শনিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:৪১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
হেসে খেলে ওয়ানডে সিরিজ জয় সুপার লীগের সেরা তিনে বাংলাদেশ টাইগারদের সিরিজ জয়ে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন ক্রিসতং অভিযান করোনায় আক্রান্ত জিদান নির্বাচনে জয়ী স্বামীকে কাঁধে নিয়ে পুরো গ্রাম ঘুরলেন স্ত্রী রাশিয়ার সঙ্গে পরমাণু চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে চান বাইডেন মরণঘাতী ২০২০ সাল! মহামারী করোনা ভাইরাসের কবলে আলেম সমাজ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিমান পরিবহনের কেন্দ্রবিন্দু হবে শাহজালাল উর্বশীর বিয়ে… ভাঙছে সংসার, এরমধ্যেই নুসরাতকে খোঁচা দিলেন স্বামী নিখিল! জুমার দিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আমল সূর্যোদয়ের দেশে এক দশকে মুসলিমদের সংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণ রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু করতে আগ্রহী মিয়ানমার, পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে চিঠি করোনায় দেশে আরও ১৫ জনের মৃত্যু শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল ফিলিপাইন

যৌনপেশায় মিরপুরের বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী, জানালেন পুরো অভিজ্ঞতা

বেশ ভালোভাবেই পরিবারের সঙ্গে দিন কাটাচ্ছিল তমা ইসলাম (ছদ্মনাম)। কিন্তু তার বাবার ব্যবসায়ে ক্ষতি হওয়ার পর উচ্চমাধ্যমিকের গণ্ডি পেরোনো তমার জীবনে নেমে আসে কালো ছায়া। রাজধানীর মিরপুরে তমার বাবার একটি কাপড়ের দোকান ছিলো। কিন্তু তার বাবার ব্যবসায়ীক পার্টনারের প্রতারণায় তমার পরিবার নিঃস্ব হয়ে যায়। ওই ব্যক্তি তমাদের ২৫ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন।

স্নাতকে কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাতালিকায় স্থান পাওয়ার পরেও ভর্তি হওয়ার মতো পর্যাপ্ত অর্থ ছিলো না তমার। তার বাবাও তাদের পরিবারের জন্য তেমন কিছু করতে পারছিলেন না। অবস্থা ছিলো অনেকটাই বেগতিক। তমার পরিবারের সদস্যদের দিনের পর দিন আধ পেটা, না খেয়ে পার করতে হতো।

চার ভাই-বোনের মধ্যে তমাই সবার বড়। তিনি তার পরিবারের অবস্থা আর নিজের পড়াশোনার জন্য চাকরির সিদ্ধান্ত নেন। কয়েকটি চাকরির ওয়েবসাইট ঘুরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সিভি দেন তমা। কিন্তু দিনের পর দিন পার হলেও তিনি কোথাও ডাক পান না। এ অবস্থায় মানসিকভাবে অনেকটাই ভেঙে পড়েন তিনি।

মাসখানেক পর হঠাৎই একটা কল আসে তমার কাছে। একটি প্রতিষ্ঠানে তমাকে চাকরির ইন্টারভিউয়ের জন্য ডাকা হয়। তমা সময় মতো গুলশানের ওই অফিসে হাজির হন। তমাকে তখন সাধারণ কিছু প্রশ্নের পর জানানো হয় এটা একটি বিউটি পার্লারের কাজ। স্পা করাতে হবে নারীদের। তমা দীর্ঘদিন চাকরি খুঁজেও কোনো উপায়ন্ত না পেয়ে তাদের প্রস্তাবে রাজি হন। ভাবলেন তাও একটা কাজ তো পেয়েছেন। ওইদিনের মতো তমাকে পাঠিয়ে দেয়া হয় পরবর্তী তারিখ দিয়ে। জানানো হয় পরবর্তী দিন ওই অফিসের ‘বস’ তমার ইন্টারভিউ নিবেন। তিনি ফাইনাল করলেই তমার চাকরি হবে।

পরবর্তী তারিখে তমা সময় মতো ওই লোকের দেয়া ঠিকানায় উপস্থিত হন। পরে তাকে ‘হোটেল রেডিসনের’ একটি কক্ষে নেয়া। সেখানে গিয়ে তমা দেখতে পান এক লোক সোফায় বসে আসেন। তমার যেহেতু চাকরির পূর্ব অভিজ্ঞতা ছিলো না তাই তিনি তেমন কিছুই আঁচ করতে পারেননি যে, তার সঙ্গে কী ঘটতে যাচ্ছে!

এরপর তমা যেই লোকের সাথে হোটেল পর্যন্ত গেলেন তিনি রুমে থাকা লোকের কাছে তমাকে রেখে ‘কানে কানে’ বলে যান ইনি আমাদের ‘বস’। তাকে সন্তুষ্ট করতে পারলেই চাকরি কনফার্ম। সদ্য উচ্চ মাধ্যমিকের গণ্ডি পার করা তমা তখনও কিছু বুঝতে পারেননি। এরপর রুমে ওই লোক জোর জবরদস্তি করে তমাকে ‘ধর্ষণ’ করেন। শুরু হয় তমার জীবনের নতুন অধ্যায়।

তমা তার জীবনের এই অনাকাঙিক্ষত ঘটনা কাউকে বলতে পারেননি। তার পরিবারের লোকের পাশে তখন তার দাঁড়ানো দরকার ছিলো- এর ওপরে তার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি, ছোট ছোট তিনটা ভাই-বোনের দিকে তাকিয়ে তমা সেদিন প্রতিবাদ করতে পারেননি। কিন্তু তমার জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু হয় সেখান থেকেই। তমা সেদিনকার মতো বাড়িতে ফিরে আসেন এবং আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। কিন্তু পরিবারের কথা ভেবে অন্ধকার জগতের পথ বেছে নেন তমা।

তমা বাড়ি ফেরার দুই-একদিন পর ওই লোকেরা তার সঙ্গে আবার যোগাযোগ করেন। জানান, তমা চাইলে তারা প্রতিমাসে তাকে তিনটা কাজ দিবে। এর জন্য তমাকে মোটা অঙ্কের টাকা দেয়া হবে। তমাও রাজি হয়ে যান তাদের শর্তে। তমার দাবি, তার সামনে অন্য আর কোনো উপায় ছিলো না!

এভাবেই চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে নারীদের যৌনপেশায় নিয়োজিত করে একটি সংঘবদ্ধ চক্র। পরে পরিবারের চিন্তা করে নারীরাও ঢুকে পড়েন এই অন্ধকার জগতে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38177236
Users Today : 1901
Users Yesterday : 7862
Views Today : 4838
Who's Online : 39
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone