সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৯:১৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বেঁচে থাকলে পহেলা বৈশাখ-ঈদ অনেক পাবেন: ওমর সানী লক্ষ্মীপুরে বেড়িবাঁধ সড়ক সংস্কার কাজে অনিয়মের অভিযোগ লক্ষ্মীপুরে ব্যবসায়িদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করলেন এডভোকেট নয়ন সাকিবকে কলকাতার একাদশে রাখেননি বিশপ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ চলবে সপ্তাহে তিনদিন সৌদি আরবে মঙ্গলবার থেকে রোজা শুরু বাংলাদেশি শিক্ষকদের আমেরিকান ফেলোশিপের আবেদন চলছে ঘরের কোন জিনিস কতদিন পরপর পরিষ্কার করা জরুরি কিশোরকে গাছে বেঁধে নির্মম নির্যাতন, পায়ুপথে মাছ ঢুকানোর চেষ্টা পদ্মায় ভেসে উঠল শিশুর মরদেহ ভাইকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল বোনের ৭ দিনের সাধারণ ছুটির ঘোষণা আসতে পারে টার্গেট রমজান মাস তৎপর হয়ে উঠেছে ‘ভিক্ষুক চক্র’ মামুনুলের দ্বিতীয় স্ত্রীর ঘরে মিলেছে ৩ ডায়েরি এই ফলগুলো খেয়েই দেখুন!

মামুনুল ইস্যুতে আরো ৩ পুলিশ কর্মকর্তা প্রত্যাহার

হেফাজতে ইসলামের নেতা মামুনুল হক ইস্যুতে আরো তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। হেফাজতের হরতালের দিনের ভাঙচুরের ছবি ফেইসবুকে শেয়ার করায় সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলায় আফজাল খান নামে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের এক নেতাকে পুলিশের সামনে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় ওসি দেলোয়ার হোসেনসহ তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বুধবার রাতে পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ধর্মপাশার থানার ওসি দেলোয়ার হোসেনকে সুনামগঞ্জ পুলিশ লাইনসে সংযুক্ত করা হয়েছে। এর আগে এ ঘটনায় বুধবার দুপুরে ধর্মপাশা থানার এসআই জহিরুল ইসলাম ও এএসআই আনোয়ার হোসেনকেও প্রত্যাহার করা হয়েছিল।

২৯ মার্চ জয়শ্রী ইউনিয়নের মহেশপুর গ্রামের আফজাল খান দেশব্যাপী হেফাজতে ইসলামের হরতালের দিন হামলা ও আক্রমণের কিছু ছবি তার ফেইসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার করেন। তবে পরে তিনি পোস্টটি ‘অনলি মি’ করে রাখেন। যদিও পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় কয়েকজন যুবক এর স্ক্রিনশট রেখে দেন।

পুলিশ জানায়, পোস্টের ব্যাখ্যা চাইতে স্থানীয় যুবকরা মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার জয়শ্রী বাজারে আফজাল খানের কাছে যান। এ সময় তাদের সঙ্গে যান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও হরিপুর সাতঘরিয়া গ্রামের আবুল হাসেম আলমের ছেলে আল মোজাহিদসহ ২০/৩০ জন। আফজল খান পোস্টটি তার নয় বলে দাবি করেন। এ সময় মোজাহিদ ও আফজালদের মধ্যে কথাকাটাকাটি ও ঝগড়া হয়। পরে মোজাহিদ ও তার লোকজন আফজালকে স্থানীয় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে রাখেন।

খবর পেয়ে ধর্মপাশা থানার এসআই জহিরুল ইসলাম ও এএসআই আনোয়ার হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের নিয়ন্ত্রণ করতে আফজাল হোসেনকে হাতকড়া পড়িয়ে উপস্থিত সবার কাছে ক্ষমা চাইতে বলেন।

সবার কাছে ক্ষমা চাওয়ার পর তাকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। থানায় নিয়ে সাদা কাগজে স্বাক্ষর রেখে পরে রাতে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা আফজাল খান জানান, ‘ফেইসবুকে আমি এ ধরনের কোনো পোস্ট দিইনি। মোজাহিদ শিবিরকর্মী ছিল, তার বিরোধ থেকেই আমাকে এমনটা করেছে। আর পুলিশ আমাকে বাধ্য করেছে সবার কাছে ক্ষমা চাইতে। আমি এর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেব’।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের ওই নেতাকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় জয়শ্রী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম আলমকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়।

বুধবার বিকেলে ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38442332
Users Today : 543
Users Yesterday : 1265
Views Today : 6985
Who's Online : 47
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone