বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০৭:৩৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ইসিকে অপদস্ত করতে সবই করছেন মাহবুব তালুকদার: সিইসি ৪ অতিরিক্ত সচিবের দফতর বদল এ সংক্রান্ত আদেশ জারি রাজারহাটে কৃষক গ্রুপের মাঝে কৃষিযন্ত্র বিতরণ জামালপুরে কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার পত্নীতলায় জাতীয় ভোটার দিবস পালিত পত্নীতলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত প্রফেসর মোঃ হানিফকে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বরিশালের সর্বস্তরের মানুষ। শিবগঞ্জে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত মার্চ ফর ডেমোক্রেসির ৭৬তম দিনে নীলফামারীতে হানিফ বাংলাদেশী আগামীকাল যাবেন দিনাজপুরে দিনাজপুর বিরামপুরে জনগণের উন্নয়নে একধাঁপ এগিয়ে করোনা টিকা নিলেন চসিক মেয়র রেজাউল  এমটিবি এবং ডাটাসফ্ধসঢ়;ট সিস্টেম বাংলাদেশ লিমিটেড-এর মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী ঝালকাঠিতে চেয়ারম্যানের নামে অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন রাজাপুরে বিমা দিবসে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

বিরামপুরে জেএসসি পরীক্ষার্থীর খাতা মূল্যায়নে নার্সারীর ছাত্র !

বিরামপুর থেকে মোঃ রেজওয়ান আলী-
দিনাজপুর বিরামপুরে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষার খাতা মূল্যায়নে নার্সারী পড়ুয়া ছাএ। দ্বায়িত্ব রত শিক্ষক তার কর্তব্যের কথা ভূলে গিয়ে পরিক্ষার খাতা না দেখিয়ে অন্যের বাড়ির শিশুকে দিয়ে উৎকোষের বিনিময়ে মূল্যায়নের দ্বায়িত্ব দিয়েছেন মর্মে অভিযোগ ওঠেছে।

তথ্য মতে জানা যায় যে,বিরামপুর পৌর শহরের আদর্শ স্কুল পাড়ার বাসিন্দা ফুলবাড়ি উপজেলার জয়নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক সাহানুর রহমান সদ্য সমাপ্ত জেএসসি পরীক্ষার ২৫০টি খাতা মূল্যায়নের জন্য দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ড থেকে গ্রহণ করেন।
কিন্তু তিনি নিজ দ্বায়িত্ব ভূলে গিয়ে মূল্যায়ন খাতা পার্শ্ববতী জিয়াউর রহমানের বাড়িতে ২৫০টি খাতা মূল্যায়নের জন্য দিয়ে আসেন।
এ বিষয়ে জিয়াউর রহমানের স্ত্রী দিলরুবা বেগমের নিকট জানতে চাইলে তিনি বলেন শিক্ষক সাহানুর রহমান ২৫০টি খাতার মধ্যে মূল্যায়ন শেষে ১৫০টি খাতা নিয়ে যায়,অবশিষ্ট ১০০টি খাতা আজ নিয়ে যাওয়ার কথা আছে।
এই খাতা নিয়ে যাওয়ার পর শিক্ষক সাহানুর রহমানের স্ত্রী বিরামপুর আদর্শ হাইস্কুলের শিক্ষিকা শাহনাজ বেগমের খাতা গুলোও দিয়ে যাওয়ার কথা রয়েছে বলে জানান জিয়াউর রহমানের স্ত্রী দিলরুবা বেগম আরো জানান যে,তার জেএসসি পরীক্ষা দেওয়া পুত্র অনিক ও নার্সারী পড়ুয়া শিশুপুত্র আবরার ঐসব খাতা মূল্যায়ন করেছেন।শিশুদের দিয়ে পরিক্ষার খাতা মূল্যায়নের ফলে সত্যিই মূল্যায়ন হচ্ছে না অবমূল্যায়ন হচ্ছে তা নিয়ে দেখা দিয়েছে অনেক প্রশ্ন।

গোপন সূত্রে এ খবর পাওয়ায় বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের প্রতিনিধি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নূর আলম ও যুব উন্নয়ন অফিসার জামিল উদ্দিন সরকার পুলিশসহ জিয়াউর রহমানের বাড়ি থেকে জেএসসি পরীক্ষার ১০০টি খাতা জব্দ করেন।
খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকার শিক্ষকদের মাঝে ক্ষোভ ও অভিভাবকদের মাঝে বিস্ময়ের সৃষ্টি হয়।
এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নূর আলম জানান,জব্দকৃত খাতা সীলগালা করে থানায় জমা দেওয়া হয়েছে। থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান,খাতাগুলো হাতে পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক জাহাঙ্গীর বাদশা রনি জানান, এ ব্যাপারে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নূর আলম বিকেলে থানায় সাধারন ডাইরি করেছেন ডাইরি নং-১০০৫।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌহিদুর রহমান জানান,এবিষয়ে তিনি দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানের সাথে কথা হয়েছে তারা আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। তবে জব্দকৃত খাতার পরীক্ষার্থীদের মূল্যায়ন বা ফলাফলে কোন অসুবিধা হবেনা বলে জানান। দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু বক্কর সিদ্দিক জানান,সংশ্লিষ্ট শিক্ষকের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ শাস্তি মূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে মর্মে ভবিষ্যতে আর কেহ যেন এমন কাজ করতে না পারে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38345247
Users Today : 750
Users Yesterday : 2774
Views Today : 3914
Who's Online : 22
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/