শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০১:০৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মিতু হত্যা: আসামিদের পালানো ঠেকাতে জারি হচ্ছে সতর্কতা বরিশালে বিএনপির পক্ষ থেকে ঈদ সামগ্রী বিতরণ তানোর উপজেলা চেয়ারম্যানের ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদের শ্যামনগর উপজেলা শাখার কমিটি গঠন  বঙ্গবন্ধুর পূর্ব বংশধর আল্লাহর  ওলি ছিলেন- ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল এমপি প্রেসবিজ্ঞপ্তি -ফিলিস্তিনের হত্যাকান্ডের জন্য জংগী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী  হামাস দায়ী- অবিলম্বে ইজরাইল”কে স্বীকৃতি দিন —কমরেড সামাদ  ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের হামলার প্রতিবাদে বায়তুল মোকাররমে বিক্ষোভ পিতা-মাতার ভরণ-পোষণ আইন ২০১৩ ও শাস্তি? ১২ বছর ভোগদখলে প্রতিকার না চাইলে তামাদি আইনে জমির মালিক তানোরে শিব নদী পাড়ে বিনোদন প্রেমীদের ভিড় ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন চেয়ারম্যান ইয়াকুব আলী কুড়িগ্রামে ঐক্য যুব ফোরাম ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী ও ঈদের পোষাক বিতরণ বিশ্ব ঐতিহ্য ষাটগম্বুজ মসজিদে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত ঈদের দিনেও ইসরাইলি বর্বরতা থেকে রেহাই পায়নি ফিলিস্তিনিরা সারা দেশে উদযাপন করা হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর

শিবগঞ্জে পাষান্ড স্বামী নজরুল কর্তৃক নিজের বউকে মানহানির চেষ্টা

 

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার দেবচন্ডি গ্রামের পাশান্ড স্বামী কর্তৃক নিজের বউকে মানহানির চেষ্টার খবর পাওয়া গিয়েছে। জানা যায়, শিবগঞ্জ উপজেলার পীরব ইউনিয়নের দেবচন্ডি গ্রামের শমসের আলীর ছেলে নজরুল কর্তৃক নিজের বউ কনিকাকে মানহানীর চেষ্টার ঘটনা ঘটেছে। কনিকার দায়ের করা শিবগঞ্জ থানার জিডি সূত্রে জানা যায়, ২০০২ সালে জয়পুরহাট জেলার পাঁচবিবি থানাধীন ধরনজি গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে সাইদের সাথে কনিকার বিবাহ হয়। বিবাহের পর হতে সাইদ কনিকার বাবার বাড়ীতে ঘরজামাই থাকতো। তাদের ঘড়ে একটি মেয়ে ও একটি ছেলে রয়েছে। সুখে সংসার করতে থাকলেও বাঁধা হয়ে দাড়ায় একই গ্রামের দুই সন্তানের জনক নারীলোভী নজরুল। নজরুল কনিকাকে বিভিন্নভাবে প্রলভন দেখিয়ে পালিয়ে নিয়ে গিয়ে ২০শে জুন ২০১০সালে বগুড়া জেলা নোটারী পাবলিকের কার্য্যালয় হাজির হয়ে সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিবাহের পর হতে তাদের সংসারে দ্বন্দ্ব কলহ বিরাজ করতে থাকে। এরই এক পর্যায়ে আগের স্বামী আবু সাইদ তার স্ত্রীর শোকে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলে। নজরুলের সাথে সংসার করা অবস্থায় কনিকার আগের পক্ষের সন্তানগুলোকে নজরুল কোন ভাবেই মেনে নিতে পারছিলোনা। এই নিয়ে বাঁধে তুমুল অশাত্তি। কোন উপায় না পেয়ে প্রতারক নজরুলের হাত থেকে বাঁচতে কনিকা বগুড়া জেলা নোটারী পাবলিকের কার্য্যলয়ে হাজির হয়ে ২০১৩ সালের ২২মে তালাক প্রদান করেন। তালাকের কাগজ পাওয়ার পর থেকে নজরুল আরও ক্ষিপ্ত হয় তার স্ত্রী কনিকার উপর। এরই এক পর্যায়ে স্থানীয় ভাবে বিচার সালিশের মাধ্যমে কনিকাকে পুনরায় নজরুলের সাথে সংসার করার জন্য এলাকার মাতব্বরা সিদ্ধান্ত দেওয়া। উভয়কে বাংলাদেশের মুসলিম বিবাহ আইনকে তোয়াক্কা না করে (দোড়রা) মেরে পুনরায় একই ইউনিয়নের জানগ্রামের কাজী আব্দুল মান্নান তাদেরকে ২৭ জুলাই ২০১৩ সালে পুনরায় নিকাহ্ করে দেয়। তাদের ঘড়ে এ সময় একটি পুত্র সন্তান জন্ম নেয়। পুনরায় তাদের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় বাঁধে দ্বন্দ্ব কলাহ। এর পর থেকে নজরুল বিভিন্ন ভাবে তার স্ত্রী অসহায় কনিকাকে হয়রানি করতে থাকে। কনিকার কোন পুরুষ অভিভাবক না থাকায় নজরুল দিনে এবং রাতের আধাঁরে কনিকার বাড়িতে এসে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধামকি দিতে থাকে। হুমকি থামকি সহ্য করতে না পেরে কনিকা ২৭ অক্টোবর ২০১৯ ইং তারিখে শিবগঞ্জ থানায় উল্লিখিত ঘটনার বিবরণ দিয়ে একটি সাধারণ ডায়রী করে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে কনিকা বলে, আমি ঐ কাপুরুষ, প্রতারক এবং নারীলোভীর সাথে কোন ভাবেও ঘড় সংসার করতে পরবোনা, সে আমাকে প্রতিনিয়ত হত্যার হুমকি দিচ্ছে এবং ফোনে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করছে, আমি তার নির্যাতন থেকে বাঁচতে চাই। এবিষয়ে নজরুলের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি কোন ভাবেও আমার স্ত্রীকে ছাড়বোনা, আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিকের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, ঘটনাটি আমি জানি, আগামী বৃহস্পতিবার উভয় পক্ষকে পরিষদে ডাকা হয়েছে। উভয়ের কথা শুনে আইনের মধ্যে থেকে বিষয়টি সমাধান করে দেওয়া হবে। জিডির বিষয়ে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মিজানুর রহমান বলেন, এবিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। বিষয়টি নিয়ে এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে ছিঃ ছিঃ রব উঠেছে।

Please Share This Post in Your Social Media


বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

বঙ্গবন্ধু কাতরকণ্ঠে বলেন, মারাত্মক বিপর্যয়

https://twitter.com/WDeshersangbad

© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design And Developed By Freelancer Zone