বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০১:০৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
৭ কলেজের পরীক্ষা চলবে, আন্দোলন প্রত্যাহার আজ পিলখানা হত্যাকাণ্ডের এক যুগ ফেনীতে খাবার ফ্যাক্টরিতে ভয়াবহ আগুন মেয়েদের শরীরের ৭টি স্থান বড়ই ‘টার্ন অন’ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিতের সিদ্ধান্ত সেতুর অভাবে দুর্ভোগে মানুষ তানোরের বাধাইড় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অপপ্রচার বেতাগী উপজেলার ভূমি অফিস পরিদর্শনে বরিশালের ডিএলআরসি: কর্মকর্তা- ফুলবাড়ীতে ফেন্সিডিল-গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক মহিলার বাড়ি সাতক্ষীরা,বয়স ১৫ থেকে ২০ বছর বেনাপোলে ১৫৫ পিচ ভারতীয় ইয়াবা ট্যাবলেট সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক যুক্তরাজ্যে আওয়ামীলীগ চেশিয়ার এন্ড নর্থওয়েলস এর আয়োজনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস পালন। নীলার মুখটা এতটা মায়াবী লাগছিলো “বাবা, রশিদটা রাখুন। পথে লাগতে পারে” ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাত কলেজের পরীক্ষা ১৭ মে পর্যন্ত স্থগিত

বেনাপোল বন্দরে বাস ও ট্রাক চলাচল বন্ধ থাকায় নষ্ট হচ্ছে আমদানীকৃত পন্য

ইকরামুল ইসলাম যশোর প্রতিনিধি :
 যশোরসহ সারাদেশে বাস ও ট্রাক চলাচল বন্ধ থাকায় সোমবার বেনাপোল বন্দর থেকে কোন মালামাল লোড-আনলোড ও খালাশ হয়নি। ফলে শতশত খালি ট্রাক পন্য লোড করার জণ্য বন্দরের সামনে অবস্থান করছে।
তবে দু’দেশের মধ্যে আমদানি- রফতানি বানিজ্যসহ পাসপোর্ট যাত্রী যাতায়াত ছিল স্বাভাবিক। তবে বন্দর থেকে পণ্য ডেলিভারি না হওয়ায় আজকের আমদানি পণ্য বন্দরে আনলোড করা সম্ভব হয়নি।
নতুন সড়ক পরিবহন আইন কার্যকরের প্রতিবাদে যশোর থেকে এই ধর্মঘট শুরু হয় রোববার। আজ তা ছড়িয়ে পড়েছে গোটা দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বিভিন্ন জেলায়।
বাংলাদেশ পরিবহন সংস্থাা শ্রমিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোর্তজা হোসেন জানান, দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের দশ জেলায় পরিবহন শ্রমিকরা ‘স্বেচ্ছায়’ বাস চালাচ্ছেন না। জেলাগুলো হলো, যশোর, খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, মাগুরা, নড়াইল, ঝিনাইদহ, মেহেরপুর, কুষ্টিয়া ও চুয়াডাঙ্গা।
শ্রমিকরা কাউকে ইচ্ছা করে হত্যা করে না জানিয়ে মোর্তজা বলেন, অনিচ্ছাকৃত দুর্ঘটনার জন্য নতুন সড়ক আইনে তাদেরকে ‘ঘাতক’ বলা হচ্ছে। তাদের জন্য এমন আইন করা হয়েছে যা সন্ত্রাসীদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য।
নতুন আইনের অনেক ধারার ব্যাপারে শ্রমিকদের আপত্তি রয়েছে। সরকার সমাধানের কোনো উদ্যোগ না নেওয়ায় শ্রমিকরা রোববার দুপুর থেকে বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন।”
গত বছর ঢাকায় বাসচাপায় দুই ছাত্র-ছাত্রীর মৃত্যুর পর নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের নজিরবিহীন আন্দোলনের মুখে ২০১৮ সালে আগের আইন কঠোর করে এই আইন করা হয়। এতে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানির ঘটনায় সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের কারাদন্ড ও অর্থদন্ডের বিধান রয়েছে।
২০১৮ সালে পাশ হওয়া এ আইন গত পহেলা নভেম্বর প্রজ্ঞাপনের জারি করা হয়। তবে আইনটি প্রণয়নের পর থেকেই এর প্রবল বিরোধিতা করে আসছে পরিবহন মালিক-শ্রমিক সংগঠনগুলো। অন্য দিকে আইনটি সম্পর্কে সবার স্বচ্ছ ধারণা না থাকার কারণ দেখিয়ে আরো দুই সপ্তাহ পর তা কার্যকর করে সরকার।
এরপর থেকে বিভিন্ন জেলায় শ্রমিকরা ‘স্বেচ্ছায়’ এই কর্মবিরতি শুরু করে।
পরিবহন সংস্থাা শ্রমিক সমিতি যশোরের সাংগঠনিক সম্পাদক হারুন অর রশিদ জানান, ১৪ নভেম্বর যশোরে অনুষ্ঠিত সমাবেশ থেকে সড়ক আইন ২০১৮ সংশোধনের দাবি করা হয়। এরপর রোববার সকাল থেকে যশোরের ২০ রুটের শ্রমিকরা স্বেচ্ছায় কর্মবিরতি শুরু করেছেন।
তবে বেনাপোল-যশোর ও যশোর-সাতক্ষীরার অভ্যন্তরীণ রুটে কোনো যাত্রীবাহী বাস চলাচল না করলেও কার, মাইক্রোবাস, ইজিবাইক, মাহেন্দ্র, নসিমন-করিমন জাতীয় ছোট যানবাহন এবং অযান্ত্রিক গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।
 আশিক সাগর পরিবহনের  ব্যবস্থাপক মিলন হোসেন বলেন, ঢাকা-কলকাতা ও বেনাপোল থেকে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও দেশের অন্যান্য স্থাানে দূরপাল্লার সব বাস চলাচল করছে। ট্রেন চলছে। তবে অভ্যন্তরীণ  রুটে কোনো বাস চলাচল করছে না।
তবে ভারত থেকে আসা যাত্রীরা ট্রেন সহ ছোট ছোট যানবাহনে করে গন্তব্যে যাচ্ছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38321688
Users Today : 2238
Users Yesterday : 3479
Views Today : 5990
Who's Online : 32
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/