বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৫৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ধর্ষণের ঘটনা মীমাংসায় সালিশ কেন অপরাধ নয়: হাইকোর্ট সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ দেশে ফেরামাত্র পি কে হালদারকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ করোনায় আরো ২৪ মৃত্যু, শনাক্ত ১৫৪৫ নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের জন্য গণচাঁদা চাইলেন নুর নিয়ন্ত্রণহীন নিত্যপণ্যের বাজার, দায় এড়াচ্ছে কর্তারা নির্বাচন কমিশন আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনে পরিণত হয়েছে: ফখরুল চট্টগ্রামে এসিল্যান্ডের গাড়িতে ককটেল হামলা বন্ধুর স্ত্রীকে ধর্ষণের ভিডিও পর্নোসাইটে, বিএনপি নেতা গ্রেপ্তার সরাসরি ভর্তি পরীক্ষা নিবে ঢাবি উপ-নির্বাচনে জিতলেন ওবায়দুল কাদেরের ‘স্বাক্ষর জালের আসামি’ মাদকে ক্রসফায়ার, ধর্ষণে পুরষ্কার ইসলামপুরে ব্যবসায়ীদের সাথে উপজেলা প্রশাসনের মত বিনিময় কুষ্টিয়ার যে বাজারে দুই কোটি টাকার সবজি কেনাবেচা প্রতিদিন আলুর দর -৩০  রৌমারীতে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সেলিমের বিরুদ্ধে অপপ্রচার : এলাকাবাসীর প্রতিবাদ  বিশ্ববিদ্যালয় কেন খোলা হবে না ?

প্রায় দেড় কোটি বছর আগের গিবনের দাঁত নিয়ে রহস্য

গিবন বানর শ্রেণির একটি প্রাণী। আবার ভাল্লুক নাকি এই গিবনেরই একটি গোত্র। বহু বছর আগেই এটি বিলুপ্ত হয়েছে। তবে মাঝে মাঝে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দেখা মেলে এর। তবে ভারত কিংবা এশিয়া মহাদেশে এর দেখা মিলেছে খুব কমই।

তবে বিজ্ঞানীরা বেশ আটঘাট বেঁধেই নেমেছেন এর আদ্যোপান্ত খুঁজতে। কেননা প্রমাণ মিলেছে প্রায় এক কোটি ৩০ লাখ বছর আগে এর অস্তিত্ব ছিল ভারতেই। তেমনটাই অনুমান তাদের। ভেবছেন কেন এমনটা অনুমান করছেন বিজ্ঞানীরা। প্রাচীন জীবাশ্মই জানান দিল একটি অজানা এপ প্রজাতির বিষয়ে। যা এখনকার গিবনের প্রাচীনতম পূর্বপুরুষ বলেই মনে করছেন তারা। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার ট্রপিক্যাল বনাভূমিতে এদের অস্তিত্ব ছিল একসময়।

মানুষের সঙ্গে এদের বেশ সদভাব

মানুষের সঙ্গে এদের বেশ সদভাব

কারণ ২০১৫ সালে ভারতের উত্তরাখণ্ডের রামনগরে খুঁজে পাওয়া যায় গিবনের জীবাশ্ম। উত্তরাখণ্ডের ওই অঞ্চলে এটি প্রায় এক শতাব্দীতে আবিষ্কৃত প্রথম এপের প্রজাতি। বিজ্ঞানীরা অজানা এই প্রাণীটির নামকরণ করেছেন ‘কাপি রামনগেরেনসিস’। এখন পর্যন্ত পাওয়া প্রাচীনতম গিবনের জীবাশ্মের থেকেও ৫০ লাখ বছর আগে এদের বিচরণ ছিল বলেই আভাস পাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা।

খুঁজে পাওয়া গিবনের দাঁত

খুঁজে পাওয়া গিবনের দাঁত

আরো পড়ুন: মাশরুমের কফিন বানিয়ে বিশ্বকে তাক লাগালো ২৩ বছরের তরুণভাবছেন, তাহলে এখন কেন এত গবেষণা। মূলত জীবাশ্মটি প্রাণীর নিচের পাটির মোলার দাঁত। প্রাণীটির যে অস্তিত্ব বহু আগেই হারিয়ে গিয়েছে, তা বুঝতে অসুবিধা হয়নি গবেষকদের। অধ্যায়ন এবং বিশ্লেষণের জন্য তোলা হয়েছিল ছবি, করা হয়েছিল সিটি-স্ক্যানও। তারপর সেই তথ্যগুলোকেই এপ-গোত্রীয় জীবিত এবং বিলুপ্ত প্রাণীদের সঙ্গে মিলিয়ে দেখেন বিজ্ঞানীরা। শেষ পর্যন্ত আবিষ্কারের পাঁচ বছর পর বিজ্ঞানীরা সিদ্ধান্তে উপনীত হন, সম্পূর্ণ অজানা প্রজাতি ও গণের জীব ছিল এটি।

সন্তানের দেখভাল করাই স্ত্রী গিবনের কাজ

সন্তানের দেখভাল করাই স্ত্রী গিবনের কাজ

প্রাইমাটোলজিস্ট এবং গবেষকরা এই জীবাশ্মটির মাধ্যমেই খুঁজে পেয়েছেন এপ-গোত্রীয় প্রাণীদের বিবর্তনের নতুন তথ্য। জানিয়েছেন, এই প্রাণীটি থেকেই দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় গিবন-সহ অন্তত ২০টি এপ-প্রজাতির প্রাণীর বিবর্তন ঘটেছে। আফ্রিকা থেকে এশিয়ায় কীভাবে আগমন ঘটেছিল এপের তাও জানান দিতে পারে এই জীবাশ্ম, মনে করছেন গবেষকরা।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37634473
Users Today : 2593
Users Yesterday : 5388
Views Today : 8811
Who's Online : 19
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone