শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:২৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সাঁথিয়ার একমাত্র মহিলা বীর মুক্তিযোদ্ধা ভানু নেছা আর নেই বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশন এর সাধারণ সভা ও জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত শেখ হাসিনা সরকার ক্ষতায় থাকলে অদুর ভবিষ্যতে দেশে অনুদান নেয়ার লোক থাকবেনা ……………………খাদ্য মন্ত্রী বরিশালে মহাসড়কের পাশে গড়ে উঠছে অবৈধ স্থাপণা জেলে মুশতাকের মৃত্যুর দায় সরকারের : মোমিন মেহেদী বরিশাল জেলা মুলাদী উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর ডাক্তারের অবহেলায় নাকের পলিপাস জনিত কারণে সুস্থ্য মেয়ের মৃত্যু। আত্রাই বাঁধ উচ্ছেদে ঋণগ্রস্ত মৎস্যচাষীরা ক্ষতিগ্রস্ত শার্শায় ছিনতাইকৃত টাকা একটি পিস্তল সহ তিন ছিনতাইকারী আটক আঁখি আলমগীরের স্ট্যাটাসটি কার সাথে কার পরকীয়া এসব ভেবে মাথা নষ্ট করবেন না বুক চিতিয়ে গুলি খাবার জন্য পুলিশকে অস্ত্র দেয়নি সরকার: বেনজীর অসহায় রোগীদের নিজের টাকায় সেবার ব্যবস্থা করে প্রশংসিত হয়েছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের কনস্টেবল শওকত- রাজধনীতে চলছে ৫থেকে ৭ হাজার টাকায় ঝমঝমাট স্বামী বাণিজ্য! লিঙ্গান্তর ঘটিয়ে পুরুষ থেকে নারীতে রূপান্তরিত হলেন দুই জমজ ভাই আমা’র মে’য়ে কোন ভুল করেনি, এত বাড়াবাড়ি করছেন কেন: তামিমা’র মা তামিমার মুখোশ খুলে লাভ আমার একার না, সমগ্র পুরুষ জাতির : রাকিব

মানবাধিকারের মূলনীতি বাংলাদেশ সংবিধানে আছে, বাস্তবে কিছুই নেই – মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে- জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের র‌্যালী ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ

আন্তর্জাতিকভাবে গৃহীত মানবাধিকারের মূলনীতিগুলিকে বাংলাদেশ সংবিধানে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে এবং নাগরিকের মানবাধিকারের সুরক্ষায় বিভিন্ন বিধান সংবিধানে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। অথচ মানবাধিকারের মূলনীতিগুলির কিছুই এখন বাস্তবে নেই বলে মন্তব্য করে জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান বলেছেন, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানে বলা হয়েছে, ‘প্রজাতন্ত্র হইবে একটি গণতন্ত্র, যেখানে মৌলিক মানবাধিকার ও স্বাধীনতার নিশ্চয়তা থাকিবে, মানবসত্তার মর্যাদা ও মূল্যের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ নিশ্চিত হইবে।’ সংবিধানে খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসা, জনস্বাস্থ্য, কর্মসংস্থান, বিশ্রাম ও চিত্ত বিনোদন এবং সামাজিক নিরাপত্তার মত অর্থনৈতিক ও সামাজিক  মানবাধিকারসমূহ এবং নাগরিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক অধিকার সুরক্ষার বিধান অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।
অথচ আমরা যারা বাংলাদেশের নাগরিক আছি তারা এই সকল বিধানের সুবিধা কি লাভ করতে পারছি? আজ আওয়ামী  লীগ সরকার ক্ষমতায় আছেন, আগামীতে হয়তোবা অন্য কেউ ক্ষমতায় আসবেন। এটাই গণতান্ত্রিক নিয়ম বা রীতিনীতি। ক্ষমতার পলাবদল হবে কিন্তু জনগণের মৌলিক অধিকার বাস্তবায়ন হবে না এটা কিসের নীতি? কিসের নিয়ম??

আজ মঙ্গলবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের উদ্যোগে মানবতার র‌্যালী ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান আরো বলেন, মানবাধিকার রক্ষা এবং তার উন্নয়নের প্রধান দায়িত্ব রাষ্ট্রের। রাষ্ট্র তার প্রশাসন, বিচার ও আইন বিভাগের মাধ্যমে জনগণের মানবাধিকার রক্ষায় কাজ করবে। অথচ আজ আমাদের ভোটের অধিকার পর্যন্ত কেড়ে নেওয়া হয়েছে। গণগণ আজ তার নাগরিক সকল অধিকার থেকে বঞ্চিত। এইভাবে একটি দেশ চলতে পারে না।

নেতৃবৃন্দ বলেন, মানবাধিকারের প্রধান ভিত্তি স্থাপিত হয়েছিল ৬২২ খ্রিষ্টাব্দে। মানবতার মুক্তির দূত হযরত মহানবী (সা.) কর্তৃক মদীনা সনদ ঘোষণার মধ্য দিয়ে বিশ্বে সর্বপ্রথম মানবাধিকারের রূপরেখা ঘোষণা হয়। মদীনা সনদ হচ্ছে পৃথিবীর সর্বপ্রথম পূর্ণাঙ্গ লিখিত সংবিধান। এ সনদে মানবাধিকার বিষয়ে মোট ৪৭ টি অনুচ্ছেদ রয়েছে।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, বিশ্বব্যাপী মানবাধিকারের বিষয়টি এখন আরো প্রকটভাবে অনুভূত হচ্ছে, যখন আমরা দেখছি যে, মানুষের অধিকারসমূহ আঞ্চলিক যুদ্ধ, সংঘাত, হানাহানির কারণে বার বার লংঘিত হচ্ছে। প্রথমত একটি পরিবার ও সমাজের কর্তারা তাদের অধিনস্থদের অধিকার রক্ষা করবে। দ্বিতীয়ত রাষ্ট্র এবং তৃতীয়ত আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানসমূহ মানবাধিকার রক্ষায় ভূমিকা পালন করে থাকে।

জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব খন্দকার মো: মহিউদ্দিন মাহির সঞ্চালনায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান খান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ইব্রাহীম খলিল, প্রচার সম্পাদক সালাহউদ্দিন সাকিব সহ  জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলন ও আদর্শ নাগরিক আন্দোলনের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38328860
Users Today : 5457
Users Yesterday : 3953
Views Today : 16241
Who's Online : 57
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/