শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১২:৪১ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
যে বিষয়গুলো পড়লে প্রাথমিকে চাকরি নিশ্চিত! ৩ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে বসেই বেতন নিচ্ছেন প্রধান শিক্ষক দূর্ঘটনা কবলিত ব্যবসায়ীর খোয়া যাওয়া ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করে ফেরত দিলেন গৌরনদী হাইওয়ে থানার ওসি জিকে শামীম জামিন ,ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রুপাকে দুদকে তলব নিখোঁজ সংবাদ দিনাজপুরের বিরামপুরে ৫ম জাতীয় বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত শিবগঞ্জে সিরাতুন্নাবী (সাঃ) পালিত ফ্রান্সে মহানবীকে অবমাননা করার প্রতিবাদে ছাতকে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত || তালতলীতে ভূমি অফিস পরিদর্শনে ডিএলআরসি : এলডি ট্যাক্স সফটওয়ারের পাইলটিং কার্যক্রম বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ রামগতিতে বিদ্যুৎস্পর্শে কিশোরের মৃত্যু বাড়ির আঙিনায় মাটিচাপা দেয়া ছিলো স্বামী-স্ত্রী ও ছেলের লাশ ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ: শিক্ষামন্ত্রী পঞ্চগড়-তেঁতুলিয়া অঞ্চলে ১ হাজার লোকের বিনামূল্যে বিএমডি স্ক্রিনিং সম্পন্ন ভ্রমণ বিলাসী মন, বাইকে চড়ে রাজশাহী থেকে টাঙ্গাইল  বহুতলা ভবন থেকে পড়ে সাভারে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত‍্যু

মনোনয়ন জমা দিতে গিয়ে নিখোঁজ চেয়ারম্যান প্রার্থী

বগুড়ার ধুনট উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান প্রার্থী মাসুদ রানা নিখোঁজ হয়েছেন। উপনির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিতে গিয়ে বুধবার মাসুদ রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হন বলে দাবি করেছে তার পরিবারের সদস্যরা। তিনি উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের বাসিন্দা এবং বগুড়া জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি।

বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) মাসুদ রানার নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি তার বাবা ইয়াকুব আলী নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘মাসুদ রানা বুধবার সকালের দিকে ধুনট শহরে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হয়। কিন্তু রাতে বাড়িতে ফিরে না আসায় তার সন্ধান করতে থাকি। বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টা পর্যন্ত তার কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। তার মোবাইল ফোনটিও বন্ধ রয়েছে। তাকে খুঁজে না পেলে থানায় লিখিত অভিযোগ করা হবে।’

জানা গেছে, ২০১৬ সালের ২৩ এপ্রিল নির্বাচনে উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে সাইফুল ইসলাম ফটিক নির্বাচিত হন। বার্ধক্যজনিত কারণে ১৫ ফেব্রুয়ারি তিনি মৃত্যুবরণ করেন। এ কারণে ১৬ ফেব্রুয়ারি কালেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদ শূন্য ঘোষণা করা হয়। আগামী ২০ অক্টোবর ওই ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এই নির্বাচনে মাসুদ রানা বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য ২৩ সেপ্টেম্বর উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। বুধবার দুপুরের দিকে মনোনয়নপত্র দাখিল করতে উপজেলা পরিষদ চত্বরেও আসেন। সেখানে অনেকেই তাকে মনোনয়নপত্র হাতে নিয়ে ঘোরাফেরা করতে দেখেছেন। কিন্তু তিনি মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি।

ধুনট উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মোকাদ্দেছ আলী বলেন, ‘চেয়ারম্যান পদে সাতজন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। এর মধ্যে পাঁচজন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। অবশিষ্ট দুজনের মধ্যে মাসুদ রানা বিএনপির প্রার্থী পরিচয় দিয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। কিন্তু তিনি কেনো মনোনয়নপত্র দাখিল করেননি।’

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, ‘এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37709273
Users Today : 5485
Users Yesterday : 7504
Views Today : 12507
Who's Online : 69
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone