমডি স্ক্রিনিং সম্পন্ন ভ্রমণ বিলাসী মন, বাইকে চড়ে রাজশাহী থেকে টাঙ্গাইল  বহুতলা ভবন থেকে পড়ে সাভারে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত‍্যু

দুই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির দায়িত্বে রেজিস্ট্রার, ক্ষোভ-বিক্ষোভ অসন্তোষ

দেশের দুটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর পরবর্তী উপাচার্য নিয়োগ না দেওয়া পর্যন্ত রেজিস্ট্রারকে উপাচার্যের রুটিন দায়িত্ব পালন করতে আদেশ জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে একজন রেজিস্ট্রার বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নন। শিক্ষক নন এমন কর্মকর্তাকে উপাচার্যের রুটিন দায়িত্ব প্রদান করায় বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ফুঁসে উঠেছেন। শিক্ষকদের মধ্যে এ নিয়ে অসন্তোষও বিরাজ করছে। শিক্ষক সমিতির ব্যানারে এমন সিদ্ধান্তের নিন্দা ও প্রতিবাদও জানিয়েছেন তারা।

তথ্যমতে গত ১৪ আগস্ট থেকে শূন্য রয়েছে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের পদ। গত ২০ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার শেখ রেজাউল করিমকে উপাচার্যের রুটিন দায়িত্ব দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এ ছাড়া গাজীপুরে ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে গত ২৩ সেপ্টেম্বর রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান চৌধুরীকে উপাচার্যের দৈনন্দিন দায়িত্ব পালনের আদেশ দিয়েছে মন্ত্রণালয়। শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক নন এমন রেজিস্ট্রারকে উপাচার্যের দায়িত্ব দেওয়ার পরপরই সারা দেশের শিক্ষকদের মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, রেজিস্ট্রারকে উপাচার্যের দায়িত্ব দেওয়ায় শিক্ষকদের ব্যক্ত প্রতিক্রিয়া অত্যন্ত যুক্তিসঙ্গত। শিক্ষক ছাড়া অন্য কাউকে এক দিনের জন্যও কাউকে উপাচার্যের দায়িত্ব দেওয়া উচিত নয়। বিশ্ববিদ্যালয়ে অনেক অধ্যাপক রয়েছেন, তাদের মধ্য থেকে কাউকে দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে। কর্মকর্তাকে কেন উপাচার্যের দায়িত্ব দেওয়া হলো তা আমার বোধগম্য নয়। অতীতে এমন হয়েছে বলেও আমার জানা নাই। একজন কর্মকর্তা উপাচার্য পদে আসীন হবেন আর শিক্ষকরা তার অধীনে দায়িত্ব পালন করবেন এটি শিক্ষকদের জন্য অত্যন্ত অবমাননাকর।

তিনি আশা করেন, অতি দ্রুত সেই কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করে স্থায়ী একজন উপাচার্য নিয়োগ দিয়ে এ অবমাননাকর পরিস্থিতি থেকে শিক্ষকদের উদ্ধার করা হবে।

জানা গেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, চুয়েট শিক্ষক সমিতি, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ প্রায় ৩০টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি সংগঠনের প্যাডে লিখিত প্রতিবাদ জানিয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি বলছে, শেকৃবির রেজিস্ট্রার শেখ রেজাউল করিমকে প্রশাসনিক কর্মকর্তা-শিক্ষক নন। একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে উপাচার্যের দায়িত্ব দেওয়ার ঘটনা কখনোই ঘটেনি। উচ্চশিক্ষা ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে এটি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের চরম অবহেলার একটি দৃষ্টান্ত। এধরনের পদক্ষেপের ফলে উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে বিশৃঙ্খলা তৈরির আশঙ্কা রয়েছে।

প্রতিবাদে আরো বলা হয়, শিক্ষকদের মর্যাদা নিশ্চিত করে ১৯৭৩ সালে যেসব আদেশ/অধ্যাদেশ জারি করা হয়েছিল তা সমুন্নত রাখা আমাদের সবার দায়িত্ব। এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে সংশ্লিষ্ট সবাইকে যত্নবান থাকতে হবে। একই সঙ্গে শেকৃবি শীর্ষ পদে দ্রুত নিয়োগ দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাভাবিক কার্যক্রমের পরিবেশ নিশ্চিত করার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি।

শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির প্রতিবাদে বলা হয়, রেজিস্ট্রার শেখ রেজাউল করিমকে যে উপাচার্যের রুটিন দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তাতে শিক্ষকরা বিব্রতবোধ করছেন। স্বল্প সময়ের মধ্যে একাডেমিক, প্রশাসনিক ও রাজনৈতিক প্রজ্ঞাসম্পন্ন শিক্ষককে উপাচার্য হিসেবে নিয়োগের দাবি জানিয়েছে শিক্ষক সমিতি।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি প্রতিবাদলিপিতে বলেছে, রেজিস্ট্রারকে দায়িত্ব প্রদান শুধু বিশ্ববিদ্যালয়ের ধারণার সঙ্গেই অসঙ্গতিপূর্ণ নয়, একই সঙ্গে তা বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ এমনকি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের চেতনাবিরুদ্ধ। এর মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় চ্যান্সেলর ও রাষ্ট্রপতির সম্মানও মারাত্মকভাবে ক্ষুণœ হয়েছে। এমন দায়িত্ব প্রদান উচ্চশিক্ষা ব্যবস্থাকে অধঃপতনের দিকে নিয়ে যাবে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি বলছে, রেজিস্ট্রার শেখ রেজাউল করিমের নিয়োগাদেশ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বায়ত্তশাসন ও মর্যাদার সম্পূর্ণ পরিপন্থী।

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি প্রতিবাদ লিপিতে উল্লেখ করেছে- রেজিস্ট্রার বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তা। কর্মকর্তার পক্ষে উপাচার্যের দায়িত্ব পালন সম্ভব না।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির প্রতিবাদে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করবেন একজন প্রথিতযশা শিক্ষাবিদ যিনি তার দক্ষ নেতৃত্বে জ্ঞান সৃজন ও বিতরণের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়কে কাঙ্ক্ষিত উচ্চতায় নিয়ে যেতে পারবেন। উপাচার্য পদে একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে নিয়োগ বিশ্ববিদ্যালয়ের ধারণা ও স্বায়ত্তশাসনের সাথে সম্পূর্ণ অসংগতিপূর্ণ ও সাংঘর্ষিক।

এছাড়া এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ও অনুপোযুক্ত নিয়োগের আদেশ অনতিবিলম্বে প্রত্যাহার করে একজন স্বনামধন্য শিক্ষাবিদকে শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পদে নিয়োগ প্রদানের দাবি জানান শাবি শিক্ষক সমিতির নেতৃবৃন্দ।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি বলছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ধারণা ও স্বায়ত্তশাসনের মর্মবাণী অনুযায়ী উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সর্বোচ্চ পদগুলোতে শিক্ষকদের আসীন করাই প্রত্যাশিত ও স্বাভাবিক। কিন্তু শিক্ষা মন্ত্রণালয় পরবর্তী উপাচার্য নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার শেখ রেজাউল করিমকে উপাচার্যের রুটিন দায়িত্ব দিয়েছে। রেজিস্ট্রার পদে কর্মরত একজন কর্মকর্তাকে উপাচার্যের দায়িত্ব (রুটিন দায়িত্ব) দেয়াতে আমরা বিস্মিত, মর্মাহত ও ক্ষুব্ধ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বা অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক পদগুলোর মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার আগে থেকেই যথাসময়ে পদগুলো পূরণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ না করার ঘটনা ইতোপূর্বেও ঘটেছে। যা দেশের সর্বোচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের চরম অবজ্ঞা এবং দায়িত্বহীনতার পরিচয় বলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি মনে করে।

শিক্ষক নেতারা বলেন, আমরা শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে উপাচার্যের রুটিন দায়িত্ব দেয়ার সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। পাশাপাশি উপাচার্যসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক পদগুলোতে নিয়োগে দীর্ঘসূত্রিতা পরিহার করতে সংশ্লিষ্টরা আরও উদ্যোগী হবেন বলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি আশা করে।

শেকৃবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান বলেন, উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর রেজিস্ট্রারকে উপাচার্যের রুটিন দায়িত্ব পালন করতে দেওয়াটা মোটেই শোভনীয় নয়। এ বিষয়ে আমাদের শিক্ষক সমিতির একটি মিটিং হবে এবং মিটিংয়ের সিদ্ধান্ত সচিব বরাবর জানানো হবে। যাতে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. লুৎফর রহমান বলেন, রেজিস্ট্রারকে উপাচার্যের চলতি দায়িত্ব দিয়ে যে আদেশ জারি করা হয়েছে তা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বায়ত্তশাসনের পরিপন্থী। এর ফলে শিক্ষকসহ জনমনে যে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে আমি মনে করি দ্রুত সরকার নিয়মিত উপাচার্য নিয়োগ দিয়ে এ পরিস্থিতির অবসান করবে।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, রেজিস্ট্রারদের উপাচার্যের সাময়িক যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এটি শিক্ষকরা মানবেন না এটাই স্বাভাবিক। অতীতে কোনো কর্মকর্তাকে এমন দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে মনে হয় না। আমি মনে করি দ্রুত নিয়মিত উপাচার্য নিয়োগ দিলে শিক্ষকদের মধ্যে যে প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হচ্ছে তার অবসান হবে।

শেকৃবির রেজিস্ট্রার ও বর্তমানে অন্তর্বর্তীকালীন ব্যবস্থা হিসেবে উপাচার্যের রুটিন দায়িত্বপ্রাপ্ত শেখ রেজাউল করিম বলেন, মন্ত্রণালয় থেকে আমাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আমাকে কেন দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে সেটা মন্ত্রণালয়ই ভালো জানে। আমাকে যতদিন দায়িত্ব রাখা হবে, আমি ততদিন আমার দায়িত্ব পালন করে যাব।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37709481
Users Today : 5693
Users Yesterday : 7504
Views Today : 13206
Who's Online : 39
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone