মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০২:৪২ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ছাতক পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে নতুন মুখ আব্দুল কদ্দুছ শিবলুর মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা।। দূর্গা পূজায়- ফুলবাড়ী পৌরসভার প‌্যা‌নেল মেয়র মামুনুর র‌শিদ চৌধুরী(মামুন) এর নগদ অর্থ বিতরন ইসলামপুরে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্যে দিয়ে শেষ হলো দূর্গাপুজা ইসলামপুর বেলগাছা আওয়ামীলীগের সম্মেলন সফল করার লক্ষে সভাপতি প্রার্থী সামছুল আলমের আনন্দ মিছিল হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) কে নিয়ে একটি ব্যাঙ্গাত্মক নাটক মঞ্চস্থ করার ঘোষণা দেয় চোখে দেখতে না পায়না তবুও শুনে শুনে মুখস্ত করলো পবিত্র কোরআন শরিফ কেন আত্মহত্যা করলেন ঢাবি ছাত্রী রুম্পা কক্সবাজারে ট্রাক-সিএনজি মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ৪ আইপিএলের ৮ দলের মালিকের নাম জেনে নিন ‘৩৬৫ দিনে এক বছর’ আবিষ্কার করেন এই মুসলিম বিজ্ঞানী স্বামীর অজান্তে একই বাড়িতে প্রেমিককে লুকিয়ে রাখেন ১৭ বছর ‘হু আর ইউ? অ্যাম আই এ ক্রিমিনাল? উইল ইউ অ্যারেস্ট মি? পাঞ্জাবের বোলিং তান্ডবে অল্প রানেই শেষ কলকাতা বালিশ আর কম্বল এমপি পুত্রের সম্বল নব দিগন্তের সূচনা সীমানা পেরিয়ে বাংলাদেশের পরীক্ষামূলক রেল ইঞ্জিন ভারতে যাচ্ছে আজ

ভারতজুড়ে কৃষকদের বিক্ষোভ

ঢাকা : ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) বিতর্কিত কৃষি বিলকে কেন্দ্র করে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ চলছে। লোকসভায় অনুমোদিত নতুন এই বিলকে প্রত্যাখ্যান করে দেশটির কৃষক সংগঠনগুলো শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ‘ভারত বন্ধের’ ডাক দেয়। কংগ্রেসসহ দেশের অধিকাংশ বিরোধী দলই কৃষকদের এই আন্দোলনে নীতিগত সমর্থন জানিয়েছে। খবর আনন্দবাজারের।

কোথাও রাস্তা আটকে, কোথাও ‘রেল রোকো’ অভিযানের মাধ্যমে এই বিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন কৃষকরা। পাঞ্জাব ও হরিয়ানার বিভিন্ন জায়গা ছাড়াও কর্নাটক, মহারাষ্ট্র, অমৃতসর, জালন্ধর, লুধিয়ানা, অম্বালা, চন্ডীগড় ও বিহারে চলছে প্রতিবাদ বিক্ষোভ। পরিস্থিতি যাতে নিয়ন্ত্রণের বাইরে না যায়, সে জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংহ বিক্ষোভকারী কৃষকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ করার আবেদন জানিয়েছেন। কৃষি বিলের বিরুদ্ধে বিহারের রাস্তায় এক র‌্যালিতে রাষ্ট্রীয় জনতা দলের (আরজেডি) নেতা তেজস্বী যাদব অংশ নিয়েছেন।

এই বিলকে কৃষকবিরোধী অ্যাখ্যা দিয়ে তেজস্বী বলেছেন, ‘সরকার আমাদের ‘অন্নদাতাদের’ পুতুল বানানোর চেষ্টা করছে। ২০২২-র মধ্যে কৃষকদের রোজগার দ্বিগুণ করার কথা বলেছিল সরকার। কিন্তু এই বিল তাঁদের আরও গরিব করবে।’ আন্দোলনকে সমর্থন করে রাহুল গান্ধী লিখেছেন, ‘ক্রুটিপূর্ণ জিএসটি ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পকে ধ্বংস করেছে। নতুন কৃষি আইন আমাদের কৃষকদের ক্রীতদাস বানাবে।’

একই কথা বলছেন প্রিয়ঙ্কার গান্ধীও। তিনি লিখেছেন, ‘কৃষকদের থেকে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য কেড়ে নেয়া হবে। কোটি কোটি কৃষকদের ক্রীতদাসে পরিণত হতে বাধ্য করা হবে। না পাবে দাম, না পাবে সন্মান। নিজের জমিতেই শ্রমিকে পরিণত হবে কৃষকরা।’ এই বিল দেশের কৃষকদের আর্থিক উন্নতি জন্য আনা হয়েছে বলে শুরু থেকে দাবি করে আসছে কেন্দ্রীয় সরকার।

বৃহস্পতিবার বিতর্কিত বিল নিয়ে কৃষকদের ‘বোঝাতে’ কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিংহ তোমর বলেন, ‘এই বিলে কৃষকদের ক্ষতি হবে, এমন কোনো বিষয় নেই। ছোট কৃষকদের লাভের কথা ভেবেই বিল আনা হয়েছে। বিরোধীদের আপত্তি উড়িয়ে দিয়ে একরকম ‘গায়ের জোরেই’ সংসদে বিল পাস করেছে নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বাধীন সরকার। তারপর থেকেই দেশের অধিকাংশ বিরোধীরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। বিলে সই না করার জন্য রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ করেছেন তারা।

এদিকে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দাবি করেছেন, ‘মিথ্যে বলে এত দিন কৃষকদের পাওনা থেকে বঞ্চিত করে রেখেছিলেন যারা, তারাই এখন কৃষকদের কাঁধে বন্দুক রেখে চালাচ্ছেন। সরকারি নীতি নিয়ে মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছেন।’

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37688913
Users Today : 10127
Users Yesterday : 9494
Views Today : 27277
Who's Online : 128
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone