সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ০৮:৪৩ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
লক্ষ্মীপুরে বেড়িবাঁধ সড়ক সংস্কার কাজে অনিয়মের অভিযোগ লক্ষ্মীপুরে ব্যবসায়িদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করলেন এডভোকেট নয়ন সাকিবকে কলকাতার একাদশে রাখেননি বিশপ সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ চলবে সপ্তাহে তিনদিন সৌদি আরবে মঙ্গলবার থেকে রোজা শুরু বাংলাদেশি শিক্ষকদের আমেরিকান ফেলোশিপের আবেদন চলছে ঘরের কোন জিনিস কতদিন পরপর পরিষ্কার করা জরুরি কিশোরকে গাছে বেঁধে নির্মম নির্যাতন, পায়ুপথে মাছ ঢুকানোর চেষ্টা পদ্মায় ভেসে উঠল শিশুর মরদেহ ভাইকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল বোনের ৭ দিনের সাধারণ ছুটির ঘোষণা আসতে পারে টার্গেট রমজান মাস তৎপর হয়ে উঠেছে ‘ভিক্ষুক চক্র’ মামুনুলের দ্বিতীয় স্ত্রীর ঘরে মিলেছে ৩ ডায়েরি এই ফলগুলো খেয়েই দেখুন! বাস নেই-লঞ্চ নেই, বাড়িতে যাওয়াও থেমে নেই

মার্কেট খোলার দাবিতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ

সারাদেশে ৫ এপ্রিল থেকে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন চলছে। এসময়ে জনসমাগম এড়াতে বন্ধ রয়েছে রাজধানীসহ দেশের প্রধান প্রধান শহরগুলোর শপিংমল ও দোকানপাট। ফলে সাধারণ মানুষসহ কিছু সংখক ব্যবসায়ীকে পড়তে হচ্ছে বিপাকে। গত কয়েকদিন ধরেই এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছেন রাজধানী ও তার আশেপাশের মার্কেটগুলোর ব্যবসায়ী ও কর্মচারীরা।

রোববার সকাল থেকেই লকডাউনে দোকান খুলে দিতে গাউসিয়া-নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ী ও কর্মচারীরা বিক্ষোভ করেছেন। আজ মঙ্গলবার সকালেও একই দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন রাজধানীর নিউমার্কেট ও মিরপুরসহ একাধিক এলাকার ব্যবসায়ীরা।

সরেজমিনে দেখা যায়, আজ বিক্ষোভকারীরা গাউছিয়া ও এর আশপাশ এলাকায় ছোট ছোট জটলা করে অপেক্ষা করছিলেন গুরুত্বপূর্ণ কোন ঘোষণা শোনার জন্য। তবে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দোকানপাট খোলা রাখার ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত পায়নি বিক্ষোভকারীরা।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, এই বাজারে বহু টাকার ভ্যাট–ট্যাক্স দিয়ে তারা কাপড়চোপড় আমদানি করে বিক্রি করেন। কিন্তু তারা কোনো সুযোগ–সুবিধা পান না। গত বছরেও করোনার কারণে তাদের ব্যবসায় ধস নামে। এ বছর এমন হলে তারা আর টিকতে পারবেন না।

এদিকে, মিরপুর-১০ নম্বর গোল চত্বরের পাশে বেলা ১১টার দিকে শতাধিক ব্যবসায়ী ব্যানার হাতে নিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করছেন। তাদের দাবি, লকডাউনে যেন স্বল্প পরিসরে ৬ থেকে ৮ ঘণ্টার জন্য হলেও দোকানপাট খুলে দেওয়া হয়।

মানববন্ধনে অংশ নেওয়াদের মধ্যে একজন বলেন, আমরা পরিবার নিয়ে কীভাবে বাঁচবো। দোকান বন্ধ রাখলে তো উপার্জনের পথও বন্ধ। তাই সরকারের কাছে অনুরোধ যেন স্বল্প পরিসরে হলেও দোকান খুলে দেওয়া হয়।

সিলেট: সিলেটে চলমান বিধিনিষেধ বা লকডাউন মানতে নারাজ ব্যবসায়ীরা। তারা জানিয়েছেন- এই লকডাউনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। সব কিছু স্বাভাবিক থাকলেও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা উচিত হচ্ছে না।

এদিকে- দুপুরে লকডাউনে মার্কেট ও দোকানপাট খোলার দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন সিলেটের ব্যবসায়ীরা। নগরীর জিন্দাবাজার এলাকার কয়েকটি মার্কেটের ব্যবসায়ীরা নিজ নিজ মার্কেটের সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করে। পরে তারা বিক্ষোভ মিছিল সহকারে নগরীর কোর্টপয়েন্টের হাসান মার্কেট এলাকায়। সেখানে মার্কেট খুলে দেয়ার দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে তারা।

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের শিমরাইল এলাকায় আজও মার্কেট খোলার দাবিতে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) বেলা ১১টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের শিমরাইল মোড় হাজী আসহান উল্লাহ সুপার মার্কেটের সামনে ১৫ মিনিটের জন্য সড়ক অবরোধ করে দুই শতাধিক ব্যবসায়ী বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করেন।

টাঙ্গাইল: টাঙ্গাইলে মার্কেট ও শপিংমল খোলা রাখার দাবিতে বিক্ষোভ করেছে ব্যবসায়ীরা।

আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের সমবায় সুপার মার্কেটের সামনে এ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভে শহরের বিভিন্ন মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দসহ সাধারণ ব্যবসায়ীরা অংশগ্রহণ করেন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ আইনশৃংক্ষলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য উপস্থিত হন।

মার্কেট নেতারা বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে আমাদের ব্যবসা ভালো যাচ্ছে না। ঈদ উপলক্ষে ইতোমধ্যে পোশাক সংগ্রহ করা হয়েছে। এই অবস্থায় লকডউনের কারনে দোকান খোলা রাখতে না পাররে আমাদের পথে বসা ছাড়া আর কোন উপায় থাকবে না। দোকান খোলা রাখতে সরকার ঘোষিত যে কোন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবো।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38442295
Users Today : 506
Users Yesterday : 1265
Views Today : 6631
Who's Online : 41
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone