শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০১:২৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মিতু হত্যা: আসামিদের পালানো ঠেকাতে জারি হচ্ছে সতর্কতা বরিশালে বিএনপির পক্ষ থেকে ঈদ সামগ্রী বিতরণ তানোর উপজেলা চেয়ারম্যানের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদের শ্যামনগর উপজেলা শাখার কমিটি গঠন  বঙ্গবন্ধুর পূর্ব বংশধর আল্লাহর  ওলি ছিলেন- ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল এমপি প্রেসবিজ্ঞপ্তি -ফিলিস্তিনের হত্যাকান্ডের জন্য জংগী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী  হামাস দায়ী- অবিলম্বে ইজরাইল”কে স্বীকৃতি দিন —কমরেড সামাদ  ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের হামলার প্রতিবাদে বায়তুল মোকাররমে বিক্ষোভ পিতা-মাতার ভরণ-পোষণ আইন ২০১৩ ও শাস্তি? ১২ বছর ভোগদখলে প্রতিকার না চাইলে তামাদি আইনে জমির মালিক তানোরে শিব নদী পাড়ে বিনোদন প্রেমীদের ভিড় ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চেয়ারম্যান ইয়াকুব আলী কুড়িগ্রামে ঐক্য যুব ফোরাম ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদের পোষাক বিতরণ বিশ্ব ঐতিহ্য ষাটগম্বুজ মসজিদে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত ঈদের দিনেও ইসরাইলি বর্বরতা থেকে রেহাই পায়নি ফিলিস্তিনিরা সারা দেশে উদযাপন করা হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর

বাজারে উঠতে শুরু করেছে আগাম শীতকালীন সবজি

অল্প খরচের বেশি লাভ হওয়ায় সবজি চাষে আগ্রহ বাড়ছে ফুলবাড়ীর কৃষকদের

দিনাজপুর প্রতিনিধি;
দিনাজপুরের ফুলবাড়ী বাজারে উঠতে শুরু করেছে নানান আগাম শীতকালীন সবজি, আগাম শীতকালীন সবজি ক্ষেত পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষিরা। এরই মধ্যে অনেকেই বিক্রি করেছেন ক্ষেতের সবজি, দামও বেশ ভালো পেয়েছেন। খরচের তুলনায় লাভ অনেক বেশি হওয়ায় আগাম শীতকালীন সবজি চাষে আগ্রহ বাড়ছে এ এলাকার কৃষকদের।
ফলে প্রতি বছরই চাষিরা ঝুঁকছেন আগাম সবজি চাষের দিকে। দিগন্তজুড়ে সবুজের সমারোহ আর কৃষকের মনের সবুজ স্বপ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কঠোর পরিশ্রম করে উৎপাদিত শীতকালীন আগাম সবজি হাট-বাজার গুলোতে উঠতে শুরু করায় কমতে শুরু করেছে সবজির দাম। সবজি কিনতে ফুলবাড়ীর বাজারে ভিড় করেছেন জেলা শহরগুলোর পাইকাররাসহ স্থানীয়রা।
প্রতিদিন এ উপজেলার সবজি যাচ্ছে বিভিন্ন হাট বাজারে। আগাম শীত কালীন সবজি চাষ করে বাজারে বিক্রি করে কৃষকও বেশ ভাল দাম পাচ্ছেন। ফলে কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে। সেইসাথে কাকডাকা ভোর থেকে জমে উঠেছে এই আগাম শীতকালীন সবজির বাজার।উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়,এবছর মোট ৩৫০হেক্টর জমিতে আগাম জাতের সবজি চাষ হয়েছে যা থেকে ফলন হবে প্রায় ৮.৫০ মেট্রিক টন সবজি।
এদিকে ফুলবাড়ী পাইকারী সবজির বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ভোর থেকে শত শত কৃষক তাদের উৎপাদিত আগাম জাতের শাকসবজি নিয়ে বাজারে বিক্রি করার জন্য আসছেন। কেউ এনেছেন লাউ, কেউ বরবটি, শিম, করলা, লাল শাক, মুলা, শিম, টমেটো, ফুলকপি, বাধাঁকপিসহ শীতকালীন আগাম শাক সবজি। আর বিভিন্ন এলাকা থেকে শাকসবজি কেনার জন্য বাজারে ভিড় করছেন সাধারণ ভোক্তাসহ পাইকাররা। এখানকার সবজি গুণে মানে ভালো হওয়ায় সারাদেশে এই সবজির চাহিদা রয়েছে। সকাল ৭টা থেকে শুরু করে এই সবজির বাজার চলে ১০টা পর্যন্ত। এরপর ভ্যান বোঝাই করে সবজি চলে যায় উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ছোট-বড় বাজারগুলোতে ।
পৌর বাজারের পাইকারী আড়ৎগুলোতে ফুলকপি ৩০ টাকা, মূলা ২০টাকা, পেঁপে ১৫টাকা,বাঁধাকপি ৩০টাকা, প্রতি পিস লাউ ২০-৩০ টাকা। ধনিয়া পাতা কেজি প্রতি ৮০-১০০ টাকা, শিম ৮০ টাকা,টমেটো ১২০ টাকা,গাজর ১২০ টাকা,বরবটি ৪০ টাকা, ঢেঁড়স ৩০ টাকা, মিষ্টি লাউ ৫০-৬০ টাকা, লাল শাক ২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে এসব সবজির দাম কিছুটা কমেছে বলেই জানালেন খুচরা ও পাইকারী ক্রেতারা। এসময় কথা হয় ফুলবাড়ী বাজারের কাঁচামাল ব্যবসায়ী শাহাজামালের সাথে তিনি বলেন,আগাম শীতকালিন সবজি বাজারে উঠার কারনে ক্রেতারা নতুন সবজি পেয়ে সাচ্ছন্দের সাথে নতুন সবজি কিনছে,তাই চাহিদাও রয়েছে বেশ। সবজির দামও কিছুটা কমতে শুরু করেছে।
কৃষ্ণপুর গ্রামের রমজান আলী বলেন,আমি দেড় বিঘা জমিতে মূলা চাষ করেছি। আগাম চাষ করা সবজিগুলো বিক্রি করে লাভের মুখ দেখছি তাই বেশ ভালো লাগছে। একই কথা জানান,শহিদুল ইসলাম তিনি দুই বিঘা জমিতে বাঁধাকপির ১২ হাজার চারা রোপণ করেছিলেন,দুই সপ্তাহ আগে থেকে বিক্রিও শুরু করেছেন । তবে দুই বিঘা জমিতে তার খরচ ৬০ হাজার টাকা হলেও তিনি কমপক্ষে এক লাখ ২০ হাজার টাকার বাঁধাকপি বিক্রি করবেন এমনটাই আশা করছেন তিনি। একইভাবে কৃষক মোজাফ্ফর রহমান জানালেন তিনি আড়াই বিঘা জমিতে ফুলকপি চাষ করেছেন,আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ভাল ফলনও হয়েছে। বিগত বছরগুলোর তুলনায় এবার অনেক বেশী দামে (১৬০০ টাকা মণদরে) কপি বিক্রি করতে পেরে সবজি চাষে আগ্রহ বেড়েছে তার।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এটিএম হামিম আশরাফ জানান,আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ও কৃষি বিভাগের সঠিক পরামর্শে এই এলাকার কৃষক আগাম জাতের শীতকালীন সবজি চাষে লাভের মুখ দেখছেন। তিনি আরও বলেন সবজি ক্ষেতে যাতে ক্ষতিকারক রাসায়নিক সার প্রয়োগ না করেই ফলন বৃদ্ধি করা যায়, সে বিষয়েও সার্বক্ষণিক পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে কৃষকদের ।

Please Share This Post in Your Social Media


বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

https://twitter.com/WDeshersangbad

© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone