শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৭:০৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
কেন্দ্রীয় বিএমএসএফের চতুর্থ কাউন্সিলের তারিখ ঘোষণা খাস জমির অধিকার ভূমিহীন জনতার শ্লোগানে ভূমিহীন আন্দোলনের রংপুর বিভাগীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী লামা উপজেলায় ২নং লামা সদর ইউনিয়নে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের শুভ উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন চুরি হওয়া সেই নবজাতককে হত্যা করেন মা খুলনাকে ৯ উইকেটে হারালো চট্টগাম খুলনার সংগ্রহ ৮৬, মাত্র ৫ রানে ৪ উইকেট নিলেন মোস্তাফিজ মাটি খুঁড়লেই মিলছে ‘হিরা’, গুঞ্জনে গ্রামে তোলপাড় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সমাবেশেও আসেননি মামুনুল হক অন্যের স্ত্রীর ঘর থেকে বের হওয়ার সময় পুলিশ সদস্য আটক চরমোনাই পীর-মামুনুল হককে গ্রেপ্তারে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম খানসামা থানার পরিত্যক্ত জমিতে সবজি চাষে ওসি শেখ কামাল হোসেনের সাফল্য মোরেলগঞ্জে জিনের আছর ভর করেছিল, বাগেরহাটে আমন ফসলে কারেন্ট পোকার আক্রমন ফসলহানীর আংষ্কায় আতঙ্কে ৬৫ হাজার কৃষক জামালপুরের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রাইভেটকার খাদে নিহত শিশু  বিরামপুরে গভীর রাতে ইউএনও দেওয়া কম্বল পেল সাবলম্বিগণ

শীতের আগমনে বরিশালে লেপ-তোষক তৈরিতে ব্যস্ত কারিগররা

মনির হোসেন বরিশাল :
বরিশালে গত কয়েকদিন ধরে আবহাওয়ার ব্যাপক পরিবর্তন দেখা দিয়েছে। রাত শেষে ভোরে আলোর ফুটলেও কুয়াশাচ্ছন্ন হয়ে থাকে চারপাশ। একটু বাতাস বইলেই কেপে উঠছে শরীর। আর তাতে বুঝা যায় দরজায় কড়া নাড়ছে শীত। আর শীতের আগমনে লেপ-তোষক তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন স্থানীয় কারিগররা।
প্রচলিত রীতি অনুযায়ী কার্তিক মাসে শীতের জন্ম হলেও পৌষ ও মাঘ এই দুই মাস শীত মৌসুম হিসাবে বিবেচিত হয়। বরিশাল নগরীর বাসিন্দারা শীত মোকাবেলায় আগাম প্রস্তুতি হিসাবে হিড়িক পরে গেছে লেপ-তোষক বানানোর দোকানে। অনেক পরিবারের লোকজন তাদের বাস্কে ভর্তি রাখা লেপ-তোষক বের করে মেরামত করছে।
কারিগররা বলছেন, কিছুদিন পরে ক্রেতাদের ভিড় আরো বাড়বে। ক্রেতাদের এই আনাগোনা চলবে পুরো শীত জুড়ে।
এদিকে ফুটপাতের অস্থায়ী দোকানগুলোতে শীতের পুরাতন কাপড় বিক্রি করতে দেখা গেছে। যাদের লেপ-তোষক কেনা বা বানানোর টাকা নেই তারা ভিড় জমাচ্ছে ওইসব দোকানে। সেখানে দেড়শ থেকে দুইশ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে ভালো মানের পুরানো কাপড়। কেউ আবার অল্প টাকায় পাতলা কম্বলও ক্রয় করছেন।
সরেজমিনে নগরীর পদ্মাবতী রোড, মহসীন মার্কেট, বাজার রোড, সাগরদী, চৌমাথা, নতুন বাজার, নবগ্রাম রোড, বাংলাবাজার এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, লেপ-তোষকের দোকানের সবকটিতেই ছিল কারিগরদের লেপ বানানোর ব্যস্ততা। দোকানিরাও অর্ডার গ্রহণ এবং ক্রেতাদের বিভিন্ন রঙ-মানের কাপড় ও তুলা দেখাতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। একই দৃশ্য চোখে পড়ে বরিশাল জেলার বিভিন্ন উপজেলার হাট-বাজারগুলোতে।
পদ্মাবতী রোডের লেপ-তোষক ব্যবসায়ী মো. আরিফুর রহমান জানান, তুলার মান ও পরিমাণের ওপর নির্ভর করে লেপ-তোষক তৈরির খরচ। এ বছর জিনিসপত্রের দাম বাড়ায় স্বাভাবিকভাবেই লেপ-তোষক তৈরিতে খরচ দুইশ থেকে তিনশ টাকা বেড়ে গেছে। আর একটি লেপ/তোষক বিক্রি করে তাদের  তিনশ থেকে পাঁচশ টাকা লাভ হয়।
সন্তানের সামনে স্ত্রীর পায়ের রগ কাটা সেই স্বামী গ্রেফতার
মনির হোসেন বরিশাল ব্যুরো  :
যৌতুকের দাবিতে বরিশালের বানারীপাড়ায় তিন বছরের শিশু সন্তানের সামনে স্ত্রীর পায়ের রগ কেটে দেওয়ার ঘটনায় স্বামী রাসেল বালীকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার দিবাগত রাত পৌনে ২টার দিকে উপজেলার সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের আউয়ার গ্রামের বাড়ি থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।
সোমবার (৯ নভেম্বর) সকালে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। বর্বরোচিত এ ঘটনার এক মাস ৫ দিন পরে পুলিশ রাসেল বালীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।
স্থানীয়রা জানায়, গত ৩ অক্টোবর সকাল ৯টার দিকে বানারীপাড়া পৌর শহরের ৬ নং ওয়ার্ডের দুলাল বালীর বাসার সামনের রাস্তায় শিশু সন্তানের সামনে গৃহবধূ হ্যাপীর পায়ের রগ কেটে দেন স্বামী রাসেল বালী। গুরুতর আহত অবস্থায় গৃহবধূ হ্যাপীকে প্রথমে বানারীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। পরে তাকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার পায়ে অস্ত্রোপচার করা হয়।
এ ঘটনায় ৪ অক্টোবর রবিবার রাতে আহত ওই গৃহবধূর পিতা আ. রাজ্জাক হাওলাদার বাদি হয়ে বানারীপাড়া থানায় স্বামী রাসেল (৩২), শ্বশুর হাসান বালী (৬৫), শাশুড়ি খাদিজা বেগম (৫৫) ও চাচাতো দেবর জসিমকে (৩০) আসামি করে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পরে ওইদিন গভীর রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে আসামি জসিমকে (৩০) গ্রেফতার করে।
আহত হ্যাপীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে,
উপজেলার সৈয়দকাঠি ইউনিয়নের হাওড়াবাড়ি এলাকার হাসান বালীর ছেলে ধান ব্যবসায়ী রাসেলের সঙ্গে একই এলাকার আ. রাজ্জাক হাওলাদারের মেয়ে হ্যাপীর ১০ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে রিমি (৯) ও রাতুল ( ৩) নামের দুটি সন্তান রয়েছে।
তিন লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে হ্যাপীকে দীর্ঘদিন ধরে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন করে আসছিল রাসেল। স্বামীর যৌতুকের চাহিদা মেটাতে হ্যাপী তার স্বর্ণালঙ্কার বন্ধক রেখে ৩৬ হাজার টাকা দিলেও বাকী টাকার জন্য তার ওপর নির্যাতন অব্যাহত থাকে।
জরায়ু সমস্যার চিকিৎসার জন্য হ্যাপী তার স্বামী রাসেলকে একাধিকবার অনুরোধ করার পরে ২ অক্টোবর তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।  শুধু আল্ট্রাসনোগ্রাম করিয়ে তাকে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। ওইদিন রাতে অসহ্য যন্ত্রণায় কাতর হ্যাপী উন্নত চিকিৎসার জন্য স্বামীকে অনুরোধ করার পরেও সে চিকিৎসা করাতে অস্বীকৃতি জানায়।
এসময় বাবার বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকা এনে চিকিৎসা করাতে বলায় দুজনের মধ্যে তুমুল ঝগড়া হয়। ৩ অক্টোবর সকালে অসুস্থ হ্যাপী শিশু সন্তান রাতুলকে নিয়ে বানারীপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে রওনা হয়।
এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রাসেল ও তার পিতা হাসান বালী হ্যাপীর পিছু নেয়। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বানারীপাড়া পৌর শহরের হাইস্কুল সংলগ্ন দুলাল বালীর বাড়ির সামনের রাস্তায় রিকশার গতিরোধ করে তারা হ্যাপীকে টেনে-হিঁচড়ে নামিয়ে বেদম মারধর করেন।
একপর্যায়ে শ্বশুর হাসান বালী জাপটে ধরে রাখে এবং স্বামী রাসেল ধারালো চাকু দিয়ে তার বাম পায়ের রগ কেটে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। এ সময় হ্যাপী ও তার শিশু পুত্রের আত্মচিৎকারে পথচারীরা ছুটে এলে তারা শিশুটিকে আহত হ্যাপীর কোল থেকে ছিনিয়ে নিয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

37870741
Users Today : 5940
Users Yesterday : 2663
Views Today : 19808
Who's Online : 76
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone