বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৬:৫৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ইয়াঙ্গুনে বিক্ষোভকারীদের ওপর সেনা সমর্থকদের হামলা উন্নয়ন ও তরুণদের কর্মসংস্থান বাড়াতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী বার্মিংহামে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি দম্পতির মৃত্যু উন্নয়নে এগিয়ে যাচ্ছে তানোর-গোদাগাড়ী উপজেলা তানোরে কবিরাজ জার্জিসের কুকর্মে তোলপাড় ?  পিলখানায় বিডিআর ঘাতকদের ফাঁসি চাই : মোমিন মেহেদী গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের নতুন সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ আসছে নতুন কর্মসূচি বরিশাল-ঢাকা মহাসড়কের টিউমার অপসারন হয়নি *প্রতিনিয়ত ঘটছে দূর্ঘটনা বিএম কলেজের শিক্ষার্থীদের তিন ঘন্টা সড়ক অবরোধ *অধ্যক্ষের আশ্বাসে প্রত্যাহার মাদক উদ্ধারে শ্রেষ্ঠ ডিবি অফিসারকে ক্রেষ্ট প্রদান মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে সোনাগাজীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ। নওগাঁর মহাদেবপুরে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারের আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন নওগাঁর মহাদেবপুরে আমের মুকুলের মৌ মৌ গন্ধে সুবাসিত প্রকৃতি বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পযন্ত গ্যাস সরবরাহ বন্ধ থাকবে নওগাঁর মহাদেবপুরে সিআইজি, নন সিআইজি কৃষক সমিতির মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

ব্রুনেইয়ে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভাসমান গ্রাম

ভাসমান শহর বলতে ভেনিস-এর কথাই সকলের মনে আসে। তবে যদি বলা হয় ভাসমান গ্রাম! হ্যাঁ ভাসমান শহরের মত রয়েছে ভাসমান গ্রামও। তবে এই গ্রামটি ইতালিতে নয়। এটি অবস্থিত ব্রুনেইয়ে। এই গ্রামটিকে ডাকা হয় ক্যাম্পং আয়ের নামে। ক্যাম্পং আয়ের-এর মানেই হল ভাসমান গ্রাম।

প্রায় এক হাজার বছর আগে বাজাউ উপজাতিরা ব্রুনেই নদীর উপর নিজেদের বসতি গড়ে তুলেছিলেন। তার পর সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তার বিস্তার ঘটেছে। এটি একটি আদর্শ গ্রামে রূপান্তরিত হয়েছে। এই গ্রামে প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ, স্বচ্ছ পানীয়জলের ব্যবস্থাসহ রয়েছে ওয়াই-ফাই ব্যবস্থাও।

এখানে জলপথে এক গ্রাম থেকে আর এক গ্রামে যাওয়ার জন্য ব্যবহার করা হয় স্পিডবোট। এছাড়াও গ্রামটিতে রয়েছে থানা, ফায়ার ব্রিগেডের মতো জরুরি পরিষেবা । গ্রামের কোথাও আগুন লাগলে বা কোথাও অপরাধমূলক কাজ হলে ঘটনাস্থলে যাওয়ার জন্য স্পিডবোট ব্যবহার করে পুলিশ, দমকলবাহিনী। রয়েছে স্কুল, মসজিদ, রেস্তোরাঁ, পেট্রোল পাম্প, চিকিৎসাকেন্দ্র।

জানা গেছে প্রায় পাঁচশত বছর আগে পর্তুগিজ ফার্দিনান্দ ম্যাগেলান ভেনেজুয়েলার পণ্ডিত অ্যান্টোনিও পিগাফেটা এখানে ঘুরতে এসেছিলেন। ১৫২১ খ্রীষ্টাব্দে ব্রুনাইয়ের কাছে যাত্রা করেছিলেন তিনি। তখন অ্যান্টোনিয়া ও আশেপাশের গ্রামের মধ্যে সাদৃশ্য দেখতে পান তিনি।

প্রাচীন ব্যবসায়ীদের তৈরি নথি অনুযায়ী, হাজার বছরেরও আগে বাজাউ সি নোম্যাডস ব্রুনাই নদীর উপরে ঘর নির্মাণ করেছিলেন। সেই থেকেই ধীরে ধীরে এখানে এই বসতি গড়ে ওঠে।

ভাসমান গ্রামটির একমাত্র বন্দর সেরি বেগওয়ানে। একটি বিশাল আটত্রিশ কিলোমিটার কাঠে এবং কংক্রিটের দ্বারা তৈরি সাঁকো আশেপাশের গ্রামগুলির একমাত্র সংযোগকারী। এটিই বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভাসমান গ্রাম।

এখানে প্রায় ত্রিশ হাজার মানুষ বসবাস করে, যাদের মধ্যে বেশির ভাগই মৎস্যজীবী। এই গ্রামে সরকারি আবাসনও, স্কুল, স্বাস্থ্যকেন্দ্র, থানা সবই রয়েছে এই ভাসমান গ্রামের মধ্যেই। নৌকাই এই গ্রামের প্রধান যানবাহন। তবে গ্রাম বললেও এখানে আধুনিকতার ছোঁয়া রয়েছে সর্বত্র। বিশ্বের বৃহত্তম ভাসমান এই গ্রামকে ‘পূর্বের ভেনিস’ নামেও অভিহিত করা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38322611
Users Today : 3161
Users Yesterday : 3479
Views Today : 9207
Who's Online : 33
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/