রবিবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৫:৩১ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সেদিন আমি স্নানও করিনি, যদি ওই অবস্থায় দেখে ফেলে! ময়মনসিংহের ত্রিশালে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় প্রতিবাদ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত স্বপ্নকে বাস্তবে রুপ দেয় আ’লীগ সরকার-গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী খোলামেলা ফটোশুট করে সমালোচনার শিকার নুসরাত বগুড়া জেলা পুলিশের জালে আটক হয়েছে এক বিস্ময়কর বালক! শৈত্যপ্রবাহমুক্ত দেশ ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস আজ মাথাপিছু ১০ হাজার টাকা ব্যয়ে তৈরি হবে ৪০ হাজার দক্ষ চালক স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি নির্বাচিত হলেন চট্টগ্রামের ড. জমির উদ্দিন সিকদার — নওগাঁর মহাদেবপুরে পরিযায়ী পাখি ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণে সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক সভা অনুষ্ঠিত তিন শতাধিক অসহায়-গরীব শীতার্তদের পাশে দিনাজপুরস্থ খানসামা উপজেলা সমিতি মার্চ ফর ডেমোক্রেসির ৩৯তম দিনে মানিকগঞ্জে হানিফ বাংলাদেশী যশোরে একাধিক মাদক মামলার আসামী বৃষ্টি ইয়াবাসহ আটক আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জোতবানি ইউনিয়নে পূনরায় ধাঁনের শীষ প্রতিক প্রত্যাশী-চেয়ারম্যান আঃ রাজ্জাক করোনার এই মহামারিকালে এলপিজি গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে মানববন্ধন

নেত্রকোনা কয়েক দফা বন্যার পরও আমন ধানের বাম্পার ফলন

 

কৃষ্ণ কুমার শুভ, নেত্রকোনা জেলা প্রতিনিধি : কয়েক দফা বন্যায় নেত্রকোনার
নিন্মাঞ্চল গুলোতে আমন ধানের ক্ষতি হলেও উচু এলাকায় বাম্পার ফলন হয়েছে। হাট-
বাজারগুলোতে ধানের দাম ভালো পাওয়ায় ক্ষতি পুষিয়ে কৃষকেরা লাভের মুখ দেখছেন।
কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, আমন মৌসুমে নেত্রকোনা জেলায়
১ লক্ষ ৩৪ হাজার ৬ শত ২৫ হেক্টর জমিতে আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়। চাল
উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয় ৩ লক্ষ ৫২ হাজার ৮ শত ১৭ মেট্রিক টন।
কয়েক দফা বন্যায় নেত্রকোনা জেলার নিন্মাঞ্চলের প্রায় ১০ হাজার ১ শত ৯০ হেক্টর
জমির আমন ধানের চারা পানিতে তলিয়ে ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি সাধিত হয়। এতে প্রায়
অর্ধশত কোটি টাকারো বেশী ফসল বিনষ্ট হয়। তারপরও নেত্রকোনা সদর, কেন্দুয়া,
আটপাড়া, মদন, বারহাট্টা, পূর্বধলা, দুর্গাপুর, কলমাকান্দা ও মোাহনগঞ্জ
উপজেলার উচু এলাকাগুলোতে আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে।
অগ্রহায়নের প্রথম দিন থেকেই নেত্রকোনা জেলার কৃষকরা আমন ধান কাটতে শুরু
করেছে। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কৃষকরা মাঠে ধান কাটা, মাড়াই ও শুকাতে
ব্যস্ত সময় পাড় করছে। হাট-বাজারগুলোকে কৃষকরা ধানের ভালো দাম পাওয়ায় বন্যার
ক্ষয় ক্ষতি কাটিয়ে লাভের মুখ দেখার আশা করছে।
দুর্গাপুর উপজেলার চন্ডিগড় গ্রামের কৃষক তাজুল হক জানান, এবার আমাদের
জমিতে ধানের ফলন ভাল হয়েছে। শনিবার স্থানীয় বাজারে ১ হাজার ৮০ টাকা মন ধরে
১০ মন ধান বিক্রি করেছি।
নেত্রকোনা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ হাবিবুর রহমান বলেন,
বর্তমান সরকার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ প্রত্যেক কৃষকের হাতে প্রনোদনা তুলে
দিয়েছে। এছাড়াও কৃষকরা তাদের উৎপাদিত ফসলের ন্যায্যমূল্য পাওয়ায় আগামীতে
কৃষকরা আরো বেশী করে কৃষি কাজে উৎসাহিত হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38182034
Users Today : 2677
Users Yesterday : 4022
Views Today : 11129
Who's Online : 38
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone