সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৩:০০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
কোন বৌদিকে পটাতে হলে জিজ্ঞাস করুন এই কথাগুলি, সে আপনার ওপর দুর্বল হয়ে উঠবে নারী স্বামীর সম্পত্তি নয় যে অনিচ্ছা সত্ত্বেও একসঙ্গে থাকতে হবে পুলিশের নিয়োগ পরীক্ষায় ব্যাপক পরিবর্তন মদ্যপ স্ত্রী মিলনে রাজি না হওয়ায় স্বামীর গোপনাঙ্গ কর্তন নানা আয়োজনে খানসামা উপজেলায় ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ জাতীয় দিবস পালন ভাষণ দিবস আছে, কিন্তু বাস্তবায়ন নেই : মোমিন মেহেদী বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন মধ্য দিয়ে ইসলামপুরে ৭মার্চ উদযাপন প্রাইমএশিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ-২০২১ উদ্যাপন সাঁথিয়ায় ৭ ই মার্চ পালিত আত্রাইয়ে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালন ১লক্ষ পিচ কোরআন বিতরণে অনুষ্ঠানে সাংবাদিক রাসেলকে সম্মাননা স্মারক উপহার দিলেন দেশসেরা উদ্ভাবক মিজান বাংলাদেশের সকল মাদ্রাসায় দেশসেরা উদ্ভাবক মিজান পৌছে দিবে ১লক্ষ পিচ পবিত্র আল-কোরআন রাজারহাটে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালিত বড়াইগ্রামে যথাযোগ্য মর্যাদায় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ পালন সাপাহারে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চে থানা পুলিশের আনন্দ উদযাপন

নলছিটিতে বকেয়া ঋণের টাকা চাওয়ায় ব্যাংক ব্যবস্থাপককে হুমকি

বরিশাল ব্যুরো \
ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার নাচনমহলে সোনালী ব্যাংকের শাখা ব্যবস্থাপককে হুমকি দিচ্ছে ঋণ জালিয়াতি চক্র। বকেয়া ঋণের টাকা চাওয়ায় বৃহস্পতিবার এ চক্রের কয়েকজন মিলে শাখা ব্যবস্থাপক আসাদুজ্জামান মোল্লাকে হুমকি দেয়। এ ঘটনায় তিনি নলছিটি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।
অভিযোগে জানা যায়, সোনালী ব্যাংক নাচনমহল শাখায় ১২ কোটি টাকা ঋণ খেলাপী রয়েছে সারে চার হাজার গ্রাহক। ঋণ জালিয়াতি একটি চক্র ব্যংক থেকে ঋণ নিয়ে তা পরিশোধ করছেন না। এ চক্রটির প্রধান রানাপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিজাম উদ্দিন খান ওরফে বিনু মাষ্টার। এছাড়াও এ চক্রের সঙ্গে রয়েছে স্থানীয় ব্যবসায়ী রাজ্জাক হাওলাদার, মাসুদ আলম, মো. আলমগীর ও রাসেল তালুকদার। এরা বিভিন্ন অসংখ্য মানুষকে ভুল বুঝিয়ে তাদের মাধ্যমে ব্যাংক থেকে ঋণ গ্রহণ করে। ঋণ গৃহিতাকে অর্ধেক টাকা দিয়ে বাকি টাকা এই চক্রটি আতœসাত করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। চক্রের সঙ্গে জড়িতরাও ব্যাংক থেকে মোটা অঙ্কের ঋণ নিয়ে তা পরিশোধ না করে নানা টালবাহানা শুরু করেছেন। ব্যাংকটির শাখা ব্যবস্থাপক আসাদুজ্জামান মোল্লা খেলাপী ঋণের টাকা চাইতে গেলে চক্রটি তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করেছেন। এমনকি তাকে প্রকাশ্যে ও মোবাইলফোনে হুমকি দিচ্ছে। এ ঘটনাায় তিনি নলছিটি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।
শাখা ব্যবস্থাপক আসাদুজ্জামান মোল্লা বলেন, ব্যাংকের শাখাটি রক্ষার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি, কিন্তু বকেয়া ঋণ পরিশোধ করছেন না গ্রাহকরা। স্থানীয় একটি ঋণ জালিয়াচি চক্র প্রভাব বিস্তার করে ঋণ দিচ্ছে না। এতে প্রায় ১২ কোটি টাকা বকেয়া হয়ে গেছে। আমি বকেয়া টাকা চাইতে গেলে, তারা আমাকে নানা ধরণের ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন। আমাকে মেরে তাড়িয়ে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করছেন। আমি থানায় একটি জিডি করেছি।
এ ব্যাপারে নিজাম উদ্দিন খানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মুঠোফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।
নলছিটি থানার ওসি মো. সাখাওয়াত হোসেন বলেন, জিডি তদন্ত করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিস্তারিত জানার পরে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38368959
Users Today : 581
Users Yesterday : 2978
Views Today : 1782
Who's Online : 24
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/