মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ১০:৪০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
খাস কামরায় নারী সাক্ষীর সঙ্গে অশোভন আচরণ, বিচারক প্রত্যাহার যুক্তরাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ৩৮ হাজার ৫৯৮ ‘মেয়র তাপস ভবিষ্যৎ প্রধানমন্ত্রী’ অবৈধপথে ইউরোপে প্রবেশ, মাল্টা থেকে ৪৪ বাংলাদেশিকে ফেরত চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় ভয়াভহ অগ্নিকাণ্ড ঝিনাইদহে গুড়া হলুদে চাউলের গুড়া ও রঙ মেশানোর অপরাধে ব্যবসায়ীকে জরিমানা ঝিনাইদহে বর্ণাঢ্য আয়োজনে এশিয়ান টিভির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হরিণাকুÐুতে মাটি টানা গাড়ির ধাক্কায় পথচারী নিহত শৈলকুপা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে উপ- নির্বাচন ২৮ ফেব্রæয়ারি ছেলের বাবা হলেন ডা. মোঃ সইফুজ্জামান বিপ্লব ছাতক পৌরসভা নির্বাচনে  জামানত হারিয়েছেন ১১ জন প্রার্থী ছাতকে সিএনজি-ফোরষ্ট্রোক খাদে চালকসহ আহত ৩ বেনাপোল বন্দর পরিদর্শনে স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান কেএম তারিকুল বাংলাদেশ বৌদ্ধ নব জাগরণ ফাউন্ডেশনের উদ্যােগে শীতবস্ত্র বিতরণ সম্পন্ন : শিবগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আ’লীগ ও বিএনপি দলীয় প্রতীকে ভোট চেয়ে পথ সভা

শীর্ষ আলেমদের বৈঠকের ডাক হেফাজতের, মাঠে নামতে দেবে না আ.লীগ

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য এবং মূর্তি ইস্যুতে হেফাজতে ইসলাম পরবর্তী কর্মসূচি ঠিক করতে ঢাকায় শীর্ষ আলেমদের বৈঠক ডেকেছে শনিবার (৫ ডিসেম্বর)।

এদিকে, আওয়ামী লীগ দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তাদের মাঠে না নামতে দেয়ার। দলটি তার সহযোগী সংগঠনগুলোকে এরইমধ্যে মাঠে নামিয়ে দিয়েছে। আর কৌশল হিসেবে হেফাজত নেতা মামুনুল হককে গ্রেপ্তারের দাবি অব্যাহত রেখেছে

হেফাজতের বিভিন্ন পর্যায়ে কথা বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে যে তারা দেশের বিভিন্ন ইসলামি সংগঠনকে তাদের দাবির সঙ্গে যুক্ত করতে চায়। তার আগে তারা ঢাকায় বড় ধরনের কোনো সমাবেশ করবে না। এ কারণেই শনিবার তারা ঢাকায় শীর্ষ আলেম ওলামাদের সঙ্গে পরামর্শ সভা ডেকেছে। ওই সভায় চরমোনাইর নেতারা ছাড়াও আরো অনেক ইসলামিক নেতাকে রাখার চেষ্টা করছে তারা। তাদের দাবি অনেক ধর্মীয় নেতারা তাদের সঙ্গে যুক্ত হতে চাচ্ছেন। সভায় পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে তারা। আর মূর্তি বিষয়ে ইসলামের ভাষ্য নিয়ে তারা একটা যৌথ বিবৃতি দেবে। হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে গেপ্তারে যে দাবি উঠেছে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংঠনগুলোর কাছ থেকে সে ব্যাপারেও নিন্দা প্রস্তাব পাস করা হবে।

বৈঠকটি ডেকেছেন বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ বা বেফাকের সভাপতি মাওলানা মাহমুদুল হাসান। এটি বাংলাদেশের কওমি মাদ্রাসাগুলোর সর্বোচ্চ শিক্ষা বোর্ড। আর কওমি মাদ্রাসাগুলো নিয়ন্ত্রণ করে হেফাজতে ইসলাম। হেফাজতের আমীর মাওলানা জুনাইদ বাবুনগরী তাকে দিয়ে কৌশলে এই বৈঠক ডাকিয়েছেন বলে জানা গেছে। এই বৈঠকের মূল উদ্দেশ্য হলো কওমিপন্থিদের বাইরের মাওলানাদেরও দাবির ব্যপারে এক জায়গায় নিয়ে আসা।

শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) ঢাকার শাহবাগ বা বায়তুল মোকাররম মসজিদ এলাকায় হেফাজতের সমাবেশের যে খবর ছড়িয়ে পড়েছে তা নাকচ করে দেন হেফাজতে ইসলামের প্রচার সম্পাদক মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফায়েজি। তিনি বলেন, “আমরা কোনো সংঘাতে যেতে চাই না। শান্তিপূর্ণ সমাধান চাই। ইসলামে মূর্তি হারাম তাই শুধু বঙ্গবন্ধু নয় জিয়াউর রহমানসহ দেশে যত মানুষের ভাস্কর্য আছে তা ভেঙে ফেলতে হবে। আমরা মনে করি মূর্তি আর ভাস্কর্য একই। দুইটার মধ্যে কোনো পার্থক্য নাই।”

তিনি বলেন, “দেশের মানুষের অনুভূতি সরকারকে বুঝতে হবে। আমরা সরকারকে দেশের মানুষ কী চায় তা জানিয়ে দিতে চাই। আর সেজন্যই শনিবার ঢাকায় শীর্ষ আলেম ওলামাদের বৈঠক ডাকা হয়েছে। তারা যে সিদ্ধান্ত দেবে আমরা সেই পথেই অগ্রসর হব।”

চরমোনাই পীরের সংগঠন ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান জানান, “আলেম ওলামাদের শনিবারের ঘরোয়া বৈঠকের আগে আমরা নতুন কোনো কর্মসূচি দেব না। আর মূর্তি ইস্যুটাকে আমরা রাজনৈতিকভাবে দেখছি না। এটা ধর্মীয় বিষয়। মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতির বিষয়।”

হেফাজত নেতারা এখনও গরম কথা বললেও তারা আপাতত বড় কোনো শো ডাউনে যাচ্ছে না বলেই ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। কারণ মামুনুল হক ছাত্রলীগের প্রতিরোধের মুখে গত সপ্তাহে চট্টগ্রামের মাহফিলে যেতে পারেননি। এরপর তিনি তার বক্তব্যের ব্যাখাও দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, তিনি বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে কিছু বলেননি। বঙ্গবন্ধুর প্রতি তার গভীর শ্রদ্ধা রয়েছে। তিনি সব ধরনের মূর্তির বিরুদ্ধে বলেছেন।

এখন মাঠ মূলত আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের দখলে। বিশেষ করে ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ প্রতিদিনই ঢাকাসহ সারা দেশে শো ডাউন করছে। সেখান থেকে হেফাজত নেতা মামুনুলকে গ্রেপ্তারের দাবি করা হচ্ছে। ঢাকায় মঙ্গলবার ৬৫টি রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন মানব বন্ধন করে জুনাইদ বাবুনগরী ও মামুনুল হকসহ তাদের সহযেগিদের গ্রেপ্তারে দাবি জানিয়েছে। শাহবাগে প্রতিদিনই বিভিন্ন সংগঠন সমাবেশ করছে। ছাত্রলীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে শুধু ঢাকা নয় সারাদেশেই তারা প্রতিদিন মিছিল সমাবেশ করছেন। তারা বলছেন, কোনোভাবেই তারা হেফাজতকে মাঠে নামতে দেবেন না।

এই সব সভা-সমাবেশ তদারকির জন্য কয়েকজন মন্ত্রী এবং এমপিকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তারা প্রতিদিনই আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনের নেতাদের সাথে বৈঠক করছেন। শুধু মাঠে নয় সংবাদমাধ্যম এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও তারা ‘ভাস্কর্যকে মুর্তি বলে অপপ্রচারে’ বিরুদ্ধে ক্যাম্পেইন শুরু করেছে। এটা আরো জোরদার হবে। এজন্য দুইজন মন্ত্রীকে সরাসরি দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। পত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশ, টেলিভিশনে টক শো আর সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে প্রচারের কাজও শুরু করেছে।

এর বাইরে আওয়ামী ওলামা লীগ মাঠে রয়েছে। তারাও মাওলানাদের একটি প্লাটফর্ম তৈরির চেষ্টা চালাচ্ছে। তারা প্রতিদিনই ভাস্কর্যকে মূর্তি বলার অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ইসলামের ব্যাখ্যা এবং বিভিন্ন মুসলিম দেশের উদাহরণ দিচ্ছেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কদের ছাড়াও আরো কয়েকজন মন্ত্রী স্পষ্ট করেই হেফাজতের অবস্থানের বিরুদ্ধে বলেছেন। তারা পাল্টা ব্যবস্থার কথা বলেছেন। নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, “এদেশ মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীন হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবিরোধী কোনো কাজকেই প্রশ্রয় দেয়া হবে না। আওয়ামী লীগ একটি রাজনৈতিক দল হিসেবে এসব অপতৎপরতার বিরুদ্ধে জনগণকে নিয়ে মাঠে আছে। আর সরকারেরও দায়িত্ব আছে। কোনো বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চাইলে পুলিশ প্রশাসন ব্যবস্থা নেবে। দলের সাধারণ সম্পাদক একজন মন্ত্রীও। তার কথায় সরকারের অবস্থানও স্পষ্ট হয়েছে।”

ভাস্কর্য ও মূর্তি ইস্যুতে পুলিশ প্রশাসন এরইমধ্যে সক্রিয় হয়েছে। তারা ফেসবুকেও নজরদারি শুরু করেছে। অপপ্রচারকারীদের আইনের আওতায় আনার কথা বলা হয়েছে।

অন্যদিকে হেফাজতে ইসলামের সাবেক আমীর মাওলানা শাহ আহমদ শফীর মৃত্যুর বিষয়টি আবার সামনে আসছে। তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে একটি পুস্তিকা প্রকাশ করা হয়েছে। লিফলেট ছাড়া হয়েছে। বাবুনগরী বিরোধী মাওলানা শফী পন্থীরা বৃহস্পতিবার এইসব বিষয় নিয়ে ঢাকায় একটি বৈঠক ডেকেছেন। শেষ পর্যন্ত তার মৃত্যুর বিষয়টি মামলায় গড়াতে পারে বলে মনে হচ্ছে। সূত্র: ডয়েচে ভেলে।

Please Share This Post in Your Social Media

দেশের সংবাদ নিউজ পোটালের সেকেনটের ভিজিটর

38151212
Users Today : 3808
Users Yesterday : 9244
Views Today : 10593
Who's Online : 94
© All rights reserved © 2011 deshersangbad.com/
Design & Developed BY Freelancer Zone