শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ০১:২১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
গৃহহীনদের ঘর দেয়ার কথা বলে অর্থ নেয়ার অভিযোগে সাঁথিয়ায় আ’লীগ নেতাকে শোক’জ করোনায় ১৫ দিনে ১২ ব্যাংকারের মৃত্যু পৃথিবীতে কোনো জালিম চিরস্থায়ী হয়নি: বাবুনগরী যারা আ.লীগ সমর্থন করে তারা প্রকৃত মুসলমান নয়: নূর চট্টগ্রামে বেপরোয়া হুইপপুত্র যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা অক্সিজেনের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে ভারতে ৪ ঘণ্টা পর পাকিস্তানে খুলে দেয়া হলো সোশ্যাল মিডিয়া করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১০১ জনের মৃত্যু ভাড়াটিয়াকে তাড়িয়ে দিলেন বাড়িওয়ালা, পুলিশের হস্তক্ষেপে রক্ষা জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে জনপ্রিয় নায়িকা মিষ্টি মেয়ে কবরী স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে গণধর্ষণ, আটক ৩ দুই দিনের রিমান্ডে ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল লকডাউনেও মসজিদে মসজিদে মুসল্লিদের ঢল বেনাপোলে ৮৮ কেজি গাঁজাসহ মাদক কারবারী আটক

রাবিতে ফলিত পরিসংখ্যান বিভাগ করার দাবিকে অযৌক্তিক বলছেন শিক্ষকরা

রাবি প্রতিনিধি:
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) পপুলেশন সায়েন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট বিভাগের নাম পরিবর্তন করে শিক্ষার্থীদের ফলিত পরিসংখ্যান করার দাবিকে অযৌক্তিক বলছেন বিভাগের শিক্ষকরা। তবে পিএসসিতে বিভাগের স্বতন্ত্র কোড অর্ন্তভুক্তির ব্যাপারে সহমত পোষণ করছে তারা। শনিবার দুপুরে স্যার জগদীশ চন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তারা।

পপুলেশন সায়েন্স বিভাগের সভাপতি মো নজরুল ইসলাম মন্ডল লিখিত বক্তবে বলেন, শিক্ষার্থীদের অযৌক্তিক দাবির প্রেক্ষিতে বিভাগের নাম পরিবর্তনের কোন চিন্তাভাবনা নেই। বিভাগটি উচ্চতর গণিত, পরিসংখ্যান ব্যবহারের মধ্য দিয়ে পপুলেশনের মৌলিক তিনটি উপাদান জন্ম, মৃত্যু এবং মাইগ্রেশনের ফোরকাস্টিং, মডেলিং এবং বিশ্লেষণধর্মী বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষা দিয়ে থাকে যা বিজ্ঞান অনুষদের স্পিরিট ধারণ করে বিধায় বিভাগটি বিজ্ঞান অনুষদের অর্ন্তভুক্ত।
তিনি আরও বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত পরিসংখ্যানের অর্নাসের ২০১৯-২০ সেশনের সিলেবাসের সাথে রাবি পপুলেশন সায়েন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভোলপমেন্ট বিভাগের একই সেশনের সিলেবাসের সঙ্গে মাত্র ২০.৩ শতাংশ সাদৃশ্য রয়েছে। ফলে শিক্ষার্থীদের বিভাগের নাম পরিবর্তনের জন্য উত্থাপিত দাবি সঠিক নয় ।

এছাড়াও বিভাগের সকল শিক্ষক ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা মনে করে বিভাগের নাম পরিবর্তন করে নতুন একটি বিভাগ খোলার দাবি অপ্রাসঙ্গিক এবং নিষ্প্রয়োজন।

অন্যদিকে শিক্ষার্থীরা দাবি করেছেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ব্যতীত পৃথিবীর কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে পপুলেশন সায়েন্স ও হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট নামে কোন বিভাগ নেই। দুটি ভিন্ন অনুষদের ভিন্ন দুটি স্বতন্ত্র বিষয়কে এক করে শুধুমাত্র আমাদের বি.এস.সি সার্টিফিকেট দেয়া হচ্ছে ।

তারা আরও জানান, বিভাগটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল পরিসংখ্যান বিভাগেরই ৬ জন সম্মানিত শিক্ষকের হাত ধরে। যার পরিসংখ্যান/ফলিত পরিসংখ্যান বিভাগের সিলেবাসের সাথে ৯৫% এর অধিক মিলে যায়। পড়ানো হয় ফলিত পরিসংখ্যান কিন্তু বিভাগের নাম পপুলেশন সায়েন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট। যেটি সম্পূর্ন অযৌক্তিক।

উল্লেখ্য, পিএসসি’তে বিষয় কোড অন্তর্ভুক্তির দাবি জানিয়ে গত ১৯ জানুয়ারি থেকে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে মানববন্ধন, অবস্থান কর্মসূচিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছিল সংশ্লিষ্ট বিভাগের শিক্ষার্থীরা। তবে ২৬ ফেব্রæয়ারি থেকে বিভাগের নাম পরিবর্তন করে ফলিত পরিসংখ্যান করার দাবিতে তিনদিন ধরে আমরণ অনশন শুরু করে তারা। পরে বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য এম আব্দুস সোবহানের ০২ মার্চ দাবির বিষয়ে আলোচনায় বসার আশ্বাসে ২৮ ফেব্রæয়ারি রাত দেড়টায় আমরণ অনশন স্থগিত করে বিভাগের শিক্ষার্থীরা। ####

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38448502
Users Today : 126
Users Yesterday : 1193
Views Today : 337
Who's Online : 19
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone