বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১২:০৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
খানসামায় ৪২তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ ও জাতীয় বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত এমপি ফরিদুল হক খান দুলাল ধর্মপ্রতিমন্ত্রী হওয়া ইসলামপুরে আনন্দ মিছিল বেনাপোলে শীতের আমেজে ফুটপাতে পিঠা বিক্রির ধুম পড়েছে জাতীয় শ্রমিকলীগ সভাপতি ফজলুল হক মন্টু স্মরণে মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত সিরাজউদ্দৌলা নাট্যদলের প্রাণ পুরুষ বীরমুক্তিযোদ্ধা খসরু স্মরণে শিল্পকলা একাডেমি’র দোয়ার আয়োজন প্লীজ আপনারা সন্তানদের দিকে নজর রাখুন — পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম ময়মনসিংহের ত্রিশালে বিশ্ব এন্টিমাইক্রোবিয়াল সচেতনতা সপ্তাহ পালিত বেনাপোল বন্দরে বাণিজ্য সহজীকরনে কাস্টমস- বিজিবি-বন্দর যৌথ এন্ট্রি শাখার উদ্বোধন ডোমারে কৃষকলীগের আনন্দ শোভাযাত্রা  জামালপুরে জেলা প্রশাসনের মাস্ক বিতরণ  শ্রম আইন সংশোধন করে কর্মক্ষেত্রে দুর্ঘটনায় মৃত্যবরণকারী শ্রমিকের পরিবার কে আজীবন আয়ের মানদন্ডে ক্ষতিপুরণ প্রদানের দাবীতে মানববন্ধন শিবগঞ্জে মাস্ক ব্যবহার না করায় চার জনের জরিমানা প্রধানমন্ত্রী ও খাদ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে জয়পুরহাটে আনন্দ র‌্যালি দেশে ফিরলেন সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক এমপি কুড়িগ্রামের উলিপুরে বাসের ধাক্কায় শিশু মৃত্যু

বিপরীত স্বভাবের মানুষের প্রেমে পড়েছেন, সম্পর্ক টিকিয়ে রাখবেন যেভাবে

প্রেম মানেনা কোনো বাধা। রূপ, গুণ বিচার করেও প্রেমে পড়া যায় না। কথায় আছে, সব সময় নাকি ভুল মানুষের প্রেমে পড়ে মানুষ। তবে অনেক সময় সেই প্রেমই কিন্তু প্রণয়ে পরিণতি পায়।

ভালোভাগা থেকে যখন ভালোবেসে ফেলেছেন। তখনই বুঝতে পারলেন ঠিক মানুষটির প্রেমে পড়েন নি। স্বভাবে পুরোই আপনার উল্টো। গবেষণা বলছে, বিপরীত স্বভাবের মানুষের প্রেমেই মানুষ বেশি পরে। এমন উদাহরণ খুঁজে পেতে খুব বেশি কষ্ট করতেও হবে না। আর তা যদি হয়, তাহলে সম্পর্কের ক্ষেত্রে কিছু বিষয় মেনে চলতেই হবে। এতে করে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা সহজ হবে-

বিশ্বাস রাখা  
যে কোনো সম্পর্কের ক্ষেত্রেই এই বাক্যটি গুরুত্বপূর্ণ। আর বিপরীত মেরুর দু’টি মানুষের ক্ষেত্রে আরও বেশি প্রযোজ্য। একটু বিশ্বাস করে সঙ্গীকে ছাড়তে শিখুন না! আখেরে লাভ আপনারই হবে। আর সব সম্পর্কের প্রথম মন্ত্রই হলো বিশ্বাস। অন্ধ বিশ্বাস হলে এক্ষেত্রে আরো ভালো।

নিজের মতো থাকতে দিন
সম্পর্কে একটু দূরত্ব রাখুন। আর তাতে দুজনের প্রতি আকর্ষণ বাড়বে আরো বেশি। খুব কাছাকাছি চলে এলে দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে যাবে। আর তাতেই সম্পর্ক তিক্ত হতে শুরু করে। উল্টোদিকের মানুষটাকে একটু নিজের মতো থাকতে দেয়া উচিত। এতে পারস্পরিক সম্মানও বজায় থাকে।

আবেগকে সময় দিন
রাগ আর অভিমান সম্পর্কের সবচেয়ে বড় শত্রু। সঙ্গীর কোনো কাজে আপনার রাগ বা অভিমান হয়ে থাকলে সঙ্গে সঙ্গে রিঅ্যাক্ট করে ফেলবেন না। একটু আলাদা জায়গায় চলে যান। নিজের আবেগকে প্রশমিত হতে দিন। তাহলেই আপনি যুক্তি দিয়ে বিচার করতে সক্ষম হবেন।

পাশে থাকুন 
হতেই পারে, আপনি যেটা করতে পছন্দ করেন না, তা আপনার সঙ্গীর পছন্দ। মনে করুন, আপনার খেলা দেখতে একেবারেই ভালো লাগে না। কিন্তু সঙ্গী আবার খেলা দেখতে খুবই ভালোবাসে। তাহলে ইচ্ছে না থাকলেও তাকে সঙ্গ দিন। একান্ত দেখতে ইচ্ছে না করলে সেখানে বসে নিজের ইচ্ছেমতো অন্য কাজে মন দিতে পারেন। কিন্তু পাশাপাশি তো থাকা হবে!

মিল খুঁজুন
বিপরীত মেরুর মানুষদেরও কিছু না কিছু তো মিল থাকে। সেটা খুঁজে বের করার চেষ্টা করুন। একান্ত না থাকলে তৈরি করুন। প্রয়োজনে কোনো আপনার কোনো একটি পছন্দ তার পছন্দের সঙ্গে মিলিয়ে নিন। আপনার এই ছোট্ট ছোট্ট ত্যাগ সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে সহায়তা করবে। এতে সম্পর্ক আরও পোক্ত হবে।

নতুনত্বে ভয় পাবেন না
জীবন পরিবর্তনশীল। পরিবর্তন যদি ভালোর জন্য হয়, আর ভালোবাসার জন্য হয় তাকে আপন করে নিতে তো কোনো সমস্যা নেই! নতুনত্বকে ভয় পাবেন না। বরং তাকে মুক্ত মনে আলিঙ্গন করুন।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37855698
Users Today : 39
Users Yesterday : 1512
Views Today : 60
Who's Online : 38
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone