সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৪:৪৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
অজুহাত দেখিয়ে মে’য়েরা বিয়ের প্রস্তাবে ল’জ্জায় গো’পনে ১০টি কাজ করে তামিমা স’ম্পর্কে এবার চা’ঞ্চল্যকর ত’থ্য দিল তার মেয়ে তুবা নিজেই ছে’লে: “বাবা তুমি তো বলেছিলে পিতৃ ঋণ কোনদিন শোধ হয় না গবেষণা করতে গিয়ে ইসলাম গ্রহণ করলেন পাঁচ সন্তান নিয়ে কানাডিয়ান নারী স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে ‘শেষ চিঠি’ নিয়ে আসছে ইয়াশ-দীঘি রিতেশ আমাকে বিয়ে করতে চেয়ে আর আসেনি: রাখি স্থানীয় সরকার নির্বাচনে আর অংশ নেবে না বিএনপি নওগাঁর মহাদেবপুরে সাংবাদিকদের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত সুইস ব্যাংকে কার কত টাকা, তালিকা চেয়েছেন হাইকোর্ট প্রাক প্রাথমিক ছাড়া সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ৩০ মার্চ খোলা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললে কোন শ্রেণির কতদিন ক্লাস? তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা কুড়িগ্রামে বর্ণিল কর্মসূচির মধ্য দিয়ে এসএসসি ব্যাচ ‘৮৬র সম্মেলন সমাপ্ত সুন্দরবন ম্যানগ্রোভ  পক্ষ থেকে ৫ গুনি ব্যক্তিকে স্বঃস্বঃ কর্মক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা প্রদান পাবনায় ডিসিআই-আরএসসি ও ফারাজ হোসেন ফাউন্ডেশন’র যৌথ উদ্যোগে ‘বিনামূল্যে চক্ষু শিবির’ অনুষ্ঠিত

দুদকের হাতে গ্রেফতার কৃত পবিপ্রবির প্রকৌশলী সাময়িক বরখাস্ত

সুমন মৃধা দুমকি (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি: উন্নয়ন প্রকল্পের টেন্ডারে অনিয়ম ও অর্থ আত্মসাতের মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর জেল হাজতে থাকা পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) তত্ত্ববাবধায়ক প্রকৌশলী মো: ইউনুচ শরীফকে অবশেষে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গত ১০ সেপ্টেম্বর বিকেল ৩টায় অর্থ আত্মসাতের মামলায় পবিপ্রবি’র তত্ত্ববাবধায়ক প্রকৌশলী মো: ইউনুচ শরীফকে তার কার্যালয় থেকে আটক করে দুদক। পটুয়াখালী সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো: মোজাহার আলী সরদারের নেতৃত্বে দুদকের একটি টিম তাকে গ্রেফতার করে জেলা দুদক কার্যালয়ে নিয়ে যায়। পরে তাকে অর্থ আত্মসাতের দায়েরকৃত মামলায় ফেতার দেখিয়ে কোর্টে সোপর্দ করা হয়। রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) পবিপ্রবি’র রেজিষ্ট্রার অধ্যাপক ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে কর্তৃপক্ষ এ সাময়িক বরখাস্তের আদেশ জারি করে।
ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, ৫৩ লাখ ৫০ হাজার ৩৯০ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) তত্ত্ববাবধায়ক প্রকৌশলী মো: ইউনুচ শরীফের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। তিনি ২০১৬ সালের ২১ জুন থেকে ২০১৭ সালের ৩০ জুনের মধ্যে এ টাকা আত্মসাৎ করেন। মামলার এজাহারে ইউনুচের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬টি প্রকল্পের দরপত্র নিয়ে জালিয়াতি, প্রতারণা ও ক্ষমতার অপব্যবহারের অভিযোগ আনা হয়েছে। মামলাটি তদন্ত করছেন জেলা সমন্বিত দুদক কার্যালয়ের উপপরিচালক মো: মোজাহার আলী সরদার।
পবিপ্রবি’র রেজিষ্ট্রার অধ্যাপক ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত তত্ত্ববাবধায়ক প্রকৌশলীকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

 

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38340320
Users Today : 3651
Users Yesterday : 0
Views Today : 12177
Who's Online : 60
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/