বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ০৫:৩১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ইসিকে অপদস্ত করতে সবই করছেন মাহবুব তালুকদার: সিইসি ৪ অতিরিক্ত সচিবের দফতর বদল এ সংক্রান্ত আদেশ জারি রাজারহাটে কৃষক গ্রুপের মাঝে কৃষিযন্ত্র বিতরণ জামালপুরে কিশোরীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার পত্নীতলায় জাতীয় ভোটার দিবস পালিত পত্নীতলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত প্রফেসর মোঃ হানিফকে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছেন বরিশালের সর্বস্তরের মানুষ। শিবগঞ্জে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত মার্চ ফর ডেমোক্রেসির ৭৬তম দিনে নীলফামারীতে হানিফ বাংলাদেশী আগামীকাল যাবেন দিনাজপুরে দিনাজপুর বিরামপুরে জনগণের উন্নয়নে একধাঁপ এগিয়ে করোনা টিকা নিলেন চসিক মেয়র রেজাউল  এমটিবি এবং ডাটাসফ্ধসঢ়;ট সিস্টেম বাংলাদেশ লিমিটেড-এর মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষর মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে আন্তর্জাতিক ওয়েবিনারে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী ঝালকাঠিতে চেয়ারম্যানের নামে অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন রাজাপুরে বিমা দিবসে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

রাজশাহীতে আওয়ামী লীগের সভা নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি
রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভা নিয়ে জেলার তৃণমূলের নেতা ও কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রক্রিয়া, উঠেছে সমালোচনার ঝড়, সৃষ্টি হয়েছে মূখরুচোক নানা গুঞ্জন, রাজনৈতিক অঙ্গনে প্রতিনিয়ত এসব গুঞ্জনের ডালপালা মেলছে বলে অভিযোগ উঠেছে। জানা গেছে, আগামী ৪ ডিসেম্বর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন উপলক্ষে চলতি বছরের ১৮ নভেম্বর সোমবার বিকেলে আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সম্মেলনের সন্বনয়ক, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও রাসিক মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন এবং জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সংরক্ষিত আসনের সাবেক সাংসদ আখতার জাহানের সভাপতিত্বে ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদের সঞ্চালনে সভায় উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম-সম্পাদক কারুজ্জামান চঞ্চল, রাজশাহী-৩ আসনের সাংসদ ও জেলা কমিটির সদস্য আয়েন উদ্দিন, সদস্য রাজশাহী-৪ আসনের সাংসদ প্রকৌশলী এনামুল হক, সদস্য রাজশাহী-৫ আসনের সাংসদ ডা, মুনসুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাংসদ মেরাজ উদ্দীন মোল্লা, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি, সাবেক প্রতিমন্ত্রী জিন্নাতুন নেসা তালুকদার, সদস্য সাবেক সাংসদ আব্দুল ওয়াদুদ দারা ও সদস্য বাগমারা উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান জাকিরুল ইসলাম সান্টু প্রমূখ। সম্মেলন সফল করতে নানা দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়। এদিকে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাবেক শিল্প প্রতিমন্ত্রী ও সাংসদ জননেতা আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধূরী ব্যতিত কার্যনির্বাহী কমিটির সভা নিয়ে তৃণমূলের নেতা ও কর্মী-সমর্থকদের মিশ্র প্রতিক্রিয়া, মূখরুচোক নানা গুঞ্জন এবং সমালোচনার সূত্রপাত হয়েছে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে অনেক নেতাকর্মী বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে কার্যনির্বাহী কমিটির সভা আহবান করে সম্বনয়ক জেলা আওয়ামী লীগের সঙ্গে নয় তিনি তার ব্যবসায়িক পার্টনারদের সঙ্গে সম্বনয় করেছে বলে তারা মনে করেন। কারণ হিসেবে তারা বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের ওই কার্যালয় নিয়ে নানান নেতিবাচক কথা সাধারণ মানুষ ও দলের সিংহভাগ নেতাকর্মীর মধ্যে নেতিবাচক আলোচনা রয়েছে। যদিও এমন অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা-ভিত্তিহীন-বানোয়াট ও উদ্দেশ্যেপ্রণোদিত বলে দাবি জেলা আওয়ামী লীগের। অন্যদিকে সম্মেলনে উপস্থিত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নেতা বলেন, সহসভাপতি আকতার জাহান সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হবার প্রত্যাশা করে সভাপতি ব্যতিত কার্যনির্বাহী কমিটির কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হলে সেটা বৈধতা পাবে কি না সেটা বিবেচনা করা দরকার এবং যেই কার্যালয় নিয়ে নেতাকর্মীদের মধ্যে নেতিবাচক আলোচনা ও মতবিরোধ রয়েছে সেই কার্যালয়ে কার্যনির্বাহী কমিটির সভা আহবান করায় সন্বয়কের নিরপেক্ষতা নিয়ে সমালোচনা করে বক্তব্য রেখেছেন। তবে একাধিকবার যোগাযোগের চেস্টা করা হলেও সংরক্ষিত আসনের সাবেক সাংসদ ও সহসভাপতি আকতার জাহান-এর এবিষয়ে কোনো বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।
স্থানীয় রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহলের অভিমত, জেলা কমিটির সভাপতি ব্যতিত কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হলে সেটা বৈধতা পাবার কথা নয় এবং সভাপতির অনুপোস্থিতিতে কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় অন্যকেউ সভাপতিত্ব করতে পারেন না তবে সভা পরিচালনা করতে পারেন। কারণ সিদ্ধান্ত নেয়ার বিষয়টি অনেকটা সভাপতির ওপর নির্ভর করে। তারা আরো বলেন, যেই জেলা কার্যালয় নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে নেতিবাচক আলোচনা ও পরস্পরবিরোধী অবস্থানে রয়েছে সেই কার্যালয়ে কার্যনির্বাহী কমিটির সভা আহবান করে সন্বনয়ক তার নিরপেক্ষতা হারিয়েছে। কারণ সম্বনয়ক বিবাদমান দুটি পক্ষের নেতাকর্মীদের মধ্যে সম্বনয়ন ঘটিয়ে নিরপেক্ষ ভেণ্যুতে সভা আহবান করবেন যাতে সভার স্থান নিয়ে উভয় পক্ষের কেউ যেনো কোনো অপত্তি করতে না পারে আবার ওই কার্যালয়ে জেলা সভাপতি যাবেন না এটা নিশ্চিত হবার পরেও সম্বনয়ক কেনো সেখানে কার্যনির্বাহী কমিটির এতো গুরুত্বপূর্ণ সভা আহবান করলেন, তবে তারা কি সভাপতিকে উপেক্ষা করেই সব করতে চাই তৃণমূলে এমন প্রশ্নেরও সৃষ্টি হয়েছে। তারা আরো বলেন, এই সভা কোনো কমিউনিটি সেন্টার অথবা সম্বনয়ক তার কার্যালয় বা বাড়িতে আহবান করতে পারতেন। কিšত্ত তিনি সেটা করতে ব্যর্থ হয়েছেন এতে এটাই প্রমাণ করে হয় তাঁর রাজনৈতিক দূরদর্শীতার অভাব, নয়তো ইচ্ছে বা অনিচ্ছায় হোক তিনি কোনো বিশেষ মহলকে খুশি করতেই সেখানে সভা আহবান করেছেন। তারা বলেন, ওই কার্যালয়ে কি হয় না হয় সেটা রাজশাহীর প্রতিটি মানুষ জানেন।
তাদের অভিমত, যেহুতু সম্বনয়ক নিরপেক্ষতা হারিয়েছে বলে মনে করছে তৃণমূল, সেহুতু এই সম্বনয়ক দিয়ে সুষ্ঠুভাবে বিতর্কমুক্ত একটি সুন্দর কমিটি উপহার দেয়া অনেকটা দুরুহ হবে। এবিষয়ে একাধিকবার যোগাযোগের চেস্টা করা হলেও জেলা আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীল কারো কোনো বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। এব্যাপারে রাজশাহী জেলা মহিলা লীগের সভানেত্রী মর্জিনা পারভীন বলেন,রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে এমপি ফারুক চৌধূরীর কোনো বিকল্প নাই, তিনিই আবারো সভাপতি হবেন আমরা সেটাই প্রত্যাশা করি। #
তানোর প্রতিনিধি

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38345138
Users Today : 641
Users Yesterday : 2774
Views Today : 2792
Who's Online : 32
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/