বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
দেশের প্রথম ‘ছেলে সতীন’ হিসেবে গিনিস বুকে নাম লেখাতে চান নাসির হোসাইন! এবার প্রবাসীদের ব্যাগেজ রুলে আসছে পরিবর্তন, শুল্কছাড়ে যত ভরি স্বর্ণ আনতে পারবে প্রবাসীরা যে চার ধরনের শা’রীরিক মিলন ইসলামে নি’ষিদ্ধ !!বিজ্ঞানী বু-আলী ইবনে সীনা নারীদের যে ৮টি কথা বললে তারা আপনাকে মাথায় তুলে রাখবে… নওগাঁর মহাদেবপুরে বিএনপি’র উদ্যোগে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বিভাগীয় সমাবেশ সফল করার লক্ষে প্রস্তুতি সভা মাদ্রাসার এক ছাত্রকে (১২) বলৎকার মাওলানা আটক নরপশুটা আমাকে কোলে তুলে মোনাজাত করতো! গাইবান্ধায় মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার গাইবান্ধায় অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১০ হানিফ বাংলাদেশীর মার্চ ফর ডেমোক্রেসি গাইবান্ধায় জনসভায় পরিনত হয়েছে দিনাজপুর বিরামপুরে ‘বিট পুলিশিং সমাবেশ নবনির্বাচিত উলিপুর পৌর মেয়রের দায়িত্বভার গ্রহণ  ভাষা দিবস উপলক্ষে নারী অধিকার আন্দোলনের আলোচনা সভা স্থগিত পরীক্ষা চালুর দাবি রাবি শিক্ষার্থীদের ৭২ ঘন্টার আল্টিমেটাম তানোরে বিএনপির প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত

রাজীবপুরে আতঙ্ক হিরো বাহিনী

রৌমারী(কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি:
মাদক কারবার থেকে শুরু করে নারী নির্যাতন এমন কি জমি দখল সহ ওই বাহিনীর বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে।
কুড়িগ্রামের রাজীবপুর উপজেলার চেয়ারম্যান ও সাবেক উপজেলা আ,লীগের সাধারন সম্পাদক আকবার হোসেন হিরো এলাকাবাসীর কাছে এক মূর্তিমান আতঙ্ক। মাদক কারবার, হত্যার হুমকি, নারী নির্যাতন, জমি দখলসহ তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই। স্বল্প সময়ে একজন আ,লীগের সাধারণ কর্মী থেকে টাকার পাহাড় গড়ে তুলেছেন। সম্প্রতি হিরোর নেতৃত্বে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তার দেলোয়ার হোসেন কে ফোন করে উপজেলা চত্বরে নিয়ে আসেন এবং চেয়ারম্যান এবং হত্যার হুমকি দেন প্রকাশ্যে। বাধ্য হয়ে ওই ডাক্তার ৪ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় সাধারন ডায়রি করেন। শুধু তাই নয় মাস ছয়েক আগে হিরো বাহিনীর অন্যতম সন্ত্রাস বিদ্যুৎ সরকার প্রকাশ্যে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হামলায় চালায়। এই বাহীনির অন্যতম আরেক দাজ্জাল রেনু চুরি করে ৫ টি গাছ কাটে সরকারী কিন্তু রহস্যজনক কারনে মামলা নেয়নি থানার পুলিশ। রাজনীতির ছত্রছায়ায় একের পর এক অপরাধ করে গেল ও দেখার যেন কেউ নেই। হিরো বাহিনীর নেতৃত্বে রয়েছে উপজেলা আ,লীগের সভাপতি আব্দুল হাই সরকার, আজিমউদ্দিন মাষ্টার, এবং আকবার হোসেন হিরো চেয়ারম্যান।
স্থানীয়রা জানায়, গত পাঁচ  বছর হিরো চেয়ারম্যানের তেমন আয়-রোজগারের কোনো পথ ছিল না। ভাতিজা মাসুদ উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হওয়ার পর ক্ষমতার অপব্যবহার শুরু করেন। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০০৯ সালের উপজেলা নির্বাচনে সামান্য ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হোন আকবার হোসেন হিরো। টানা বছর জনগনের সাথে সুসম্পর্ক না রেখে জড়িয়ে পড়েন অনিয়ম-দুর্নীতিতে। জনগন ২০১৪ সালের নির্বাচনে বিপুল ভোটে হারিয়ে দেয়। চেয়ারম্যান থাকা কালে এমন কোন অপরাধ নাই যা তিনি করেননি। আজাদ মেম্বার নামের এক ইউপি সদস্য মোবাইলে এই প্রতিবেদক কে বলেন, তিনজনের বিরুদ্ধে এলাকায় বহু অভিযোগ রয়েছে। সরকারের উচিত ওই তিনজন কে দল থেকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দেওয়া। আব্দুর রশিদ হিরো বাহিনীর একজন। তিনি হিরোর কথা মতো উপজেলার সামনে আ,লীগের এক নেতা কে ব্যাপক মারপিট করেছিলেন। এই বাহীনির অভিযোগের অন্ত নেই। সব অভিযোগ অস্বীকার করে এই প্রতিবেদক কে আকবার হোসেন হিরো বলেন, রাজনীতি করলে দোষ/সুনাম থাকবে। তাই বলে কি আপনে আমাদের বিরুদ্ধে লেখে যাবেন। আপনার অভিযোগ সব সঠিক না কিছু সত্য কিছু মিথ্যা।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38322858
Users Today : 3408
Users Yesterday : 3479
Views Today : 10289
Who's Online : 34
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/