মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০১:২৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
নোয়াখালী সুবর্ণচরের বিএনপি নেতা এনায়েত উল্লাহ বি কম এর ইন্তেকাল নওগাঁর মহাদেবপুরে মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের গণকবর প্রাচীর দিয়ে সংরক্ষণের দাবি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের শিক্ষা জাতীয় করন নিয়ে মনের কষ্ট ফেসবুকের মাধ্যমে ব্যক্ত করলেন অধ্যক্ষ এস এম তাইজুল ইসলাম কুলিয়ারচরে দিনব্যাপী ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন ২৫ ও ২৬ মার্চ হত্যাকাণ্ড চালিয়েছিল জিয়া মমতাকে ছেড়ে আসা মিঠুন এখন মোদির দলে সন্তান কোলে নিয়েই দায়িত্ব সামলাচ্ছেন নারী ট্রাফিক পুলিশ স্ত্রীসহ করোনায় আক্রান্ত সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট আসাদ মিয়ানমারে রাস্তায় হাজারো হাজার লোকের বিক্ষোভ স্কুল শিক্ষককে বিয়ে করলেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী নারী প্রতারণার মামলায় ডা. সাবরিনার জামিন আবেদন নামঞ্জুর চট্টগ্রামে প্রবাসী হত্যায় ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড সামাজিক মাধ্যমে কুরুচিপূর্ণ লেখা সতর্ক করলেন প্রধান বিচারপতি নিবন্ধনধারীদের এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগের নির্দেশ ১৫ দিনের মধ্যে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধনধারীদের নিয়োগ

শরীয়তপুরে মা ইলিশ বহনের অপরাধে তিন পুলিশ বরখাস্ত

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অভিযান চলাকালীন সময় মা ইলিশ বহনের দায়ে শরীয়তপুরে তিন পুলিশ সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে। বুধবার (১৬ অক্টোবর) রাত পৌনে ১২টার দিকে পুলিশ লাইন্সের অফিসে বসে পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন এ বরখাস্তের আদেশে স্বাক্ষর করেন বলে জানাগেছে। বরখাস্ত আদেশ প্রাপ্ত পুলিশ সদস্যরা হলেন শরীয়তপুর পুলিশ লাইন্সের মোটরযান বিভাগে দায়িত্বরত এস.আই মন্টু মিয়া, কনেস্টবল হৃদয় ও সনজিত।
জানাযায়, শরীয়তপুরের প্রশাসনের পাশাপাশি শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ইকবাল হোসেন অপু’র নির্দেশে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ ও সাধারণ মানুষ মা ইলিশ রক্ষা অভিযানে অংশগ্রহণ করে। অভিযান চলাকালীন সময় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে শরীয়তপুরের বিভিন্ন সড়ক দিয়ে মা ইলিশ বহনের মহোৎসব চলছে শুনে দলীয় কিছু নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষ বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নেয়। তারই ধারাবাহিতকায় বুধবার রাত ১১টার পর থেকে পুলিশ লাইন্স সংলগ্ন পানি উন্নয়ন বোর্ড সড়ক দিয়ে কয়েকজন পুলিশ সদস্য মা ইলিশ বহন করে নিয়ে যাচ্ছিল এমন খবর পায় তারা। তখন দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের হাতে ধরা পড়ে ওই পুলিশ সদস্যরা। খবর পেয়ে জেলা প্রশাসন এবং পুলিশ প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ ঘটনাস্থলে যায়। তখন পুলিশ লাইন্সের আবাসিক পুলিশ পরিদর্শক অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের জিম্মায় গ্রহণ করে পুলিশ লাইন্সে নিয়ে যায়। পুলিশ লাইন্সে বসেই অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বরখাস্ত আদেশে স্বাক্ষর করেন পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন। সেখান থেকে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহাবুর রহমান শেখ মা ইলিশ জব্দ করে বিভিন্ন এতিম খানায় প্রদান করেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল মামুন শিকদার, পুলিশ সুপার কার্যালয়ের ডিআইও-১ আজাহারুল ইসলাম ও পালং থানার ওসি মো. আসলাম উদ্দিন প্রমূখ। পুলিশ কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতেই বরখাস্ত হওয়া এস.আই মন্টু মিয়ার কাছ থেকে টিআই জামাল মীর’কে মোটরযান শাখার দায়িত্ব বুঝে নিতে নির্দেশ করেন পুলিশ সুপার।
এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন বলেন, আমি পুলিশ সদস্যদের দায়িত্ববান হতে অনেক বুঝিয়েছি। মা ইলিশ রক্ষা করা জাতীয় ইস্যু। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সকল নেতাকর্মীগণ ও সাধারণ মানুষ সচেতন হয়েছে। কিন্তু পুলিশ সদস্যরা আমার কথা বুঝতে পারেনি। যারা নিষেধাজ্ঞা অমান্য করেছে তাদের পুলিশে চাকুরি করার যোগ্যতা নাই। আজ যারা ইলিশ বহন করেছে তাদের বরখাস্ত করা হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা হয়েছে। তারা যেন ৬০ কার্য দিবসের মধ্যে বাড়ি চলে যেতে পারে সেই ব্যবস্থাও করা হবে।
এদিকে পুলিশ সদস্য বরখাস্ত হওয়ায় শরীয়তপুরের সাধারন মানুষ সন্তোষ প্রকাশ করেছে।

১নং ছবির ক্যাপশন:
শরীয়তপুরে মা ইলিশ বহনের অপরাধে বরখাস্তকৃত এস.আই মন্টু মিয়া ও জব্দকৃত মাছ।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38374999
Users Today : 1719
Users Yesterday : 4902
Views Today : 9854
Who's Online : 36
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/