রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০৫:৪৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
সম্প্রতি এক সমীক্ষায় বিছানায় মেয়েরাই বেশি নোংরা বড় ধরনের দরপতনের মধ্যে কমেই যাচ্ছে স্বর্ণের দাম ৪১তম বিসিএসে যে ২৫ জন প্রিলিমিনারি দিতে পারছেন না শূন্য পদে ৫৬ জন নিয়োগ দিচ্ছে ডিএসসিসি ১৬৫০ কর্মকর্তার দ্রুত নিয়োগ চেয়ে মন্ত্রিপরিষদে চিঠি অভিযোগ সাবেক ইউএনও’র বিরুদ্ধে: বন্ধ নির্মাণকাজ অভয়নগরে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর গৃহহীনদের বসতঘর নির্মাণে অনিয়ম বেনাপোলে ৫কেজি ভারতীয় গাঁজা সহ মাদক ব্যবসায়ী আটক বেনাপোলে বাস-প্রাইভেট মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত-৫ সাপাহারে হাঁপানিয়া সীমান্তে বিজিবির হাতে আটক-১০ আজীবন সদস্য সম্মাননা পেলেন নাট্যব্যক্তিত্ব মামুনুর রশীদ ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ৫০তম বর্ষে কবি নির্মলেন্দু গুণের কবিতা থেকে গান উদ্বোধন খানসামায় সাদা সোনা খ্যাত রসুনের বাম্পার ফলন হলেও দাম নিয়ে শঙ্কায় চাষীরা রৌমারীতে বিনামূল্যে কৃষকদের মাঝে ‘পাওয়ার থ্রেসার’ বিতরণ বেনাপোল স্থলবন্দরের অন্যতম সংগঠনের নির্বাচনে ভোট গ্রহন চলছে শান্তিপূর্ণ ভাবে পলাশবাড়ীতে স্ত্রী’র কন্যা সন্তান হওয়ায় ১৪ দিনের মাথায় তালাকপ্রাপ্তা স্ত্রী’কে বিয়ে. অতঃপর

জেনে নিন, মূত্র ধরে রাখতে অসুবিধে? বারবার ছুটছেন?কারণ ও সমাধান

 ডেস্ক: বাড়ি থেকে বেরোলেই মিনিটে মিনিটে হিসু পায় এরকম লোকের সংখ্যা নেহাত কম নয়। অনেকে বলে বাতিক, অনেকে বলে মনের রোগ। কেউ আবার দাবি করেন আমি অনেকটা জল খাই। তা সারাদিনে আমাদের পরিমাণ মতো জল সকলকেই খেতে হয়। এছাড়াও আমাদের খাদ্যের মধ্যে ২০ থেকে ৩০ শতাংশ জল থাকে। বেশি জল খেলে বেশিবার হিসু পায় ঠিক কথা। কিন্তু অতিরিক্ত জল খাওয়ারও অনেক বিপদ আছে। প্রয়োজনের বেশি জল খেলে রক্তে নুনের মাত্রা বেড়ে যায়। এছাড়াও মূত্রনালির সংক্রমণ তো আছেই। তা বলে বাড়ির বাইরে গেলে হিসু চেপে রাখা মোটেও কাজের কথা নয়। তাই যাদের বারবার ছুটতে হয় বা বাড়ির বাইরে পা রাখা মাত্র সুলভ খুঁজতে হয় তারা একবার চোখ বুলিয়ে নিন।

বারে বারে মূত্রত্যাগের কারণ

ইউরিন ইনফেকশন হলে
ইউরিন ইনফেকশন, কিডনি, ব্লাদার বা মূত্রনালিতে সংক্রমণ হলে ইনফেকশনের মাত্রা বহুগুণ বেড়ে যায়। মূত্রথলিতে মূত্র ধরে রাখার একটা নির্দিষ্ট ক্ষমতা আছে। তার থেকে বেশি পরিমাণ মূত্র জমা হলে বাথরুমে যেতে তো হবেই। আর সংক্রমণ হলেই হালকা জ্বর, ঠান্ডা লাগা, পেট ব্যাথা, বমির মতো সমস্যা হয়।

ডায়াবিটিস থাকলে
টাইপ ১ এবং টাইপ ২ ডায়াবেটিস থাকলে রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়ে। ফলে কিডনি তখন ঠিক করে ফিল্টার করতে পারে না। ফলে তখন বারেবারে যেতে হয়। যা ডায়াবেটিসের প্রাথমিক লক্ষণ।

ডায়াবিটিস ইনসিপিডাস
টাইপ ১ এবং টাইপ ২ ডায়াবিটিসের থেকে আলাদা। এতে ভাসোপ্রেসিন হরমোন বেশি মাত্রায় নির্গত হয়। ফলে অতিরিক্ত জল রক্তের সঙ্গে মিশে যায়। ক্লান্ত লাগা, বমি, বারে বারে তেষ্টা পায়য়। এমনকী দিনে ১৫ লিটারেরও বেশি মূত্র নির্গত হয়। এরকম সমস্যা হলে দ্রুত সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

ডিউরেটিক্স
কিডনি, লিভার বা উচ্চরক্তচাপ জনিত সমস্যা থাকলে এই ওষুধ চিকিৎসকেরা দিয়ে থাকেন। এর ফলে ইউরিনের সঙ্গে অতিরিক্ত সোডিয়াম বেরিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়। সোডিয়াম পটাসিয়ামের মাত্রা সঠিক না থাকলে তা স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক। ফেলে অতিরিক্ত মূত্রত্যাগের মতো সমস্যা তো থাকেই তাছাড়াও আচ্ছন্নে থাকা, বমি হওয়া, পেটখারাপের মতো সমস্যা দেখা যায়। এরকম সমস্যা হলে চিকিৎসককে জানান। তিনি প্রয়োজনে ওষুধের মাত্রা কমিয়ে দেবেন।

ব্লাডারের সমস্যায়
অনেক সময়নে হয় হিসু পাচ্ছে কিন্তু করতে গেলে দেখা যায় তা ঠিকঠাক হচ্ছে না। এবং মূত্রত্যাগের সময় বেশ ব্যাথা অনুভূত হচ্ছে। ব্লাডারের কোশ খুব সেন্সসেটিভ হয়। সঠিক আহার, ব্যায়াম এবং বেশকিছু থেরাপির মাধ্যমে এই সমস্যার সমাধান সম্ভব।

কিডনি স্টোন
খনিজ এবং নুন কিডনির চারপাশে জমে গিয়ে কিডনিতে পাথর তৈরি করে। জ্বর, বমিভাব, পেটে ব্যথা, টয়লেট করতে গিয়ে সমস্যা, পরিমান মতো না হওয়া, ডিহাইচ্রেশনের মতো সমস্যা হলে এখনই সতর্ক হোন। এগুলি সবই কিডনি স্টোনের লক্ষণ। বেশিদিন ফেলে রাখা ঠিক না। তখন সার্জারি ছাড়া আর কোনও উপায় থাকবে না।

গর্ভাবস্থায়
গর্ভাবস্থায় শিশুর বৃদ্ধির সময় অতিরিক্ত জায়গার দরকার হয়। ফলে তখন হবু মায়ের ইউরিনারি ব্লাডারে চাপ পড়ে। এবং যার জেরে বারবার বাথরুমে যেতে হয়। এই সমস্যা বেশি হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

ভ্যাজাইনার ইনফেকশন
ভ্যাজাইনাতে সংক্রমণ হলে বা কোনও হরমোনাল ওষুধ চললে অথবা টয়লেট স্পে, কোনও কেমিক্যাল বা ক্রিমের ব্যবহারে মূত্রনালিতে ইনফেকশন হয়। তখন বারেবারে বাথরুমে যাওয়ার মতো সমস্যা তৈরি হয়। এবং মূত্রে দুর্গন্ধও হয়।

অতিরিক্ত মদ্যপান
অতিরিক্ত মদ্যপান বা একাধিক বার কফি খেলে নানারকম সমস্যা দেখা দেয়। মদ্যপান বা কফি বেশি খেলে কিডনিতে চাপ পড়ে। ফলে কিডনি প্রয়োজনের থেকে অতিরিক্ত জল ফিল্টার করে। সেখান থেকে ডটিল সমস্যা তৈরি হওয়ার মতো পরিস্থিতি হয়। তুলনায় জল, ককটেল বা অল্প ওয়াইন অনেক বেশি নিরাপদ।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38367775
Users Today : 2375
Users Yesterday : 6910
Views Today : 11407
Who's Online : 31
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/